Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ১৭ জানুয়ারি ২০২১, ০৩ মাঘ ১৪২৭, ০২ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

তদন্তের আবেদন সরকারি নীতিনির্ধারকের

রানীর চেয়েও ধনী ব্রিটিশ অর্থমন্ত্রী ঋষি সুনাকের স্ত্রী

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১ ডিসেম্বর, ২০২০, ১২:০০ এএম

সম্প্রতি বিটিশ অর্থমন্ত্রী ঋষি সুনাকের স্ত্রী অক্ষতার বাবার সহ-প্রতিষ্ঠিত প্রযুক্তি সংস্থা ইনফোসিসে অক্ষতার ৪৩ কোটি পাউন্ডের শেয়ার থাকায় তাকে ‘ব্রিটেনের রানীর চেয়ে ধনী’ (রানী দ্বিতীয় এলিজাবেথের সম্পদের পরিমাণ ৩৫ কোটি পাউন্ড) বলে মন্তব্য করে দ্য গার্ডিয়ান। পত্রিকাটি সুনাকের বিরুদ্ধে স্ত্রীর সম্পত্তি সংক্রান্ত তথ্য গোপনের অভিযোগ তোলে। তারা দেশটির অন্যান্য ৬টি সংস্থায় অক্ষতার শেয়ারহোল্ডিংকেও চিহ্নিত করেছে যা সুনাক এড়িয়ে গেছেন। এ খবর প্রকাশের পর যুক্তরাজ্যের রাজনৈতিক অঙ্গনে ব্যাপক চাঞ্চল্য তৈরি হয়।

এ প্রেক্ষিতে ৩০ নভেম্বর লেবার পার্টির এমপি তোনিয়া অ্যান্তোনিয়াজি অক্ষতা এবং তার পরিবারের শেয়ারহোল্ডিং এবং ডিরেক্টরশিপ নিয়ে উদ্বেগ উত্থাপন করেন এবং তদন্তের অনুরোধ করে স্ট্যান্ডার্ডস ইন পাবলিক লাইফ কমিটির চেয়ারম্যানকে চিঠি দেন। ইন্ডিপেন্ডেন্টের সাথে শেয়ার করা চিঠিতে তোনিয়া বলেছেন যে, আচরণবিধিতে বলা হয়েছে, মন্ত্রীদের উচিত তাদের অংশীদার এবং নিকটতম পরিবারের আর্থিক একটি তালিকা প্রদান করা। তিনি চিঠিতে বলেছেন, ‘চ্যান্সেলরের আর্থিক বিষয়গুলোর চারপাশের তথ্যগুলি অত্যন্ত সম্পর্কিত এবং আমি আপনাকে মন্ত্রীর আচরণবিধির সরাসরি লঙ্ঘন হয়েছে কিনা তা খতিয়ে দেখার জন্য লিখছি।’

তোনিয়া চেয়ারম্যানকে আরও বলেন, ‘এসব প্রতিবেদন আপনার সাম্প্রতিক মন্তব্যগুলো অনুসরণ করেছে যেখানে আপনি জ্যেষ্ঠ মন্ত্রীদের বিরুদ্ধে চরম মাত্রার অভিযোগ পরিচালনা করার বিষয়ে ‘প্রকৃত উদ্বেগ’ প্রকাশ করেছিলেন। তদুপরি, এসব অভিযোগ রাজনীতিবিদদের ওপর জনসাধারণের আস্থা আরো ক্ষীণ করে দেয় এবং সংসদ সদস্যদের মধ্যে অসন্তুষ্টি ডেকে আনে। আপনাকে অবশ্যই জরুরি ভিত্তিতে এসব অভিযোগ পুরোপুরি তদন্ত করতে হবে এবং যথাযথ পদক্ষেপ নিতে হবে।’

উল্লেখ্য, গত মাসে নিজের আর্থিক অবস্থার তথ্য প্রকাশের জন্য বড় চাপে পড়েন ঋষি সুনাক। বলা হয়, গত বছর জুলাইয়ে তাকে ট্রেজারিতে চিফ সেক্রেটারি বানানোর পর তিনি একটি ‘বøাইন্ড ট্রাস্ট’ প্রতিষ্ঠা করেন। কিন্তু তিনি এত অর্থ কোথায় পেলেন, এ নিয়ে প্রশ্ন ওঠে। বলা হয়, সবচেয়ে ধনী এমপি ঋষি সুনাক। তিনি কীভাবে এত সম্পদের মালিক হলেন। তারই জবাবে বেরিয়ে এসেছে বিভিন্ন তথ্য।

তাতে বলা হয়েছে, তার স্ত্রী অক্ষতা মূর্তি হলেন ভারতীয় উদ্যোক্তা নারায়ণ মূর্তির মেয়ে। অক্ষতার বাবা ভারতের ৫১তম শীর্ষ ধনী। তিনি শুধু দেশটির অন্যতম শীর্ষ ধনীই নন, তাকে দেশটির আইটি সেক্টরের জনক হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়। এছাড়া, সর্বকালের শ্রেষ্ঠ ১২ জন ব্যবসায়ীর মধ্যে তিনি অন্যতম। ফোর্বস ম্যাগাজিনের মতে, তিনি সারাবিশ্বের বিলিয়নিয়ারের তালিকায় ১১৩৫ নম্বর অবস্থানে। নারায়ণ মূর্তি ভারতের প্রযুক্তি বিষয়ক কোম্পানি ইনফোসিসের সহ-প্রতিষ্ঠাতা। সেখানে অক্ষতা মূর্তির রয়েছে ব্যক্তিগত শতকরা ০.৯১ ভাগ শেয়ার। যার মূল্য ৪৩ কোটি পাউন্ড। এছাড়া অ্যামাজন কোম্পানির সঙ্গে তার রয়েছে পারিবারিক ব্যবসা। সেখানে বছরে ৯০ কোটি পাউন্ড আয় হয়। এছাড়া শেয়ার আছে জেমি অলিভারের জেমিস ইতালিয়ান এবং ভারতে বার্গার চেইন বলে খ্যাত ওয়েন্ডিসে। সূত্র : ইন্ডিপেন্ডেন্ট।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বিটিশ
আরও পড়ুন