Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারি ২০২১, ০৫ মাঘ ১৪২৭, ০৫ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

বাংলাদেশ সফরে আসছেন চীনা প্রতিরক্ষামন্ত্রী : নেপালি গণমাধ্যম

দ্বিপাক্ষিক চুক্তি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে নেপালে

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩০ নভেম্বর, ২০২০, ১২:০০ এএম

চীনের প্রতিরক্ষামন্ত্রী ওয়েই ফেঙ্গি বাংলাদেশ সফরে আসছেন। একদিনের সফরে নেপাল থেকে বাংলাদেশে আসবেন তিনি। এ খবর দিয়েছে নেপালি গণমাধ্যম কাঠমান্ডু পোস্ট। এতে বলা হয়েছে, বর্তমানে নেপালে অবস্থান করছেন তিনি। তবে এরপরই বাংলাদেশ ও পাকিস্তানে ঝটিকা সফরের কথা রয়েছে তার। গতকাল তিনি নেপালি প্রধানমন্ত্রী ও প্রতিরক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে বসেন। দেখা করেন দেশটির প্রেসিডেন্ট বিদ্যা দেবীর সঙ্গেও।
নেপাল সফরকালে চীনের স্টেট কাউন্সিলর ও প্রতিরক্ষামন্ত্রী ওয়েই ফেঙ্গি বলেছেন, নেপালে তার সফরের লক্ষ্য দু’দেশের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক চুক্তি বাস্তবায়ন। তিনি এক দিনের সফরে গতকাল সকালে নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুতে পৌঁছেন। রাষ্ট্রীয় সমাচার সমিতি (জাতীয় সংবাদ সংস্থা) সূত্রে জানা গেছে, ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ওয়েইকে স্বাগত জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাম বাহাদুর থাপা।
বার্তা সংস্থা জানায়, ‘আমার এ সফরের লক্ষ্য পারস্পরিক সামরিক সহায়তা বাড়ানো এবং দু’দেশের বিদ্যমান সম্পর্কগুলোকে জোরদার করা’। ‘চীন ও নেপালের মধ্যে সম্পর্ক শক্তিশালী এবং আমি এই সম্পর্ককে নতুন উচ্চতায় নিয়ে যেতে এখানে এসেছি’।
আশা করা যায় যে, নেপাল ও চীন যে ১৫০ মিলিয়ন আরএমবি সামরিক সহায়তা নিয়ে সম্মত হয়েছে ওয়ের সফরে তার বাস্তবায়ন সংক্রান্ত একটি প্রটোকল স্বাক্ষরিত হবে। গত বছর উপ-প্রধানমন্ত্রী ঈশ্বর পোখরেলের চীন সফরের সময় এ চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়েছিল। পোখরেল তখন প্রতিরক্ষামন্ত্রী ছিলেন।
‘আমি একটি ফলাফলভিত্তিক সফর সম্পর্কে আত্মবিশ্বাসী’ -ওয়েই বলেন।
চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং গত বছরের অক্টোবরে দু’দিনের সফরে নেপালে আসার পর থেকে ওয়েই’র উত্তর থেকে সর্বোচ্চ পর্যায়ের সফর।
নেপালে ভারতের পররাষ্ট্রসচিব হর্ষ বর্ধন শ্রিংলার দুই দিনের সফরের পরের দিনই নেপালের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে চীনা প্রতিরক্ষামন্ত্রীর জরুরি সফরের বিষয়টি জানানো হয়।
প্রধানমন্ত্রী ওলি ও তার প্রতিদ্ব›দ্বী পুষ্প কমল দহল ওরফে প্রচন্ডের বৈঠকের পর ক্ষমতাসীন নেপাল কমিউনিস্ট পার্টির (এনসিপি) চলমান রাজনৈতিক কোন্দলের মধ্যে ওই সফর করলেন।
চীন তাদের বেল্ট অ্যান্ড রোড কর্মসূচির আওতায় নেপালে ৫ হাজার ৬০০ কোটি ডলারের বিনিয়োগের ঘোষণা দেয়ায় দেশটির রাজনৈতিক গুরুত্ব বৃদ্ধি পেয়েছে। এ বছরের আগস্টে চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং বলেন, তিনি চীন ও নেপালের সম্পর্ক উন্নয়নকে অনেক গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে দেখেন। তিনি নেপালের প্রেসিডেন্ট ভান্ডারির সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক উন্নয়নে কাজ করতে চান।
গত বছরের অক্টোবরে দুই দিনের নেপাল সফর করেন চীনা প্রেসিডেন্ট। তিনি আগামী দুই বছরে নেপালের উন্নয়ন কর্মসূচিতে ব্যাপক বিনিয়োগের ঘোষণা দেন। সূত্র : কাঠমান্ডু পোস্ট ও পিটিআই।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: চীন

১৮ জানুয়ারি, ২০২১
১৫ জানুয়ারি, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ