Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৮ আশ্বিন ১৪২৬, ২৩ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

যশোরে দুই যুবকের গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার

প্রকাশের সময় : ২১ আগস্ট, ২০১৬, ১২:০০ এএম

যশোর ব্যুরো : যশোরের বেনাপোল সড়কের পুলেরহাট গেঞ্জিমিল এবং শহরের পৌর পার্ক এলাকা থেকে দুইটি গুলিবিদ্ধ লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহতরা হলো- খুলনা জেলার ডুমুরিয়া উপজেলার গাড়াখোলা গ্রামের আবদুর রশিদ বিশ্বাসের ছেলে আজিম বিশ্বাস (৩২) ও যশোর শহরের খোলাডাঙ্গা এলাকার আব্বাস গাজীর পুুত্র হাবিব গাজী।
শুক্রবার মধ্যরাতে যশোর শহরের পৌরপার্ক থেকে আজিম বিশ্বাসের গুলিবিদ্ধ লাশ হাসপাতালে এনেছিল কোতোয়ালী পুলিশ। পুলিশ বলেছে, গোলাগুলিতে সে নিহত হয়েছে। গতকাল (শনিবার) দুপুরে নিজ স্বামীর লাশ শনাক্ত করেন স্ত্রী নাজমা বেগম। ফুলতলার লোক হলেও আজিম বিশ্বাস সপরিবারে বসবাস করতেন যশোর শহরের নীলগঞ্জ মহাশ্মশান রোডে। তিনি যশোরে মোটরপার্টস সাপ্লাইয়ার ছিলেন বলে স্ত্রী নাজমার দাবি। তবে পুলিশ বলছে, আজিমের বিরুদ্ধে মোটরসাইকেল চুরি-ডাকাতির পাঁচটি মামলা আছে। নাজমা বেগম জানান, তার স্বামী একটি মামলায় হাজিরা দিতে গত রোববার আদালতের উদ্দেশে বাড়ি থেকে বের হন। এরপর তার আর কোনো সন্ধান মেলেনি।
শনিবার দুপুরে তিনি জেনারেল হাসপাতাল মর্গে এসে স্বামীর লাশ শনাক্ত করেন। পুলিশ জানায়, শনাক্ত হওয়ায় লাশটি শনিবার বিকালে তার স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়। নাজমা জানান, তার স্বামী ভারত থেকে মোটরপার্টস এনে স্থানীয় ব্যবসায়ীদের কাছে সাপ্লাই দিতেন। কোনো ধরনের অপরাধমূলক কাজে স্বামী জড়িত ছিলেন না বলে তার দাবি। তবে কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জানান, নিহত আজিমের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় অন্তত পাঁচটি মামলা আছে। এগুলো সবই মোটরসাইকেল চুরি-ডাকাতির। নাজমা বেগম জানান, তার একটি মেয়ে সন্তান রয়েছে। যার বয়স ১১ বছর। নাজমার বাবার বাড়ি যশোরের অভয়নগর উপজেলার পাচুড়িয়া গ্রামে।
যশোর-বেনাপোল মহাসড়কের নতুনহাটের কাছ থেকে গুলিবিদ্ধ লাশটি হলো যশোর শহরতলীর খোলাডাঙ্গা এলাকার আব্বাস গাজীর ছেলে হাবিব গাজী (২৬)। শনিবার সকালে যশোর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে এসে নিহতের ভাই আসাদ গাজী তার লাশ শনাক্ত করেন। আসাদ গাজী দাবি করেন, হাবিব গাড়ির ইঞ্জিন মিস্ত্রি। বাড়িতেই থাকতেন এবং ভাইয়ের কৃষিকাজে সহায়তা করতেন। গত বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে খোলাডাঙ্গা এলাকার হাসান দফাদারের বাড়ি থেকে সে নিখোঁজ হয়। কোতোয়ালী থানার এসআই তারিকুল ইসলাম বলেন, নিহত হাবিব গাজীর বিরুদ্ধে মাদকসহ কয়েকটি মামলা আছে। মাদক ব্যবসায়ীদের মধ্যে গোলাগুলিতে সে নিহত হয়।
পুলিশের দাবি, শুক্রবার মধ্যরাতে গোলাগুলির খবর পেয়ে একদল পুলিশ গিয়ে শহরের পৌরপার্ক ও যশোর-বেনাপোল মহাসড়কের নতুনহাট এলাকা থেকে গুলিবিদ্ধ লাশ দুটি উদ্ধার করা হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ