Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ১৭ জানুয়ারি ২০২১, ০৩ মাঘ ১৪২৭, ০২ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

পুলিশের ৫ লক্ষ্যের একটি

মাদকের বিরুদ্ধে শূন্য সহিষ্ণুতা

বিশেষ সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৫ নভেম্বর, ২০২০, ১২:০১ এএম

পুলিশ সদর দপ্তরের এআইজি (মিডিয়া) মো. সোহেল রানা বলেছেন, আইজিপি ড. বেনজীর আহমেদের উদ্যোগ, নেতৃত্বে এবং নির্দেশনায় পুলিশ সদর দপ্তর ৫টি মূল লক্ষ্য নির্ধারণ করে পুলিশকে জনবান্ধব করতে এবং পুলিশের সেবার মান বাড়াতে কাজ করছে। গতকাল সোমবার এক ভিডিও বার্তায় তিনি এ কথা বলেন। এই পাঁচটি মূল লক্ষ্যের অন্যতম একটি হচ্ছে মাদকের বিরুদ্ধে শূন্য সহিষ্ণুতা। পুলিশের কোনো সদস্য যদি মাদক ব্যবসার সঙ্গে কোনোভাবে জড়িয়ে যান বা মাদক ব্যবসায় কাউকে সহযোগিতা করেন এবং নিজেরা যদি কখনো মাদক গ্রহণ করেন, তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এরই ধারাবাহিকতায় পুলিশ সদর দপ্তরের নির্দেশনায় মাঠ পর্যায়ের ইউনিটগুলো ইতোমধ্যে ব্যবস্থা গ্রহণ করা শুরু করেছে বলেও জানান তিনি।

এআইজি সোহেল রানা বলেন, পুলিশের যেসব সদস্য মাদক গ্রহণ করে থাকতে পারেন বা করেছেন, এমন সন্দেহ হলে তাদেরকে ডোপ টেস্ট করছি এবং প্রমাণ পেলে তাদের বিরুদ্ধে আমরা কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করছি। পাশাপাশি মাদকের সঙ্গে যেকোনো প্রকারের সম্পৃক্ততার প্রমাণ পেলে পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে যোগ করেন তিনি। এর আগে গত রোববার মাদক নেয়ার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) ১০ সদস্যকে চাকরিচ্যুত করা হয়েছে। জানা যায়, ডোপ টেস্টে এ পর্যন্ত ৬৮ জন পুলিশ সদস্যের মাদক নেয়ার প্রমাণ পাওয়া গেছে। তাদের মধ্যে সাতজন এসআই, একজন সার্জেন্ট, ৫জন এএসআই, ৫জন নায়েক এবং ৫০ জন কনস্টেবল।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মাদক

৫ জানুয়ারি, ২০২১
৪ জানুয়ারি, ২০২১
৩ জানুয়ারি, ২০২১
২ জানুয়ারি, ২০২১
৩১ ডিসেম্বর, ২০২০
৩০ ডিসেম্বর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন