Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২৭ জুন ২০১৯, ১৩ আষাঢ় ১৪২৬, ২৩ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

বঙ্গবন্ধুকে যারা হত্যা করেছে তারা বর্তমান সরকারে আছে-বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী

প্রকাশের সময় : ২১ আগস্ট, ২০১৬, ১২:০০ এএম

টাঙ্গাইল জেলা সংবাদদাতা : কৃষক শ্রমিক জনতালীগে সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী বীরউত্তম বলেছেন, শেখ হাসিনা চেষ্টা করলে দেশকে গণতন্ত্রের দিকে নিয়ে যেতে পারতেন। কিন্তু তার সেই সুযোগ নেই। কারণ বর্তমান আওয়ামী লীগ এখন আর বঙ্গবন্ধুর আদর্শের আওয়ামী লীগ নেই। আওয়ামী লীগ এখন লুটেরাদের দলে পরিণত হয়েছে। বঙ্গবন্ধুকে যারা হত্যা করেছে তারা আজ এই দলে ও সরকারে অনেকেই বড় বড় পদে ঠাঁই পেয়েছেন।
তিনি গতকাল শনিবার সন্ধায় তার টাঙ্গাইল শহরস্থ বাসভবনে জেলা কৃষক শ্রমিক জনতালীগ আয়োজিত বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত উত্তরবঙ্গের বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ কার্যক্রম ও দেশের বর্তমান বিরাজমান পরিস্থিতি নিয়ে দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন। জেলা কৃষক শ্রমিক জনতালীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা এএইচএম আব্দুল হাই’র সভাপতিত্বে বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী মতবিনিময় সভায় আরো বলেন, মানুষকে মানুষ খাবার দিয়ে বাঁচাতে পারে না। বুদ্ধি দিয়ে বাঁচায়। উত্তরাঞ্চলের দুর্গত বন্যাকবলিত মানুষকে সাহস ও শক্তি যোগানের জন্য তাদের পাশে দাঁড়িয়েছি। তাদের সহানুভূতি প্রকাশ করতে সেখানে গিয়েছিলাম। সাধ্যমত তাদের হাতে খাবার তুলে দিয়েছি।
তিনি আরো বলেন, কালিহাতীর উপনির্বাচনে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে সরকারের কোন লাভ হয়নি। বরং সরকারের আরো ক্ষতি হয়েছে। তিনি বলেন, গামছা নির্বাচিত হলে, গণতন্ত্রের বিজয় হতো। সরকার লাভবান হতো। সরকার বন্যা দুর্গত মানুষের পাশে না থেকে বন্যায় ভেসে আসা হাতি নিয়ে ৫৩ দিন ব্যস্ত ছিল। উত্তরাঞ্চলে বন্যার্ত মানুষের পাশে পর্যাপ্ত ত্রাণসামগ্রী পৌঁছেনি। সেখানকার মানুষ অসহায় অবস্থায় জীবনযাপন করছে। তিনি আরো বলেন, আমি শেখ হাসিনার সমালোচনা করি না। তার কাজ কর্মের সমালোচনা করি।
এ সময় অন্যান্যের মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন, কৃষক শ্রমিক জনতালীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক হাবিবুর রহমান তালুকদার খোকা বীরপ্রতিক, জেলা সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট রফিকুল ইসলাম রফিক, জেলা সহ-সভাপতি এডভোকেট হাসান আলী রেজা, কালিহাতী উপজেলা সভাপতি হাসমত আলী নেতা, যুব আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সভাপতি হাবিবুন নবী সোহেল, নাগরপুর উপজেলা সাধারণ সম্পাদক দীলিপ ধর সেন্টু, বাবুল সিদ্দিকী, অধ্যাপক মীর জুলফিকার আলী শামীম ও বাসাইল উপজেলা সাধারণ সম্পাদক রাহাত হাসান টিপু প্রমুখ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন