Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২৬ জানুয়ারি ২০২১, ১২ মাঘ ১৪২৭, ১২ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

ঘূর্ণিঝড় ‘নিভার’ ভারতমুখী

দেশে ফের মেঘ-বৃষ্টির আভাস আগাম শীতের কাঁপন

শফিউল আলম | প্রকাশের সময় : ২৫ নভেম্বর, ২০২০, ১২:০০ এএম

বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় ‘নিভার’র গতিমুখ দক্ষিণ ভারতের দিকে। ভারতের আবহাওয়া বিভাগ জানায়, ‘নিভার’ আজ বুধবার রাতে তামিলনাডু ও পুডুচেরী (পুরনো নাম পন্ডিচেরী) উপকূল বরাবর আঘাত হানতে পারে। দুর্যোগ পরিস্থিতিতে সতর্কতা জারি ও সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেছে তামিলনাডু রাজ্য সরকার। বাংলাদেশ উপকূল থেকে দেড় হাজার কিলোমিটার দূরে দক্ষিণ-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে ঘূর্ণিঝড় ‘নিভার’র তেমন কোনো প্রভাব আপাতত এখানে নেই। দেশের সমুদ্র বন্দরসমূহে সতর্ক সঙ্কেতও নেই। শ্রীলংকায় ‘নিভার’র প্রভাব পড়েছে। 

তবে ঘূর্ণিঝড়টি ভারতের উপকূল অতিক্রমকালে ও পরবর্তী সময়ে পশ্চিমবঙ্গসহ বাংলাদেশের অনেক জেলায় বিশেষত উপকূলীয় অঞ্চলে মেঘলা আবহাওয়া, দক্ষিণাঞ্চলে তাপমাত্রা বৃদ্ধি এবং চট্টগ্রাম, খুলনা ও বরিশাল বিভাগের বিভিন্ন স্থানে বিক্ষিপ্তভাবে হালকা কিংবা গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস দেয়া হয়েছে। অগ্রহায়ণের দ্বিতীয় দফায় এই শীত নামানো বৃষ্টি কেটে গেলে নভেম্বর শেষ না হতেই এবং ডিসেম্বরের গোড়াতে আগাম শীত জেঁকে বসতে পারে।
গতকালও উত্তরাঞ্চলসহ দেশের বেশিরভাগ জেলায় কুয়াশার সাথে উত্তর, উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ঘণ্টায় ৮ থেকে ১২ কিলোমিটার বেগে আসা হিমেল কনকনে ঠান্ডা হাওয়ায় আগাম শীতের কাঁপুনি অব্যাহত থাকে। সন্ধ্যা থেকে শীতের অনুভূতি বেড়েছে। শহর-নগর-গঞ্জে গরম পোশাক, লেপ-তোষক-কম্বলের ব্যবহার শুরু হয়ে গেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল পঞ্চগড় জেলার তেঁতুলিয়ায় ১১.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। ঢাকার পারদ সর্বনিম্ন ১৬.১ ও সর্বোচ্চ ২৮.৪ ডিগ্রি সে.। দেশের বেশিরভাগ জেলায় রাত ও ভোরের পারদ ১২ থেকে ১৫ ডিগ্রিতে নেমে যায়। দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল টেকনাফে ৩০.২ ডিগ্রি সে.। গতকাল বৃষ্টি ঝরেনি কোথাও।
আজ বুধবার সন্ধ্যা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে জানা গেছে, আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারাদেশে আবহাওয়া থাকবে প্রধানত শুষ্ক। উপকূলে হালকা ও বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা ‘নিভার’র দূরবর্তী প্রভাবে। বিভিন্ন অঞ্চলে শেষ রাত থেকে ভোর পর্যন্ত হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে।
দক্ষিণাঞ্চলে রাতের তাপমাত্রা এক থেকে ২ ডিগ্রি সে. বাড়তে পারে। দেশের অন্যত্র কিছুটা বাড়তে পারে। দিনের তাপমাত্রা অপরিবর্তিত থাকার সম্ভাবনা। পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টায় রাতের তাপমাত্রা আরও বাড়তে পারে। তবে এরপরের ৫ দিনে আসছে সপ্তাহে তাপমাত্রা হ্রাসের দিকে যাবে।
তিন দিনের ব্যবধানে আবারও বাতাসে জলীয়বাষ্পের পরিমাণ বেড়ে গেছে। গতকাল সকালে ঢাকার বাতাসে জলীয়বাষ্পের হার ছিল ৯৭ শতাংশ এবং সন্ধ্যায় ৭২ শতাংশ। আগের দিন ছিল ৫০ শতাংশ। জলীয়বাষ্পের আধিক্য, আংশিক মেঘলা, শুষ্ক আবহাওয়ার সঙ্গে যোগ হয়েছে ধুলোবালি, ধোঁয়ার দূষণ।
ঘূর্ণিঝড় পরিস্থিতি-
গতকাল সন্ধ্যায় সর্বশেষ আবহাওয়া সতর্কবার্তায় আবহাওয়াবিদ এ কে এম রুহুল কুদ্দুছ জানান, দক্ষিণ-পশ্চিম বঙ্গোপসাগর ও এর সংলগ্ন এলাকায় অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড় ‘নিভার’ পশ্চিম দিকে অগ্রসর হয়ে একই এলাকায় অবস্থান করছে। এটি গতকাল সকালে চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দর থেকে ১৭শ’ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে, কক্সবাজার সমুদ্রবন্দর থেকে ১৬৪৫ কি.মি. দক্ষিণ-পশ্চিমে, মংলা সমুদ্রবন্দর থেকে ১৫৮৫ কি.মি. দক্ষিণ-পশ্চিমে এবং পায়রা সমুদ্র বন্দর থেকে ১৫৮০ কি.মি. দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থান করছিল।
নিভার আরও ঘনীভূত হয়ে পশ্চিম, উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হতে পারে।
ঘূর্ণিঝড় কেন্দ্রের ৫৪ কিলোমিটারের মধ্যে বাতাসের একটানা সর্বোচ্চ গতিবেগ ঘন্টায় ৬২ কি.মি., যা দমকা অথবা ঝড়োহাওয়ার আকারে ৮৮ কি.মি. পর্যন্ত বৃদ্ধি পাচ্ছে। নিম্নচাপ কেন্দ্রের কাছে সাগর উত্তাল রয়েছে।
চট্টগ্রাম ,কক্সবাজার, মংলা এবং পায়রা সমুদ্র বন্দরকে আবহাওয়া বিভাগের পরবর্তী নির্দেশনার জন্য সাবধানতার সাথে পর্যবেক্ষণ করতে বলা হয়েছে। উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারসমূহকে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বঙ্গোপসাগর

২৪ জানুয়ারি, ২০২১
২৪ নভেম্বর, ২০২০
১৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ