Inqilab Logo

ঢাকা শুক্রবার, ১৬ এপ্রিল ২০২১, ৩ বৈশাখ ১৪২৮, ০৩ রমজান ১৪৪২ হিজরী

ট্রাইব্যুনালের তদন্ত সংস্থার সমন্বয়ক আব্দুল হান্নান খানের ইন্তেকাল

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩০ নভেম্বর, ২০২০, ১২:০১ এএম

একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধ বিচারের লক্ষ্যে গঠিত ‘আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল’র তদন্ত সংস্থার প্রধান সমন্বয়ক আব্দুল হান্নান খান (৭৮) ইন্তেকাল করেছেন। ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্নাইলাইহি রাজিউন। গতকাল রোববার দুপুর পৌনে ১টার দিকে রাজধানীর সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি ইন্তেকাল করেন।

তদন্ত সংস্থা সূত্র জানায়, শারীরিক অসুস্থতাজনিত কারণে গত ৯ সেপ্টেম্বর আব্দুল হান্নানকে রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখান থেকে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় সিএমএইচে স্থানান্তর করা হয় আব্দুল হান্নান খানের ব্রেন স্ট্রোক, হৃদরোগসহ নানাবিধ শারীরিক জটিলতা ছিল। এম. সানাউল হকের উদ্ধৃতি দিয়ে বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা-বাসস জানায়, শুক্রবারে আবদুল হান্নান খানের করোনা পজেটিভ আসে।

আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের তদন্ত সংস্থা সূত্র জানায়, অতিরিক্ত ডিআইজি পদ থেকে অবসর গ্রহণকারী এই পুলিশ কর্মকর্তা এর আগে বঙ্গবন্ধু হত্যা ও জেলহত্যা মামলার তদন্তেও প্রধান সমন্বয়কের দায়িত্ব পালন করেন। ২০০৮ সালে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহারে যুদ্ধাপরাধের বিচার করা হবে বলে অঙ্গীকার ছিল। সংসদের প্রথম অধিবেশনে এ বিষয়ে আইনের সংশোধনী আনা হয়। ওই আইনের আওতায় ২০১০ সালের ২৫ মার্চ আন্তর্জাতিক (অপরাধ) আদালত গঠিত হয়।

আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালে অভিযুক্তদের অপরাধ তদন্তের লক্ষ্যে ২০১১ সালে গঠন করা হয় ‘আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের তদন্ত সংস্থা’। এ সংস্থায় আব্দুল হান্নান খান প্রধান সমন্বয়ক হিসেবে নিয়োগ পান। আইজিপির পদমর্যাদায় এ সংস্থায় তিনি টানা ১১ বছর দায়িত্ব পালন করেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, এক ছেলে, এক মেয়ে ও অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে যান। পুলিশ কর্মকর্তা আব্দুল হান্নান খান ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা।
নেত্রকোনার পূর্বধলা খলিশাউর খান পাড়ায় জন্ম গ্রহণ করেন তিনি। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগ থেকে এমএ এবং এলএলবি ডিগ্রি অর্জন করেন। ১৯৭১ সালে ১১ নম্বর সেক্টরের সাব-সেক্টরে সক্রিয় মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেন। স্বাধীনতার পর ১৯৭৩ সালে বিসিএস প্রথম ব্যাচে পুলিশ বিভাগে এএসপি হিসেবে যোগদান করেন আব্দুল হান্নান খান। ২০০০ সালে ঢাকা রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি হিসেবে অবসর নেন।

আব্দুল হান্নান খানের ইন্তেকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। ট্রাইব্যুনালের তদন্ত সংস্থার সর্বস্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীরাও গভীর শোক প্রকাশ করেন। এছাড়া ধর্মপ্রতিমন্ত্রী মো. ফরিদুল হকও গভীর শোক প্রকাশ করেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আব্দুল হান্নান খান
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ