Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ২৩ জানুয়ারি ২০২১, ০৯ মাঘ ১৪২৭, ০৯ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

শ্রমিক সঙ্কটে বিপাকে কৃষক

মুহাম্মদ আতিকুল্লাহ, গফরগাঁও (ময়মনসিংহ) থেকে : | প্রকাশের সময় : ১ ডিসেম্বর, ২০২০, ১২:০১ এএম

ময়মনসিংহের গফরগাঁও উপজেলার ১৫টি ইউনিয়নে আমন ধান কাটার ধুম পড়েছে। তবে উপজেলায় কৃষি শ্রমিকের অভাব দেখা দিয়েছে। ফলে ধান কাটতে হিমসিম খেতে হচ্ছে কৃষকদের। অন্যান্য বছরের তুলনায় এ বছর আমনের ফলন বাম্পার হয়ে থাকলেও ধানের দর বিগত বছরের তুলনায় অনেক বেশি। যার কারণে কৃষকরা খুশি।
জানা যায়, গফরগাঁওয়ে আমন কাটা শুরু হলেও শ্রমিকের অভাবে অনেকেই ধান কাটতে পারছে না। আর সামান্য শ্রমিক পাওয়া গেলেও তাদের মজুরি দিতে হয় অনেক বেশি। ফলে কৃষকরা দিশেহারা হয়ে পড়েছে। তার পরে আবার বেশি দামে মজুরী দিয়ে ধান রোপনসহ বিভিন্ন ধরনের পরিচর্চা করা হয়। সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে, কৃষি শ্রমিকের অভাবে ধান কাটা যাচ্ছে না। অনেকেই রাজধানী ঢাকাসহ বিভিন্ন স্থানে র্কমস্থলে চলে গেছে। আবার কেউ কেউ বিদেশে চলে গেছে। এক সময়ে গফরগাঁও রেল স্টেশনে বিভিন্ন স্থান থেকে শত শত শ্রমিক আসতো কৃষি কাজ করার জন্য। আবার নির্ধারিত সময়ে ধান কেটে ঘরে এনে পুনরায় বোরোর জন্য প্রস্তুতি নিতে হবে। কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, চলতি মৌসুমে এ উপজেলায় আমনের আবাদ হয়েছে ২২ হাজার ৫শ’ ৮০ হেক্টর। এতে করে মোট ৬১ হাজার ৭শ’ ২৮ মেট্রিকটন চাল উৎপাদন হয়েছে। বিভিন্ন হাট বাজারে নতুন ধান উঠলেও বেচাকেনা খুবই কম। চিকন ধান প্রতিমণ ১ হাজার টাকা থেকে ১ হাজার ৫০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। মোটা ধান প্রতিমণ ৯শ’ ২০ টাকা থেকে ৯শ’ ৫০ দরে বিক্রি হচ্ছে।
চরমছলন্দ গ্রামের মো. মুর্শিদ মিয়া জানান, বিগত কয়েক বছরের তুলনায় আমনের ফলন ভালো হয়েছে। প্রতিমণ ৪৯ চিকন ধান ১ হাজার ৫০ টাকার উপরে বিক্রি হচ্ছে। ধানের দাম পেয়ে কৃষকরা খুশি। ৯নং পাঁচবাগ ইউনিয়নের উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা একেএম দিদারুল পারভেজ জানান, এ বছর আবহাওয়া অনুক‚লে থাকার ফলে আমনের ফলন বাম্পার হয়েছে। এমনকি কোনো ধরনের পোকার আক্রমণ দেখা যায়নি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কৃষক

১৮ জানুয়ারি, ২০২১
১২ জানুয়ারি, ২০২১
১৩ ডিসেম্বর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন