Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৭ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

এক্স-রে’র মাধ্যমে করোনা সনাক্তের পদ্ধতি অনুমোদন পাকিস্তানে

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২২ নভেম্বর, ২০২০, ৭:৫২ পিএম

পাকিস্তানের ন্যাশনাল ইলেকট্রনিক্স কমপ্লেক্স একটি নতুন পদ্ধতি আবিস্তার করেছে যার মাধ্যমে এক্স-রে থেকে এক মিনিটের মধ্যে কোনও ব্যক্তির ফুসফুসে করোনাভাইরাস সংক্রমণ সনাক্ত করা যাবে। শনিবার নতুন এই পদ্ধতির অনুমোদন দেয়া হয়েছে বলে পাকিস্তানের ড্রাগ রেগুলেটরি অথরিটি (ড্র্যাপ) জানিয়েছে।

ড্র্যাপের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা অসীম রউফ এ বিষয়ে বলেন, ‘স্থানীয়ভাবে উদ্ভাবিত একটি সফটওয়্যারকে অনুমোদন দেয়া হয়েছে। যা এক মিনিটের মধ্যে কোনও ব্যক্তির ফুসফুসে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ হয়েছে কিনা তা প্রায় নির্ভুলভাবে সনাক্ত করতে পারে।’ ড্র্যাপ কর্তৃক প্রদত্ত নিবন্ধনের সনদ অনুসারে, পাকিস্তানের ন্যাশনাল ইলেকট্রনিক্স কমপ্লেক্সের তৈরি ‘কোভ-রেইড’ নামের এই সফটওয়্যার এক্স-রে বিশ্লেষন করে কোন ব্যক্তির ফুসফুসে করোনা ভাইরাসের উপস্থিতি থাকলে তা শনাক্ত করতে পারে। বিশ্লেষন করার জন্য এটি কনভ্যুশনাল নিউরাল নেটওয়ার্ক ব্যবহার করে। করোনা সনাক্তকরণে ‘দ্বিতীয় ধাপে’ পরীক্ষার জন্য এটির অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

কোভ-রেইড ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, ‘কোভিড-১৯ বা নন-কোভিড-১৯ সনাক্তকরণের জন্য বুকের এক্স-রে (সিএক্সআর) এর ডেটাবেজ তৈরি করে এই সফটওয়্যারে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (এআই) প্রযুক্তি যুক্ত করা হয়েছে।’ সেখানে আরও বলা হয়েছে, ‘এতে তথ্য হিসাবে শুধুমাত্র এক্স-রে চিত্র দিতে হবে। সেটি বিশ্লেষন করে এক মিনিটেরও কম সময়ের মধ্যে সফটওয়্যারটি জানিয়ে দেবে করোনাভাইাসের উপস্থিতি আছে কি নেই।’ ওয়েবসাইটের তথ্য অনুসারে, প্রযুক্তিটি সীমিত সময়ে বিপুল সংখ্যক রোগীর করোনা পরীক্ষা করার জন্য ‘যুগান্তকারী’ হতে পারে।

ড্র্যাপের সিইও অসীম রউফ বলেন, ‘করোনা রোগীদের চিকিৎসার জন্য ডিভাইসটি ব্যাপকভাবে সহায়তা করবে। এই প্রযুক্তি বিশ্বের অল্প কয়েকটি দেশে রয়েছে। পাকিস্তান বিভিন্ন দেশে এই প্রযুক্তি প্রযুক্তি সরবরাহ করবে।’ তিনি আরও জানান, শিগগিরই সফটওয়্যারটি সারা দেশে পাওয়া যাবে।

উল্লেখ্য, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মিনেসোটা বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের একটি দল গত মাসে ‘অনুরূপ অ্যালগরিদম’ তৈরি করেছিলেন যা বুকের এক্স-রে মূল্যায়ন করে কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে করোনা পরীক্ষার ফলাফল জানিয়ে দিতে পারে। সূত্র: ডন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ