Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ১৭ জানুয়ারি ২০২১, ০৩ মাঘ ১৪২৭, ০২ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

‘আদিয়স ডিয়েগো’

ক্রীড়াঙ্গণে শোকের ছায়া

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৭ নভেম্বর, ২০২০, ১২:০৩ এএম

ডিয়েগো ম্যারাডোনার আকস্মিক বিদায়ে শোকে মুহ্যমান পুরো বিশ্ব। ক্রীড়া জগতের তারকারা এই কিংবদন্তির বিদায়ে নিজেদের শোক প্রকাশ করছেন। অধিকাংশই বেছে নিয়েছেন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমকে। সর্বকালের সেরা ফুটবলারের প্রতিযোগিতায় ম্যারাডোনার সবচেয়ে প্রবল প্রতিদ্ব›দ্বী আরেক কিংবদন্তি পেলে মর্মাহত তার চলে যাওয়ায়। তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় তিনি বলেন, ‘খুব কাছের এক বন্ধু হারালাম। পৃথিবী হারাল এক কিংবদন্তিকে। একদিন আশা রাখি স্বর্গে একসঙ্গে আমরা ফুটবল খেলব।’
ম্যারাডোনার উত্তরসূরি ও অনেকের চোখে সর্বকালের সেরা ফুটবলার লিওনেল মেসি ‘ফুটবল কিংবদন্তীর’ চলে যাওয়াকে বলছেন পুরো আর্জেন্টিনার ক্ষতি। ইনস্টাগ্রামে নিজের ও ম্যারাডোনার ছবি পোস্ট করেছেন আর্জেন্টিনার বর্তমান অধিনায়ক। লিখেছেন, ‘পুরো আর্জেন্টিনা ও ফুটবলের জন্য দুঃখের দিন। তিনি চলে গিয়েও আমাদের মাঝে থাকবেন, কারন ডিয়েগো চিরদিনের। তার সঙ্গে কাটানো আনন্দের মুহূর্তগুলো মনে পড়বে।’
সময়ের আরেক সেরা ফুটবলার ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো ম্যারাডোনাকে উল্লেখ করেছেন জাদুকর হিসেবে। টুইটে তিনি লেখেন, ‘আজ বিদায় জানাচ্ছি একজন বন্ধুকে এবং পৃথিবী বিদায় জানাল একজন জিনিয়াসকে। সর্বকালের অন্যতম সেরা। একজন অপ্রতিদ্বন্দ্বী জাদুকর। তিনি অনেক জলদি চলে গেলেন।’ ব্রাজিলের তারকা ফরোয়ার্ড নেইমার জুনিয়র ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছেন ম্যারাডোনার ৮৬ বিশ্বকাপ জয়ের ছবি। ক্যাপশনে লিখেছেন ‘বিদায় কিংবদন্তি। আপনার ইতিহাস পড়ে রইল। ফুটবল আপনাকে ধন্যবাদ জানায়।’
বর্তমান প্রজন্মের অন্যতম সেরা তরুণ ফুটবলার কিলিয়ান এমবাপে ম্যারাডোনাকে ধন্যবাদ জানিয়ে টুইট করেছেন, ‘শান্তিতে বিশ্রাম নিন কিংবদন্তি। আপনি ইতিহাসে অমর হয়ে থাকবেন। পুরো বিশ্বকে আনন্দে মাতিয়ে রাখার জন্য ধন্যবাদ।’ সুইডেনের তারকা ফুটবলার জলাতান ইব্রাহিমোভিচ অবশ্য এটাই মানছেন না যে, ম্যারাডোনা আর নেই। ইব্রার মতে ম্যারাডোনার মৃত্যু হয় না, তিনি অমর। ম্যারাডোনার মতোই খেপাটে কান্ডের কারণে অনেকবার শিরোনাম হওয়া ইব্রাহিমোভিচ তার ইনস্টাগ্রাম পোস্টে লিখেছেন, ‘ম্যারাডোনা মারা যাননি, তিনি অমর। বিশ্বকে সর্বকালের সেরা ফুটবলার উপহার দিয়েছেন ঈশ্বর। তিনি চিরকালের জন্য বেঁচে থাকবেন।’
বিশ্বের অন্যতম সেরা ফুটবল কোচ হোসে মরিনহো ইনস্টাগ্রামে ম্যারাডোনার সঙ্গে নিজের পাঁচটি ছবি পোস্ট করেছেন। ক্যাপশনে কান্নার ইমোজিসহ লিখেছেন, ‘ডন ডিয়েগো...সত্যি বন্ধু! তোমার কথা মনে পড়বে।’ ইংল্যান্ডের সর্বকালের অন্যতম সেরা স্ট্রাইকার ও ৮৬ বিশ্বকাপে ম্যারাডোনার বিপক্ষে খেলা গ্যারি লিনেকার তাকে প্রজন্মের সেরা ফুটবলার বলে টুইট করেছেন। লিখেছেন, ‘ম্যারাডোনা নিঃসন্দেহে আমার প্রজন্মের সেরা ফুটবলার। আমার দেখা সর্বকালের সেরাদের একজন।’
শুধু ফুটবল জগতই নয়, ক্রীড়ার অন্যান্য ক্ষেত্রেও চলছে ম্যারাডোনার জন্য মাতম। ক্রিকেট কিংবদন্তি শচীন টেন্ডুলকার ছিলেন ম্যারাডোনার বিরাট ভক্ত। টুইটে লিখেছেন, ‘ফুটবল ও ক্রীড়া বিশ্ব সর্বকালের অন্যতম সেরা একজনকে হারাল। শান্তিতে বিশ্রাম করুন ডিয়েগো ম্যারাডোনা। আপনার কথা মনে পড়বে।’ সর্বকালের অন্যতম সেরা দাবাড়ু গ্যারি কাসপারভ ম্যারাডোনার জীবনের প্রতিচ্ছবি খুঁজে পেয়েছেন তার গোলগুলোর ভেতর। এক টুইটে তিনি লেখেন, ‘১৯৮৬ বিশ্বকাপে তার দুই গোল, তার জীবনকে তুলে ধরে। হ্যান্ড অফ গডের অতল গ্বের থেকে গোল অফ দ্য সেঞ্চুরির সর্বোচ্চ চূড়ায়।’ তার মৃত্যুতে ক্রীড়া জগতে শূন্যতা সৃষ্টি হয়েছে উল্লেখ করে টেনিস কিংবদন্তি রাফায়েল নাদাল টুইট করেছেন, ‘আজ ক্রীড়া জগতে বিশেষ করে ফুটবলে বিশাল শূন্যতা সৃষ্টি হয়েছে। সর্বকালের অন্যতম সেরা অ্যাথলেট ম্যারাডোনা আমাদের ছেড়ে চলে গেছেন।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আদিয়স-ডিয়েগো

২৭ নভেম্বর, ২০২০
আরও পড়ুন