Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ১৭ জানুয়ারি ২০২১, ০৩ মাঘ ১৪২৭, ০২ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

ফ্রান্সে বিচার শুরু

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৫ নভেম্বর, ২০২০, ১২:০০ এএম

তদন্ত সংক্রান্ত গোপন তথ্য হাতে পেতে এক বিচারকের উপর প্রভাব বিস্তারের অভিযোগে বিচার শুরু হল ফ্রান্সের সাবেক প্রেসিডেন্ট নিকোলাস সারকোজির। সোমবার থেকে শুরু হওয়া এই প্রক্রিয়ার জেরে রাজনীতির মঞ্চ থেকে সারকোজির বিদায় ঘণ্টা বাজা স্রেফ সময়ের অপেক্ষা বলে মনে করছেন বিরোধীরা। তার দীর্ঘ রাজনৈতিক ক্যারিয়ারের জন্য যে এই বিচার প্রক্রিয়া বড়সড় অশনি সঙ্কেত, এমন মতামত দিয়েছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের অধিকাংশই।
সোমবার আদালতে শুনানি শুরু হয়। তবে তিন অভিযুক্তের একজন শারীরিক অসুস্থতার কারণে আদালতে হাজির না হওয়ায় দুই ঘণ্টা শুনানি শেষে তা স্থগিত করা হয়। ওই অভিযুক্ত কতটা অসুস্থ তা জানতে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করতে বলে আদালত। বৃহস্পতিবার শুনানি ফের শুরু হবে। রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা মনে করছেন, দীর্ঘ রাজনৈতিক ক্যারিয়ারে এই বিচার প্রক্রিয়া সারকোজির জন্য অশনি সংকেত। ২০০৭ সাল থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব পালন করেছেন সারকোজি। সারকোজির বিরুদ্ধে অভিযোগ, ২০০৭ সালে নির্বাচনী প্রচারের জন্য ল’রিয়াল সংস্থার কর্ণধার লিলিঅ্যান বেটেনকোর্টের কাছ থেকে বেআইনি অর্থ সংগ্রহ করেছিলেন তিনি। পরবর্তীকালে সেই মামলা সংক্রান্ত গোপন তথ্য বের করে আনার জন্য ফ্রান্সের অন্যতম শীর্ষ আপিল আদালতের বিচারক গিলবার্ট আজিবার্টের উপরে প্রভাব খাটানোর চেষ্টা চালান। পরিবর্তে আজিবার্টকে প্রস্তাব দিয়েছিলেন মোনাকোতে একটি মোটা মাইনের চাকরি পাইয়ে দেয়ার। সেই তদন্তের সূত্রেই ২০১৩ সাল থেকে সারকোজি ও তার আইনজীবী থিয়েরি হারজগের কথোপকথনে আড়ি পাততে শুরু করেন তদন্তকারীরা। সেই তদন্তে উঠে আসে ভুয়া পরিচয়ে কেনা মোবাইলে কথা হয় দু’জনের।
তদন্তকারীরা জানান, সারকোজির মোবাইলটি রেজিস্টার করা ছিল পল বিসমুথ নামে। বেটেনকোর্টের থেকে অর্থ সংগ্রহের মামলা সম্পর্কিত গোপন তথ্য আজিবার্টের থেকে নেওয়ার বিষয়ে বহুবার আলোচনা হয় সারকোজি-হারজগের। সারকোজির পাশাপাশি একই কারণে দুর্নীতিতে অভিযুক্ত আজিবার্ট ও হারজগও। বিচার শুরু হয়েছে তাদেরও। অভিযোগ প্রমাণিত হলে তিন জনেরই কমপক্ষে দশ বছরের কারাদন্ড এবং মোটা অর্থ জরিমানা হতে পারে। সূত্র : ফ্রান্স ২৪, দ্য গার্ডিয়ান।



 

Show all comments
  • Mustafizur Rahman Ansari ২৫ নভেম্বর, ২০২০, ৬:৫২ এএম says : 0
    Good
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ