Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ১৬ জানুয়ারি ২০২১, ০২ মাঘ ১৪২৭, ০২ জামাদিউল সানী ১৪৪২ হিজরী

দেশে এইচআইভির ঝুঁকি বাড়াচ্ছে প্রতিবেশি রাষ্ট্রগুলো

আক্রান্ত বেশি ঢাকায়, রংপুরে কম

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৮ নভেম্বর, ২০২০, ৬:৪৩ পিএম

দেশে প্রথম এইচআইভিতে আক্রান্ত ব্যক্তির সন্ধান মিলে ১৯৮৯ সালে। এর পর থেকে এখন পর্যন্ত দেশে জনগোষ্ঠীর মধ্যে এইচআইভির সংক্রমণ শূণ্য দশমিক শূণ্য এক শতাংশের কম। এ সংখ্যাটি একেবারেই সামান্য। তবে প্রতিবেশি দেশগুলোর কারণে এইচআইভির ঝুঁকি মুক্ত নয় বাংলাদেশ। দেশে আট বিভাগের মধ্যে ঢাকা বিভাগে এইচআইভি সংক্রমিত ব্যক্তির সংখ্যা বেশি। রংপুর বিভাগে কম।

তথ্য অনুযায়ী, বাংলাদেশের প্রতিবেশি রাষ্ট্র ভারতের শিলং, মেঘালয় এলাকায় শিরায় মাদক গ্রহণকারী, যৌনকর্মী, তৃতীয় লিঙ্গ এবং সমকামীদের মধ্যে এইচআইভির সংক্রমণ বেশি। মেঘালয় অঞ্চলের ৫ শতাংশ যৌনকর্মী এইচআইভিতে আক্রান্ত। মনিপুর, ত্রিপুরা অঞ্চলে শিরায় মাদক গ্রহণকারীদের মধ্যে ৮ শতাংশ এইচআইভিতে আক্রান্ত। আর মিজোরাম, মায়ানমার অঞ্চলে মাদকাসক্তদের মধ্যে ১৯ শতাংশ পশ্চিম বঙ্গের পরিস্থিতিও ভালো নয়। ওইসব দেশের সাথে আমাদের অবাধ যাতায়াত। যা দেশে এইচআইভি সংক্রমণের ঝুঁকি বাড়াচ্ছে।

শনিবার (২৮ নভেম্বর) এইচআইভি এইডস সম্পর্কে সমাজে বিদ্যমান কুসংস্কার, ভ্রান্তধারণা ও বৈষম্য দূরীকরণে গণমাধ্যমের ভূমিকা শীর্ষক এক পরামর্শ সভায় এসব তথ্য জানানো হয়। বিশ^ এইডস দিবসকে সামনে রেখে সকালে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সম্মেলন কক্ষে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন স্বাস্থ্য পরিচালক (এমবিডিসি) ও লাইন ডাইরেক্টর টিবি-এল ও এএসপি অধ্যাপক ডা. মো. শামিউল ইসলাম। প্রধান অতিথি ছিলেন অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এইডস/এসটিডি কর্মসূচির সিনিয়র ম্যানেজার মো. আক্তারুজ্জামান। নাট্যব্যক্তিত্ব মামুনুর রশিদ ও আজাদ আবুল কালাম, বাংলাদেশ হেলথ রিপোর্টার্স ফোরামের সভাপতি তৌফিক মারুফ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

মূল প্রবন্ধে বলা হয়, দেশে আট বিভাগের মধ্যে ঢাকা বিভাগে এইচআইভি সংক্রমিত ব্যক্তির সংখ্যা বেশি। রংপুর বিভাগে কম। ঢাকায় এ সংখ্যা ২ হাজার ৫২২ জন। চট্টগ্রামে ২ হাজার ৮ জন, সিলেটে এক হাজার ২১৯ জন, খুলনায় ৬৬০ জন, রাজশাহীতে ১৯২ জন, বরিশালে ১৭৯ জন, ময়মনসিংহে ৮৬ জন, এবং রংপুর বিভাগে ৬৮ জন। ২৩টি জেলায় সংক্রমিত ব্যক্তি বেশি শনাক্ত হওয়ায় সরকার ওই এলাকাকে বেশি গুরুত্ব দিয়ে কর্মসূচি বাস্তবায়ন করছে। ২৮টি পরীক্ষা কেন্দ্রে ১১টি সেবা সেন্টারে এইচআইভি সংক্রমিত ব্যক্তিদের সেবা দেয়া হচ্ছে।

সভায় বক্তারা এইচআইভি এইডস আক্রান্ত জনগোষ্ঠী নিয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে যে কুসংস্কার, ভ্রান্তধারণা ও বৈষম্য আছে তা দূর করার আহ্বান জানান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন