Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ১৭ জানুয়ারি ২০২১, ০৩ মাঘ ১৪২৭, ০২ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

চট্টগ্রাম ভেন্যু ঘুরে দেখল উইন্ডিজ প্রতিনিধি দল

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২ ডিসেম্বর, ২০২০, ১২:০০ এএম

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে আন্তর্জাতিক সিরিজ আয়োজনের জন্য বাংলাদেশ কতটা প্রস্তুত- তা খতিয়ে দেখতে চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম পরিদর্শন করেছে ক্রিকেট উইন্ডিজের দুই সদস্যের প্রতিনিধি দল। এ দুইজন হচ্ছেন ক্রিকেট উইন্ডিজের মেডিকেল প্যানেলের সদস্য ও বোর্ড পরিচালক ডা. অক্ষয় মানসিং আর অপরজন হলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ডের নিরাপত্তা ম্যানেজার পল সেøায়ি। সকালে গতকাল হেলিকপ্টারে করে চট্টগ্রামের এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে নামেন। কড়া স্বাস্থ্যবিধির মধ্যে জৈব সুরক্ষা বলয়ে রেখে তাদের ঘুরে দেখানো হয় পাশেই থাকা হোটেল রেডিসন। পরে তাদের নিয়ে যাওয়া হয় খেলার ভেন্যু সাগরিকায়। এ সময় তাদের সঙ্গে ছিলেন বিসিবির অপারেশন্স বিভাগের কর্মকর্তা সাব্বির খান ও প্রধান চিকিৎসক ডা. দেবাশীষ চৌধুরী।
গত ২৮ নভেম্বর মেডিকেল বিভাগের একজন ও নিরাপত্তা বিভাগের এক কর্মকর্তা আসেন বাংলাদেশে। ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজের জন্য সম্ভাব্য দুই ভেন্যু মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়াম ও চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম ঘুরে দেখা ছিল তাদের প্রধান দায়িত্ব। এসব ভেন্যুতে কীভাবে জৈব সুরক্ষা বলয় তৈরি করে খেলা আয়োজন করবে বিসিবি- তা নিয়ে ধারনা নিয়েছেন তারা।
দুই সদস্যের এই প্রতিনিধি দল ঘুরে দেখেন জহুর আহমেদের মাঠ, ড্রেসিং রুমসহ সবকিছু। এরপর এ প্রতিনিধি দল ইম্পেরিয়াল হাসপাতাল ও হোটেল রেডিসন বøুর আইসোলেশন সেন্টারও পরিদর্শন করেন। একইসাথে এখানকার স্বাস্থ্য সুরক্ষা ও নিরাপত্তার ব্যাপারে যাচাই করেন। পরে এমএ আজিজ স্টেডিয়ামের প্রধান গেইট এবং প্লেয়ার্স এন্ড অফিসিয়াল এরিয়া পরিদর্শন করেন।
জানুয়ারিতে তিন টেস্ট, তিন ওয়ানডে ও দুই টি-টোয়েন্টির সিরিজ খেলতে বাংলাদেশে আসার কথা ওয়েস্ট ইন্ডিজের। এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে চারদিনের একটি প্র্যাকটিস ম্যাচও খেলার কথা রয়েছে দলটির। তবে এই সিরিজের স‚চি ও ভবিষ্যৎ নির্ভর করছে প্রতিনিধি দলের প্রতিবেদনের উপর।
করোনাভাইরাসের কারণে গত মার্চে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের পর খেলার বাইরে আছে বাংলাদেশ। চলতি বছরে করোনার কারণে বাতিল হয়েছে অনেকগুলো সিরিজ। ওয়েস্ট ইন্ডিজ খেলত এলে ১০ মাস পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলতে পারবে বাংলাদেশ দল।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: চট্টগ্রাম

১৬ জানুয়ারি, ২০২১
২ জানুয়ারি, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন