Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ১৭ জানুয়ারি ২০২১, ০৩ মাঘ ১৪২৭, ০২ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

আখমাড়াই বন্ধ রাখার প্রতিবাদে বিক্ষোভ

তিন ঘণ্টা সড়ক অবরোধ

গোবিন্দগঞ্জ (গাইবান্ধা) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ৩ ডিসেম্বর, ২০২০, ১২:০০ এএম

অব্যাহত লোকসানের অজুহাতে গাইবান্ধা জেলার কৃষিভিত্তিক একমাত্র ভারিশিল্প কারখানা গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার মহিমাগঞ্জস্থ রংপুর চিনিকলসহ ৬টি চিনিকলে আখমাড়াই বন্ধ রাখার প্রতিবাদে গতকাল বুধবার মহিমাগঞ্জে ব্যাপক বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছেন সহস্রাধিক আখচাষি ও শ্রমিক-কর্মচারীরা। বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্যশিল্প সংস্থার সদর দফতর থেকে এর আওতাধীন ১৫টি চিনিকলের মধ্যে ২০২০-২০২১ মৌসুমে ৬টিতে মাড়াই বন্ধ রেখে ৯টি চিনিকলে আখমাড়াই করার নির্দেশনা সম্বলিত একটি চিঠি পাওয়ার পর বিক্ষোভে ফেটে পড়েন আখচাষি ও শ্রমিক-কর্মচারীরা। 

গতকাল বুধবার সকাল সাড়ে ৯টা থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত আখচাষি ও শ্রমিক-কর্মচারীরা গোবিন্দগঞ্জ-মহিমাগঞ্জ সড়কের চিনিকলের সামনের কয়েকটি স্থানে মোটরের টায়ার জ্বালিয়ে সড়ক অবরোধ করে রাখেন। এ সময় উভয় দিকে শতাধিক ছোটবড় যানবাহন আটকা পড়ে। এ সংবাদ পেয়ে গোবিন্দগঞ্জ থানার একদল পুলিশ এসে অবরোধ তুলে নেয়ার অনুরোধ করলেও তা অগ্রাহ্য করে অবরোধ চালিয়ে যান বিক্ষুব্ধরা। অবরোধ চলাকালে রংপুর চিনিকল শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি আবু সুফিয়ান সুজা, সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান দুলাল, বক্তব্য প্রদান করেন।
বক্তারা বলেন, দীর্ঘদিন ধরে বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্যশিল্প সংস্থার চেয়ারম্যানসহ উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের বিভিন্ন প্রকল্পের নামে সীমাহীন দুর্নীতি, অপ্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি, বিলাসবহুল গাড়িসহ সকল ধরণের কেনাকাটায় ব্যাপক লুটপাটের জন্য পুরো সংস্থাই লোকসানের মুখে পড়েছে। চিনিশিল্প আধুনিকায়নের নামে বিশ^ব্যাংক থেকে নেয়া ঋণের টাকা পরিশোধ না করে সকল চিনিকলকেই ঋণে জর্জরিত করে রেখে বিদেশে প্রচুর টাকা পাচার করেছে এই আমলারা। এখন তাদের অপকর্মের ভার সাধারণ চাষি ও শ্রমিকদের ঘাড়ে চাপিয়ে দিয়ে বেসরকারি চিনিকলগুলোর দালাল হিসেবে বর্তমান চেয়ারম্যান দেশের সকল চিনিকল বন্ধ করার মাধ্যমে চিনি শিল্পটাকেই ধ্বংস করার অপচেষ্টা অব্যাহত রেখেছেন। আন্দোলনরত রংপুর চিনিকল শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়ন ও আখচাষি নেতৃবৃন্দ জানান, আজ বৃহস্পতিবার রাজধানী ঢাকায় বাংলাদেশ চিনিশিল্প করপোরেশন শ্রমিক-কর্মচারী ফেডারেশন ও বাংলাদেশ চিনিকল আখচাষি ফেডারেশন এর যৌথ সভা থেকে পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আখমাড়াই-বন্ধ
আরও পড়ুন