Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারি ২০২১, ০৫ মাঘ ১৪২৭, ০৫ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

জাতিসংঘ ক্ষতিকর মাদকদ্রব্যের তালিকা থেকে বাদ দিলো ‘গাঁজা’

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩ ডিসেম্বর, ২০২০, ১২:২৯ পিএম

জাতিসংঘ ক্ষতিকর মাদকদ্রব্যের তালিকা থেকে বাদ দিলো ‘গাঁজা’। গতকাল বুধবার জাতিসংঘের ঔষধ নির্ধারণী সংস্থা (ইউসিএনডি) গাঁজার ব্যবহার নিয়ন্ত্রণ ও এটি নিষিদ্ধে ১৯৬১ সালে পাশ করা আইন বাতিলে ভোট দেয়। গাঁজাকে ক্ষতিকর মাদকদ্রব্য থেকে সরানোর এই ভোটে সমর্থন দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, জার্মানি ও দক্ষিণ আফ্রিকাসহ কমিশনের অন্য ২৭টি দেশ। ব্রাজিল, চীন, রাশিয়া ও পাকিস্তান বিপক্ষে ভোট দিয়েছে। -সিএনএন, ডয়েচে ভেলে
নিষেধাজ্ঞার আওতাভূক্ত থাকাকালে গাঁজা হিরোইন জাতীয় অন্যান্য ক্ষতিকর মাদকের শ্রেণীভূক্ত ছিলো। আইনটির কারণে এতোদিন জাতিসংঘের সদস্যভুক্ত দেশগুলো ‘গাঁজা’কে ক্ষতিকর মাদকদ্রব্য চিহ্নিত করে এর ওপর নিষেধাজ্ঞারোপ করতে পারতো। গাঁজার চিকিৎসাগত গুণাগুণের স্বীকৃতি দিতে এই নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া হয়েছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা চিকিৎসাখাতে গাঁজার ব্যবহার সহজসাধ্য করতে এবং এটি নিয়ে গবেষণা বাড়াতে জাতিসংঘের কাছে গাঁজার ওপর নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার সুপারিশ করে। আন্তর্জাতিক ড্রাগ পলিসি কনসোর্টিয়াম এই পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়েছে। তবে গাঁজাকে ক্ষতিকর মাদকের তালিকা থেকে বাদ দিলেও জাতিসংঘ কমিশন গাঁজার বৈধতা দেয় নি। অপব্যবহৃত হতে পারে এমন ঔষধের তালিকায় এখনো রয়েছে ‘গাঁজা’।



 

Show all comments
  • Md.Ahasanul Haque Akash ৩ ডিসেম্বর, ২০২০, ১:৫৮ পিএম says : 0
    গাঁজা অবস্যই একটি মাদক দ্রব্য।এর ক্ষতিকর দিক কারোই অজানা নয়।তবে,আমরা মানুষদের একটি বিশেষ প্রতিভা রয়েছে।আমরা ছাঁই এর মধ্যেও অমূল্য রতন খোঁজে বের করতে পারি। গাঁজা দিয়ে ঔষধ তৈরি এর ই একটি উদাহরণ।গাঁজা দিয়ে ঔষধ তৈরি করা হবে।তাই বলে তো আর গাঁজা সেবনের ক্ষতি কমে যায় নি।তাই আমি সরকারের কাছে অনুরুধ করছি,গাঁজাকে সহজলভ্য করবেন না।কারন,ইয়াবাও কিন্তু পূর্বে ঔষধই চিলো। একজন বাঙালী হিসেবে আমি বলব,"গাঁজা দিয়ে যদি covid-19 এর ও কার্যকরী ভ্যাক্সিন ও বানানো যায় তবুও আমার বাংলায় গাঁজার কোন ঠাঁই নাই"।
    Total Reply(0) Reply
  • Jack Ali ৩ ডিসেম্বর, ২০২০, ৯:২১ পিএম says : 1
    Man made law allow all harram things Halal.. Gaza is one of the worst drug it damage the human health i.e. it affect the brain.
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ