Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারি ২০২১, ০৫ মাঘ ১৪২৭, ০৫ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

মহামারি থাকুক বা না-ই থাকুক লোকজনকে অবশ্যই সক্রিয় থাকতে হবে : ডব্লিউএইচও

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৭ নভেম্বর, ২০২০, ৫:২৩ এএম

মহামারি থাকুক বা না থাকুক লোকজনকে অবশ্যই সক্রিয় থাকতে হবে বলে জানিয়েছেন বিশ্ব স্বাস্থ সংস্থা,ডব্লিউএইচও।যথেষ্ট ব্যয়াম না করার জন্যে করোনা মহামারি কোন অজুহাত হতে পারে না। মহামারি থাকুক আর নাই থাকুক লোকজনকে অবশ্যই সক্রিয় থাকতে হবে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) বুধবার এ কথা বলেছে। সংস্থাটি সতর্ক করে বলেছে, এমনকি মহামারির আগেও অনেকেরই শারীরিক কর্মকান্ড খুব কম ছিল।

জাতিসংঘের স্বাস্থ্য বিষয়ক এ সংস্থাটি তার শারীরিক কর্মকান্ডের আপডেটে জোর দিয়ে বলেছে, শারীরিক এবং মানসিক স্বাস্থ্যের জন্যে ব্যায়াম জরুরি। নিষ্ক্রিয়তার পরিণাম হতে পারে ভয়াবহ। সংস্থার স্বাস্থ্য প্রচার বিভাগের প্রধান রুডিগার ক্রেচ সাংবাদিকদের বলেন, কোভিড-১৯ মহামারির এ সময়ে সক্রিয় থাকতে ডব্লিউএইচও সকলের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছে। তিনি বলেন, আমরা সক্রিয় না থেকে অসুস্থতার আরেক মহামারি তৈরি করতে পারি।
উল্লেখ্য, মহামারি নিয়ন্ত্রণে দেশে দেশে লকডাউন, চলাফেরা নিয়ন্ত্রণসহ ব্যায়ামাগারগুলো বন্ধ রাখা হচ্ছে। এর ফলে বহু লোককে বাড়িতে অবস্থান করতে হচ্ছে এবং তাদের নিত্যদিনের জীবন যাপনে পরিবর্তন এসেছে। তবে শরীরিক কর্মকান্ডের ওপর এর প্রভাব নিয়ে স্পষ্ট কোন তথ্য নেই। সংস্থার প্রধান টেডরস আধানম গেব্রিয়াসিস এক বিবৃতিতে বলেছেন, স্বাস্থ্য এবং ভালো থাকার জন্যে শারীরিক কর্মকান্ড খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এটি জীবনের সাথে বছরের পর বছর এবং বছরের সাথে জীবনকে যুক্ত করতে সহায়ক হবে। নিয়মিত ব্যায়াম হার্ট ডিজিজ, টাইপ টু ডায়াবেটিস ও ক্যান্সার নিয়ন্ত্রণে সহায়ক। এছাড়া অবসাদ ও উদ্বেগ কমায় এবং মস্তিস্ককে উজ্জীবিত রাখে ব্যায়াম।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস

১৯ জানুয়ারি, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ