Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ১৭ জানুয়ারি ২০২১, ০৩ মাঘ ১৪২৭, ০২ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

ভারতের প্রভাবে পরিবর্তিত হয় সূচি! দাবি অস্ট্রেলীয় মিডিয়ার

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২ ডিসেম্বর, ২০২০, ১২:০০ এএম

বোমা ফাটিয়েছে অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটের স¤প্রচারকারী মিডিয়া প্রতিষ্ঠান সেভেন ওয়েস্ট মিডিয়া। ২০১৮ সালে ছয় বছরের জন্য ৪৫ কোটি ডলার দিয়ে স¤প্রচারস্বত্ব কিনে নেওয়া এই প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার সম্পর্ক দিনকে দিন খারাপই হচ্ছে। এবার তারা দাবি করেছে, ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) সঙ্গে সম্পর্ক ঠিক রাখতে সিরিজের স‚চির অদলবদল করেছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। এর মধ্যেই এই নিয়ে আদালতে অ্যাফিডেভিট দাখিল করেছে সেভেন ওয়েস্ট মিডিয়া।
চলতে থাকা ভারত-অস্ট্রেলিয়া ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজের স্বত্ব কিনে নিয়েছে ফক্সটেল, ওদিকে সেভেন মিডিয়ার স্বত্ব শুধু টেস্ট সিরিজে। টেস্ট সিরিজটাই আগে শুরু হওয়ার কথা ছিল। অ্যাডিলেডে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া দিনরাতের টেস্ট দিয়ে এবারের ‘অস্ট্রেলীয় গ্রীষ্ম’ শুরু হবে, এমনটা মনে করা হলেও পরে হয়নি। স‚চি পরিবর্তন করে সীমিত ওভারের ম্যাচগুলো আগে নিয়ে আসা হয়। আর এতেই চটেছে সেভেন মিডিয়া কোম্পানি।
এর মধ্যে করোনাভাইরাসের কারণে এমনিতেই অনেক আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হতে হয়েছে তাদের। তার ওপর টেস্ট সিরিজ পরে আয়োজন করলে ক্ষতির পরিমাণ আরও বাড়বে, যেহেতু বিরাট কোহলির মতো খেলোয়াড় সীমিত ওভারের সিরিজ দুটি পুরো খেললেও, চার টেস্টের প্রথমটা খেলবেন শুধু। খেলেই সন্তানসম্ভবা স্ত্রী আনুশকা শর্মার পাশে থাকতে ফিরে যাবেন ভারতে। অর্থাৎ প্রায় গোটা টেস্ট সিরিজেই কোহলির মতো একজনকে পাচ্ছে না সেভেন মিডিয়া, যাঁর তারকাখ্যাতির জন্য হলেও মানুষজন একটু সিরিজটা দেখবে।
মানুষজনের না দেখা মানেই স¤প্রচারকারী প্রতিষ্ঠানের ক্ষতি! অথচ টেস্ট সিরিজ আগের স‚চি অনুযায়ী আগেভাগে হয়ে গেলে দেখা যেত কোহলি টেস্টই খেলছেন, ওয়ানডে বা টি-টোয়েন্টি নয়। এ ছাড়া, ১৭ তারিখে প্রথম টেস্ট শুরু হওয়া মানে টেস্ট সিরিজ শেষ হতে হতে বড়দিনের ছুটি পেরিয়ে যাবে, যখন মানুষ খেলা দেখা বাদ দিয়ে কাজে ফিরে যাবে। সেভেন মিডিয়া এই অবিচার মানবে কেন?
ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া, ফক্সটেল ও বিসিসিআই—সবার ওপরেই ক্ষিপ্ত সেভেন মিডিয়া। ৪৫ কোটি ডলারের চুক্তির ধারা ভঙ্গ করেছে বলে দাবি করেছে তারা। অস্ট্রেলিয়ার সংবাদমাধ্যম সিডনি মর্নিং হেরাল্ডকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে প্রতিষ্ঠানের প্রধান নির্বাহী জেমস ওয়ারবুরটন জানিয়েছেন, ‘আমার মনে হচ্ছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার স‚চি নির্ধারণ করার সিদ্ধান্তগুলো প্রভাবিত হচ্ছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই), ফক্সটেল ও তাসমানিয়া রাজ্যের মাধ্যমে, যারা ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়াকে ইতিবাচক প্রণোদনা দেয়। ব্যাপারটা আসলেই লজ্জার যে আমাদের ক্রিকেটকর্তারা বিসিসিআইয়ের সঙ্গে সম্পর্ক ঠিক রাখার জন্য নিজেদের মাথা বালির মধ্যে গুঁজে রেখেছেন।’

 

 



 

Show all comments
  • Md zahidul karim attari ১৫ ডিসেম্বর, ২০২০, ৯:৫৫ পিএম says : 0
    এটাতো হওয়ারই ছিল। ভারত হচ্ছে ক্রিকেটের মাফিয়া। যতদিন পর্যন্ত এই মাফিয়াকে ক্রিকেট থেকে দূরে সরানো যাবে ততদিন পর্যন্ত ক্রিকেট 10 দলের বিশ্বকাপ আয়োজন করবে। ক্রিকেটের বিশ্বায়নের আর হবে না।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ক্রিকেট

১৫ জানুয়ারি, ২০২১
১৪ জানুয়ারি, ২০২১
১৩ জানুয়ারি, ২০২১
১২ জানুয়ারি, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন