Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ২৫ জানুয়ারি ২০২১, ১১ মাঘ ১৪২৭, ১১ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

ব্রিটিশ এমপি রুশনারা আলীর সার্জারি উড়িয়ে হত্যার হুমকির অপরাধে যুবকের বিচারের শুনানী

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২১ নভেম্বর, ২০২০, ৪:৫৫ এএম

ব্রিটেনে প্রথম বাংলাদেশি বাঙালি এমপি রুশনারা আলীর অফিস উড়িয়ে দেয়া ও তাকে গালি দিয়ে ২৯০ টি মেসেজ দেয়ার অপরাধে বিচারের শুনানি হয়েছে হোসেন শাহ নাম এক যুবকের।

ব্রিটিশ এমপি রোশনারা আলীর নির্বাচনী আসন যুক্তরাজ্যের পূর্বলন্ডনের বেথনাল গ্রীন এন্ড বোতে এক যুবকের অনবরত হয়রানী এবং হত্যার হুমকির মুখে প্রায় দেড় বছর অজানা শঙ্কা এবং ভয়ের মধ্যে সময় পার করেছেন লেবার পার্টির সিনিয়র ঐ এমপি ।
যুবকের অব্যাহত হুমকির মুখে ভীত হয়ে সার্জারি (অফিস) পার্লামেন্টে স্থানান্তর করতে বাধ্য হন রুশনারা আলী এমপি।

গত বুধবার স্নেয়ারস ব্রোক ক্রাউন কোর্টের শোনানিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।
কোর্ট জানিয়েছে, হোসাইন শাহ নামে ৪১ বছর বয়সী এই স্টকার বেথনালগ্রীনের বাসিন্দা।
হাউসিং সমস্যা নিয়ে প্রথমে এমপি রুশানারা আলীর সার্জারিতে গিয়েছিলেন। এরপর ২০১৮ সালের এপ্রিল থেকে ২০১৯ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত ২৯০টি ট্যাক্সট ম্যাসেজে এসব হুমকি দিয়েছেন হোসাইন শাহ।

কোর্টে আইনজীবি ফিলিপ ম্যাকঘি জানিয়েছেন, স্টকার শাহ ম্যাসেজ পাঠিয়েছেন এমপি রুশানারা আলীর ভাইকেও।

কোর্টের শোনাতি আরো বলা হয়েছে, অন্য একটি ট্যাক্সট ম্যাসেজে শাহ পেট্টল দিয়ে টেরোরিষ্ট স্টাইলে এমপি রুশানারা আলীর সার্জীরী ( অফিস ) উড়িয়ে দেবার হুমকি দেন।
অব্যাহত এসব হুমকিতে ভীত হয়ে পড়েছিলেন এমপি রুশানারা আলী। ভীত হয়ে সার্জারি নিয়ে যান ওয়েস্টমিনষ্টারে।
উল্লেখ্য ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে স্টকার হোসাইন শাহকে গ্রেফতারের সময় তার ঘর থেকে দুটি আইপ্যাড এবং একটি ল্যাপটপ উদ্ধার করে পুলিশ।
এদিকে কোর্টে নিজের অপকর্মের জন্যে দু:খ প্রকাশ করে বর্ণবাদী এবং ধর্মীয় দৃষ্টিকোন থেকে এমপি রুশানারা আলীকে হত্যা, হয়রানী এবং অফিস উড়িয়ে দেওয়ার কথাও স্বীকার করেছেন হোসাইন শাহ। কোর্ট তাকে দোষি সাব্যস্ত করেছে এবং আগামী শুক্রবার তার সাজার মেয়াদ ঘোষণা করবেন বিচারক।



 

Show all comments
  • Jack Ali ২১ নভেম্বর, ২০২০, ১২:৩৪ পিএম says : 0
    All the Muslim's are the Ambassador of Allah [SWT].. wherever we go their duty is to spread Islam.. But we muslim don't know the meaning of Islam.. Muslims are imitating the Kafir as such we are the most oppressed nation on Earth.. Our so called muslim government they follow the Kafir Law and rule by the Law of Kafir Law. Whenever muslim want the Law of Allah's Law the government called them terrorist and kill them. This women don't looks likes a muslim women.. Allah ordered muslim Women to wear Hizab.. Allah ordered muslim men to keep beard and wear cloth above the Ankle.. muslim men are not allow to wear tight cloth..
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যুক্তরাজ্য


আরও
আরও পড়ুন