Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ১৭ জানুয়ারি ২০২১, ০৩ মাঘ ১৪২৭, ০২ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

উত্থাপিত অভিযোগ ও প্রমাণাদি খতিয়ে দেখব : গুতেরেস

জাতিসঙ্ঘে কুকর্মের নথি তুলে ধরে ভারতকে সতর্ক পাকিস্তানের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৭ নভেম্বর, ২০২০, ১২:০৪ এএম

পাকিস্তানের অভ্যন্তরের সন্ত্রাসবাদ উস্কে দেয়ার জন্য ভারতকে দায়ী করে জাতিসঙ্ঘে একটি অভিযোগপত্র দায়ের করেছে ইসলামাবাদ। ভারত সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে অভিযানের নামে যেই অপতৎপরতা চালিয়ে আসছে এবং পাকিস্তানের অভ্যন্তরের সন্ত্রাসবাদ উস্কে দেয়ার জন্য নয়াদিল্লীর বিভিন্ন কুকর্মে জড়িত থাকার প্রমাণস্বরূপ বিভিন্ন নথি বা দলিলাদি জাতিসঙ্ঘ মহাসচিব আন্তেনিও গুতেরেসের কাছে পেশ করে পাকিস্তান। এসময় সীমান্ত এলাকায় নয়াদিল্লি অবৈধ কার্যক্রম চালাচ্ছে উল্লেখ করে ক্ষোভ জানায় ইসলামাবাদ। ভারত যখন আগামী দুই বছরের জন্য জাতিসঙ্ঘ নিরাপত্তা পরিষদের অস্থায়ী সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন শুরু করতে যাচ্ছে তার আগ মুহূর্তে দেশটির বিরুদ্ধে পাকিস্তান গত মঙ্গলবার সন্ত্রাসবাদে পৃষ্ঠপোষকতা করার জন্য আনুষ্ঠানিক অভিযোগ আনল। আগামী ১ জানুয়ারি থেকে ভারত জাতিসঙ্ঘ নিরাপত্তা পরিষদের অস্থায়ী সদস্য হিসেবে কাজ করবে। জাতিসঙ্ঘে নিযুক্ত পাকিস্তানের স্থায়ী প্রতিনিধি মুনির আকরাম জাতিসঙ্ঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেসের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে ভারতের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবাদে পৃষ্ঠপোষকতার বিভিন্ন প্রমাণ সম্বলিত অভিযোগপত্র দায়ের করেন। এসময় মুনির আকরাম বলেন, পাকিস্তানের অভ্যন্তরে ভারতের সন্ত্রাসবাদ এবং ধ্বংসাত্মক কার্যকলাপের বিষয়টি বিশ্বসম্প্রদায়কে বিবেচনায় নিতে হবে। পাশাপাশি ভারত যে অবৈধ এবং আগ্রাসী তৎপরতা চালাচ্ছে সেগুলো প্রতিরোধের ব্যবস্থা করতে হবে। এ সময় তিনি আন্তর্জাতিক আইন, জাতিসঙ্ঘ সনদ ও নিরাপত্তা পরিষদে পাস হওয়া বিভিন্ন প্রস্তাব লঙ্ঘনের জন্য ভারতকে অভিযুক্ত করেন। এদিকে অভিযোগপত্র গ্রহণ করে জাতিসঙ্ঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেসে বলেন, সন্ত্রাসবাদে পৃষ্ঠপোষকতায় ভারতের জড়িত থাকার বিষয়ে পাকিস্তানের পক্ষ থেকে উত্থাপন করা সব অভিযোগ ও প্রমাণাদি খতিয়ে দেখা হবে। এর আগে, এক ব্রিফিংয়ে পাকিস্তান মিশনের রাষ্ট্রদূত মুনির আকরাম ব্যাখা করেন, সন্ত্রাসবাদে পৃষ্ঠপোষকতার মাধ্যমে নয়াদিল্লি কীভাবে আঞ্চলিক অস্থিরতা বাড়িয়ে তুলছে। তিনি বলেন, ‘পারমাণিক অস্ত্রের পরীক্ষার পর থেকেই পাকিস্তান-ভারতের মধ্যে বিভেদ আরো জোরালো হয়েছে। বর্তমানে দু’দেশের সম্পর্ক তলানিতে পৌঁছেছে। কারণ, পাকিস্তানের বিরুদ্ধে নিজেদের সন্ত্রাসী কার্যক্রম আরো বিস্তার ঘটিয়েছে নয়াদিল্লি। এ বিষয়ে আমাদের কাছে যথেষ্ট প্রমাণাদি রয়েছে।’ নয়াদিল্লি কীভাবে আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘন করছে তা বৈঠকে গুতেরেসের কাছে তুলে ধরেন পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূত। এ বিষয়ে জাতিসঙ্ঘ মহাসচিবের সহযোগিতা কামনা করেন তিনি। এক্সপ্রেস ট্রিবিউন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: গুতেরেস


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ