Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১০ ফাল্গুন ১৪২৫, ১৬ জামাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী।

নিজামীর স্ত্রীর স্কুল থেকে ১৮ জামায়াত-শিবিরকর্মী আটক

প্রকাশের সময় : ২০ আগস্ট, ২০১৬, ১২:০০ এএম

পুলিশ বলছে বড় ধরনের নাশকতা বাস্তবায়নের জন্য বৈঠকে বসেছিল
স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানীর বাড্ডা এলাকায় একটি স্কুল থেকে জামায়াতে ইসলামীর বাড্ডা থানা শাখার আমিরসহ ১৮ জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। মানবতাবিরোধী অপরাধে দ-িত জামায়াত নেতা মতিউর রহমান নিজামীর স্ত্রী এ স্কুলটির পরিচালক। বড় ধরনের নাশকতা করার পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য জামায়াত শিবিরের ওই নেতা-কর্মীরা গোপন বৈঠক বসেছিল। পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সেখানে গিয়ে অভিযান চালিয়ে এদের আটক করে। এমনটি জানিয়েছেন বাড্ডা থানার অফিসার ইনচার্জ এমএ জলিল। গতকাল ভোরে তাদের আটক করা হয়।
পুলিশ জানায়, দশম জাতীয় নির্বাচন এবং যুদ্ধাপরাধের বিচার ঘিরে সারাদেশে নাশকতার বিভিন্ন ঘটনায় বহু মামলা রয়েছে জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে। জঙ্গি কর্মকা-ে জড়িত থাকায় গ্রেপ্তার ও পুলিশের তালিকায় নাম আসা অনেকেই অতীতে শিবিরের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন বলেও তথ্য এসেছে সাম্প্রতিক সময়ে। চলতি মাসের শুরুতে চট্টগ্রামে আনসারুল্লাহ বাংলাটিমের সদস্য সন্দেহে পাঁচ যুবককে গ্রেপ্তারের পর পুলিশ বলেছে, ছাত্রশিবির এখন জঙ্গি সংগঠনের মাধ্যমে পরিস্থিতি অস্থিতিশীল করার ষড়যন্ত্রে রয়েছে। দেশে বড় ধরনের হামলা ও নাশকতা সৃষ্টির লক্ষ্যে নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠনগুলোর সাথে হাত মিলিয়ে জামায়াত-শিবির সারা দেশে তৎপর রয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।
বাড্ডা থানার ওসি এমএ জলিল বলেন, জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীরা ‘গোপন বৈঠক করছে’ এমন খবর পেয়ে গতকাল (শুক্রবার ভোরে) পুলিশ ইসলামিক ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করে। বাড্ডা ডিআইটি প্রজেক্টের ৮ নম্বর সড়কের ২৫ নম্বর হোল্ডিংয়ে ছয়তলা ওই বাড়ির তৃতীয় ও ষষ্ঠ তলা ছাড়া বাকি ফ্লোরগুলো স্কুল ও কলেজের কাজে ব্যবহৃত হয়। আটকদের সকলের নাম তাৎক্ষণিকভাবে পুলিশ জানাতে পারেনি। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ওই বৈঠক থেকে পালিয়ে যাওয়া আরো কয়েকজনকে গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছেন পুলিশ কর্মকর্তারা।
ওসি জলিল জানান, জামায়াতের আমির মতিউর রহমান নিজামী যুদ্ধাপরাধের দায়ে মৃত্যুদ-প্রাপ্ত হলে তাকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে রায় কার্যকর করা হয়। ওই যুদ্ধাপরাধী নিজামীর স্ত্রী শামসুন্নাহার নিজামী ওই স্কুলের প্রিন্সিপাল। শামছুন্নাহার জামায়াতে ইসলামীর মহিলা বিভাগেরও সেক্রেটারি।
ওসি জলিল আরো জানান, ষষ্ঠ তলায় বাড্ডা থানা জামায়াতের আমির ফখরুদ্দিন কেফায়েত উল্লাহ এবং তৃতীয় তলায় বাড়ির মালিক বেলাল হোসেন থাকেন। নিজামীর স্ত্রী শামসুন্নাহারকে আটক করা হয়েছে কিনা জানতে চাইলে ওসি বলেন, তিনি স্কুলের পিন্সিপাল, কিন্তু ঘটনার সময় তিনি ছিলেন না।
আটকদের মধ্যে বাড্ডা থানা জামায়াতের আমির ফখরুদ্দিন ও ভবন মালিক বেলালও রয়েছেন জানিয়ে তিনি বলেন, বাড়ি ভাড়া দেয়ার সময় নিয়ম মেনে সব তথ্য নেয়া হয়েছিল কি না- তা জানতে বেলালকে আটক করা হয়েছে।
ফখরুদ্দিনের স্ত্রী ও দুই মেয়ে এবং বেলালের স্ত্রী ও মাকেও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নেয়া হয়েছে। তবে তারা ‘আটক নন’ বলে জানিয়েছেন ওসি।
ওই ভবন থেকে কোনো কিছু জব্দ করা হয়েছে কি না জানতে চাইলে এই পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, এ বিষয়ে পরে বিস্তারিত তথ্য প্রকাশ করা হবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ