Inqilab Logo

ঢাকা বুধবার, ২০ জানুয়ারি ২০২১, ০৬ মাঘ ১৪২৭, ০৬ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

কুষ্টিয়ায় দালালের দৌরাত্ম্যে দিশেহারা রোগীরা

কুষ্টিয়া থেকে স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৪ ডিসেম্বর, ২০২০, ১১:০০ এএম

কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসা রোগী ও স্বজনেরা দালালের দৌরাত্ম্যে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন। মূল ফটক থেকে ভেতরের ওয়ার্ড পর্যন্ত পুরো হাসপাতাল জুড়ে দালালদের অবাধ বিচরণ ও আধিপত্য বলে অভিযোগ রোগী ও স্বজনদের।

ভুক্তভোগী রোগীরা জানান, বেসরকারি হাসপাতাল, ক্লিনিক ও রোগনির্ণয় কেন্দ্রের নিয়োগ করা এসব দালালের হাতে জিম্মি হয়ে পড়েছে দৌলতপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালটির স্বাস্থ্যসেবা। মাঝেমধ্যে ভ্রাম্যমাণ আদালত ও পুলিশের অভিযানে দালালের আনাগোনা কিছুটা কমলেও অল্প দিনেই তা আগের অবস্থায় ফিরে আসে।

৬ লাখ জনগণের স্বাস্থ্য সেবার জন্য কুষ্টিয়া দৌলতপুর উপজেলার ৫০ শয্যা বিশিষ্ট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতাল। সরকারি এই স্বাস্থ্য সেবা প্রতিষ্ঠানটি এখন দালালদের দখলে বলে অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী রোগী ও তাদের স্বজনরা।

জানা যায়, দৌলতপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতাল থেকে প্রতিদিন ২শ থেকে ২৫০ জন রোগী চিকিৎসা সেবা নিয়ে থাকেন। এখানে ভর্তি রোগী থাকেন ২৫ থেকে ৩০ জন। দালালদের কারনে মানসম্মত চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন চিকিৎসা নিতে আসা রোগীরা। দৌলতপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতাল থেকে প্রতিনিয়ত রোগীদের ভাগিয়ে বিভিন্ন বেসরকারি ডায়াগনস্টিক সেন্টারে এবং ক্লিনিকে নিয়ে যায়। এই দালালদের মধ্যে অন্যতম মা ডায়াগনস্টিক সেন্টারের দালাল খোকন, স্বপন, জীবন অন্যতম, দৌলতপুর ডিজিটাল (কথিত) ডায়াগনস্টিক সেন্টারের দালাল নাজিম, শফি, সুমন। এছাড়াও বেশকিছু দালাল এই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালে দালালি করেন। এই দালালদের কারনে রোগীরা ভোগান্তির শিকার হচ্ছে।

দৌলতপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোঃ তৌহিদুল ইসলাম তুহিন দালালের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আমি উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে এবিষয়ে জানিয়েছি। তিনি ব্যস্ত আছেন কয়েকদিন পর তিনি মোবাইল কোর্ট বসিয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করবে বলে জানিয়েছেন।

এবিষয়ে দৌলতপুর উপজেলা নির্বাহি অফিসার শারমিন আক্তার এর মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, দালালদের বিরুদ্ধে খুব শীঘ্রই ভ্রাম্যমাণ আদালত বসানো হবে। সেইসাথে দালাল নির্ভর অপচিকিৎসার কেন্দ্রগুলো বন্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এই বিষয়ে কুষ্টিয়া—১ (দৌলতপুর) এর সংসদ সদস্য আ: ক: ম সরওয়ার জাহান বাদশাহ্ বলেন, আমি দৌলতপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স দালালমুক্ত করার জন্য ব্যাবস্থা নিতে সংশি­ষ্ট কতৃপক্ষকে বলেছি, আমি চাই রোগীরা যেন মান সম্মত স্বাস্থ্য সেবা পায়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: দালাল

১০ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ