Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারি ২০২১, ০৫ মাঘ ১৪২৭, ০৫ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

পরীক্ষামূলক টিকা নিলেন কলকাতা পৌরশাসক ফিরহাদ হাকিম

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩ ডিসেম্বর, ২০২০, ১২:০০ এএম

কলকাতা মহানগরের ফার্স্ট সিটিজেন হিসেবে গতকাল বুধবার বিকেলে করোনা ভ্যাকসিনের পরীক্ষামূলক প্রয়োগে অংশ নিলেন পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। এবার টানা সাতদিন নিবিড় পর্যবেক্ষণে থাকবেন তিনি। ২৮ দিন পর ফের তার উপর টিকার পরীক্ষামূলক প্রয়োগ হবে।
গতকাল বিকেলে নাইসেডে পৌঁছতেই কলকাতা পুরসভার মুখ্যপ্রশাসক ফিরহাদ হাকিমকে স্বাগত জানান ডিরেক্টর শান্তা দত্ত। এরপর ভিতরে গিয়ে তিনি যে করোনার টিকা নিতে রাজি, সেই সম্মতিপত্রে সই করেন। তারপরই আসল পর্ব। তার উপরই পরীক্ষামূলকভাবে কোভ্যাক্সিন প্রয়োগ করে বৈজ্ঞানিক ট্রায়ালের সূচনা ঘটে নাইসেডে। শেষ ধাপের ট্রায়ালের অঙ্গ হিসেবে কলকাতায় পৌঁছেছিল কোভ্যাক্সিনের ১ হাজার টিকা। বাংলার এক হাজার স্বেচ্ছাসেবকের ওপর এবার এর পরীক্ষামূলক প্রয়োগ হবে। টিকা প্রয়োগের পরই ফিরহাদ বলেন, ‘মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সবসময় জনতার জন্য কাজ করতে বলেন। সে জন্যই মানুষের জন্য এগিয়ে আসা। আগেও বলছি, এখনও বলছি, এতে যদি আমার প্রাণও যায়, তাও অসুবিধা নেই’।
একইসঙ্গে জানান, অক্সফোর্ড এবং বায়োটেকের মধ্যে কোন টিকার পরীক্ষামূলক প্রয়োগের জন্য তিনি রাজি হতেন? এক মুহ‚র্ত না ভেবেই জানান, ‘বায়োটেকই নিতাম। কারণ দেশের বিজ্ঞানীদের ওপর পূর্ণ বিশ্বাস রয়েছে। আমাদের টিকার উপরও আস্থা আছে’।
যে শহরেই টিকার ট্রায়াল চলছে, ফার্স্ট সিটিজেন হিসেবে সেখানকার মেয়রদেরই সর্বপ্রথম টিকা নেয়ার প্রস্তাব দেয়া হচ্ছে। ঠিক একইভাবে বাংলায় প্রস্তাব পান ফিরহাদ। একাধিক শহরের মেয়র এত বড় ঝুঁকি নেয়ার সাহস দেখাতে পারেননি। আবার বিভিন্ন রাজ্যের মেয়রের কো-মর্বিডিটি থাকার কারণে তাঁদেরকে প্রস্তাবই দেয়া হয়নি। কিন্তু ফিরহাদ হাকিম ভ্যাকসিন প্রয়োগের প্রস্তাবে এক কথায় রাজি হয়ে যান। চিকিৎসকদের তরফে জানানো হয়, পুরমন্ত্রী তথা কলকাতা পুরসভার মুখ্যপ্রশাসকের কোনও কো-মর্বিডিটি নেই। অর্থাৎ হার্ট কিংবা ফুসফুস একেবারে স্বাভাবিক। কেবল সামান্য পেটের সমস্যা আছে। তবে তাতে ভ্যাকসিন প্রয়োগের ক্ষেত্রে কোনও অসুবিধা হবে না। আপাতত সাতদিন বাড়িতেই নিবিড় পর্যবেক্ষণে থাকবেন তিনি। নিজের মতোই কাজ করবেন। তবে চিকিৎসকরা নিয়মিত তার স্বাস্থ্যের আপডেট নেবেন। ২৮ দিন পর ফের তার উপর টিকার পরীক্ষামূলক প্রয়োগ হবে। সূত্র : ভারতীয় মিডিয়া।



 

Show all comments
  • Bojlur Rahaman ৩ ডিসেম্বর, ২০২০, ২:৫১ এএম says : 0
    Stop vaccine. Find antibiotic.
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: করোনাভাইরাস

১৯ জানুয়ারি, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ