Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ১৭ জানুয়ারি ২০২১, ০৩ মাঘ ১৪২৭, ০২ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

কারাগার নয় মাদক বিরোধী প্রচারসহ সাত শর্তে মুক্তি

মাগুরায় মাদক মামলার রায়

মাগুরা থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৭ নভেম্বর, ২০২০, ১০:২১ এএম

মাদক রাখার অভিযোগ প্রমাণিত হলেও এক আসামিকে কারাগার নয়,কারাগারের বদলে এক বছর যাবত মাসে দুবার ব্যানার–প্ল্যাকার্ডসহ মাদকবিরোধী প্রচারণা চালাতে হবে। পাশাপাশি পরিবারের সঙ্গে থেকে গাছ লাগানোসহ আদালতের দেওয়া সাতটি শর্ত মেনে চলতে হবে।

বৃহস্পতিবার প্রবেশনের ব্যতিক্রমী এই রায় দেন মাগুরা চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. জিয়াউর রহমান। প্রবেশন পাওয়া ওই ব্যক্তির নাম বিথুন মোল্লা (২৪)। এর আগে চলতি বছরে মাগুরার তিনটি আদালতে মাদকের তিনটি ও পারিবারিক বিরোধের একটি মামলায় অনুরূপ রায় দেওয়া হয়।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ২০১৫ সালের ১৬ সেপ্টেম্বর আসামি বিথুন মোল্লাকে পারনান্দুয়ালী মোল্লাপাড়া থেকে ২০টি ইয়াবা বড়িসহ আটক করে গোয়েন্দা পুলিশ । ওই দিনই তাঁর নামে মাগুরা সদর থানায় ১৯৯০ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা করে পুলিশ। ওই মামলায় এত দিন জামিনে ছিলেন বিথুন।

মামলার রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী অজেদা সিদ্দিকী জানান, বিথুন মোল্লার ২০টি ইয়াবা বড়ি সংরক্ষণের অভিযোগ আদালতে প্রমাণিত হয়েছে। দোষী সাব্যস্ত বিথুনকে ১৯৯০ সালের মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের ১৯ (১) টেবিলের ৯ (ক) ও ১৯ (৪) ধারার অপরাধের শাস্তির পরিবর্তে প্রবেশন কর্মকর্তার তত্ত্বাবধানে শর্ত সাপেক্ষে এক বছরের প্রবেশন মঞ্জুর করেছেন আদালত। শর্তগুলোর মধ্যে রয়েছে কোনো রূপ অপরাধে না জড়ানো, মাদক সেবন না করা, প্রতি মাসে দুবার ব্যানার বা প্ল্যাকার্ডসহ স্থানীয় বাজারে অথবা কলেজের সামনে মাদকবিরোধী প্রচার চালানো ও পরিবেশের প্রতি দায়িত্বশীল হিসেবে পাঁচটি বনজ ও ফলদ গাছ রোপণ।বিথুন পারনান্দুয়ালী গ্রামের টোকন মোল্লার ছেলে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মুক্তি

১৭ ডিসেম্বর, ২০২০
১৫ ডিসেম্বর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন