Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারি ২০২১, ০৫ মাঘ ১৪২৭, ০৫ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

অ্যাম্বুলেন্স দেরিতে আসায় মৃত্যু ঘটেছে ম্যারাডোনার!

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৭ নভেম্বর, ২০২০, ৭:০২ পিএম

বিশ্ব ফুটবলের জাদুকর খ্যাত আর্জেন্টিনার মেগাস্টার ডিয়েগো ম্যারাডোনা মারা গেছেন। ২৫ নভেম্বর (বুধবার) রাতে আর্জেন্টিনার রাজধানী বুয়েন্স আইরেসে নিজ বাসায় হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন ফুটবল ইতিহাসের এ মহানায়ক। পরের দিন তার জন্মস্থান বুয়েন্স আইরেস শহরের উপকণ্ঠে অবস্থিত সমাধিস্থলে ম্যারাডোনাকে সমাহিত করা হয়। সদ্য প্রয়াত কিংবদন্তি ফুটবলার ডিয়েগো ম্যারাডোনাকে দাফন করা হয় তারা বাবা-মা’র কবরের পাশেই। যেখানে চিরনিদ্রায় শায়িত রয়েছেন ম্যারাডোনার বাবা দিয়েগো ম্যারাডোনা চিতোরো (১৯২৭-২০১৫) এবং মা দালমা সালভাদোরা ফ্রান্সো (১৯৩০-২০১১)। তবে ম্যারাডোনাকে দাফনের আগেই গুরুত্বপূর্ণ এক অভিযোগ আনেন তার আইনজীবী মাতিয়াস মোরলা। তিনি মনে করেন, ম্যারাডোনার মৃত্যুর পেছনে দায় রয়েছে লা প্লাতা আইপেনসা ক্লিনিকের। এখানেই চিকিৎসা নিয়েছিলেন ম্যারাডোনা। তার মৃত্যুর দিন এই ক্লিনিকের অ্যাম্বুলেন্স আসতে প্রায় ৩০ মিনিট দেরি করে। ফলে এই সময়ের মধ্যে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায় বলে মনে করেন মোরলা।

তার অভিযোগ, অ্যাম্বুলেন্সের এত সময় দেরি করে ম্যারাডোনার বাড়িতে পৌঁছানো একপ্রকার অপরাধমূলক কাজ। তাই এ বিষয়ে পূর্ণাঙ্গ তদন্তের দাবী করেন ম্যারাডোনার আইনজীবী ও খুব কাছের বন্ধু মাতিয়াস মোরলা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেয়া এক আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে এ কথা লিখেছেন মোরলা।

মারা যাওয়ার মাত্র কয়েকদিন আগেই রক্তক্ষরণজনিত কারণে মস্তিষ্কে অস্ত্রোপচার করা হয়েছিল ম্যারাডোনার। কয়েকদিন হাসপাতালে থাকার পর ডাক্তাররা তার নিজ বাসায়ই পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করেছিলেন। যেখানে ম্যারাডোনার স্বাস্থ্যের অবস্থার উন্নতি হচ্ছিলো । কিন্তু বুধবার হার্ট অ্যাটাক করলে আর তাকে ফেরানো যায়নি।

মোরলার দাবি, হার্ট অ্যাটাক করার পর যদি দ্রুততম সময়ের মধ্যে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পর্যবেক্ষণে নেয়া হতো ম্যারাডোনাকে, তাহলে অন্য কিছু হলেও হতে পারত। এছাড়া মৃত্যুর আগে প্রায় ১২ ঘণ্টা কোন চেকআপ বা চিকিৎসকের সহায়তা পাননি ম্যারাডোনা, এমন অভিযোগও করেন মোরলা।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তিনি লিখেন, ‘সান ইসিদ্রোর প্রসিকিউটর অফিস থেকে পাওয়া তথ্য মোতাবেক, মৃত্যুর আগে ১২ ঘণ্টার মধ্যেও আমার বন্ধুর জন্য নিয়োজিত কেউ তার কাছে যায়নি। পরে অ্যাম্বুলেন্স আসতেও ত্রিশ মিনিটের বেশি সময় লেগেছে। এটা স্পষ্টত অপরাধমূলক কাজ।’ বিষয়টির তদন্তের ব্যাপারে ইঙ্গিত দিয়ে তিনি আরও লিখেন, ‘এ বিষয়টা উপেক্ষা করা ঠিক হবে না। আমি শিগগিরই এর প্রেক্ষিতে পূর্ণাঙ্গ তদন্তের আহ্বান জানাবো। কারণ ম্যারাডোনা সবসময় বলত, আমি ওর সৈনিক। কখনও যেন ভুলের ক্ষেত্রে দয়া-মায়া না দেখাই।’

এর আগে ম্যারাডোনা মারা যাওয়ার পর শোক প্রকাশ করে ভিন্ন এক বার্তায় মোরলা লিখেন, ‘কষ্টের এ মুহূর্তে আমি শুধু এটুকুই বলতে পারি, ম্যারাডোনা ছিল শ্রেষ্ঠ সন্তান, ইতিহাসের সেরা ফুটবলার এবং সত্যিকারের একজন সৎ মানুষ। তুমি শান্তিতে ঘুমাও আমার ভাই।’



 

Show all comments
  • Md. Farhaduzzamann Milon ২৮ নভেম্বর, ২০২০, ১১:১৪ এএম says : 0
    :'( So Sad
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন