Inqilab Logo

শুক্রবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৭ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

আশুলিয়ায় কিশোর গ্যাংয়ের চার সদস্য গ্রেফতার

সাভার (ঢাকা) থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৩ নভেম্বর, ২০২০, ২:৩৭ পিএম

ঢাকার সাভারের আশুলিয়ায় হাশেমুল ইসলাম টুলুল নামের এক যুবককে মারধরের ঘটনায় কিশোর গ্যাংয়ের চার সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
সোমবার দুপুরে তাদের গ্রেফতারের বিষটি নিশ্চিত করেছেন আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) হারুন অর রশিদ। এর আগে রোববার রাতে আশুলিয়ার ভাদাইল এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।
গ্রেফতাররা হচ্ছে- আশুলিয়ার ভাদাইল মধ্যপাড়া এলাকার জসিম উদ্দিনের ছেলে রকি ওরফে ছোট রকি (১৮), একই এলাকার রনির ছেলে রাকিবুল ইসলাম (১৮), পাবনা জেলার সাথিয়া থানার জাহাঙ্গীরের ছেলে মো: সোহান (১৮), জামালপুর সদর থানার রফিকের ছেলে নাবিব (১৮)। তারা প্রত্যেকেই কিশোর গ্যাংয়ের সদস্য।
আহত হাশেমুল ইসলাম টুটুল (১৯) ভাদাইল পুর্বপাড়া এলাকার বাসিন্দা। তিনি একই এলাকার সিদ্দিক মাতব্বরের ইলেকট্রনিকস দোকানে কাজ করতেন।
মামলার বরাত দিয়ে এসআই হারুন জানান, পুর্ব শত্রুতার জেরে গত ৮ জুন সন্ধ্যায় ইলেকট্রনিকস দোকানের কর্মচারী টুটুল কিস্তির টাকা আদায় করতে জামগড়ার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়। জামগড়া এলাকার রূপায়ন মাঠ সংলগ্ন শাহিনের বাড়ির সামনে পৌঁছলে গ্রেফতারকৃতরাসহ অজ্ঞাত আরও ১০ থেকে ১২ জন তাকে চারদিক থেকে ঘিরে ফেলে। এসময় তাকে হত্যার উদ্দেশ্য দেশীয় অস্ত্র, হকিস্টিক, চাপাতি, চাইনিজ কুড়াল লোহার রড় দিয়ে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। এসময় অজ্ঞান হয়ে পড়লে মৃত ভেবে তারা চলে যায়। পরে তার গোঙ্গানির শব্দ শুনে পথচারীরা মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে স্থানীয় একটি ক্লিনিকে ভর্তি করে। পরে অবস্থার অবনতি হলে তাকে সাভার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।
এটনায় গত ১০ জুন তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হলে আসামীরা গা ঢাকা দেয়। অবশেষে মামলার প্রায় ৪ মাস পর আসামীদের গ্রেফতার করে পুলিশ।
এসআই হারুন অর রশিদ আরও জানান, আসামীরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ঘনটার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছেন। তারা সবাই কিশোর গ্যাং এর সদস্য। এলাকায় তারা নানা অপকর্মের সঙ্গে জড়িত। তাদের সহযোীদেরও গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। দুপুরে তাদের আদালতে পাঠানো হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কিশোর গ্যাং


আরও
আরও পড়ুন