Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ২৩ জানুয়ারি ২০২১, ০৯ মাঘ ১৪২৭, ০৯ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

কুমারখালীতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ

মুহাম্মদ (সা.)কে নিয়ে কটূক্তিকারীর ফাঁসি দাবি

স্টাফ রিপোর্টার, কুষ্টিয়া থেকে : | প্রকাশের সময় : ৫ ডিসেম্বর, ২০২০, ১২:০০ এএম

মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)কে নিয়ে ফেসবুকে কটূক্তি ও অবমাননাকারী একরামুল হকের ফাঁসির দাবিতে কুষ্টিয়ার কুমারখালীতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। ধর্মপ্রাণ মুসল্লিদের আয়োজনে গতকাল শুক্রবার বাদ জুমা বাঁশগ্রাম বাজারে মানববন্ধন শেষে বাঁশগ্রাম কলেজ মাঠে বিক্ষোভ সমাবেশ করেন এলাকাবাসী। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বাঁশগ্রামের পীর মাওলানা রওশন হাজী, বাঁশগ্রাম বণিক সমিতির সভাপতি সামছুজ্জামান হাকিম প্রমুখ। এসময় হাজার হাজার ধর্মপ্রাণ মুসল্লি উপস্থিত ছিলেন। সমাবেশে বক্তারা মহানবী (সা.)কে নিয়ে কটূক্তি ও অবমাননাকারী একরামুল হকের কর্মকান্ডের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানায় এবং দ্রুত সুষ্ঠু বিচারের কার্যক্রম সম্পন্ন শেষে ফাঁসির দাবি জানান। বিক্ষোভ শেষে অভিযুক্ত ব্যক্তির পুত্তলিকা বানিয়ে জুতাপেটা ও আগুনে পুড়ায় উপস্থিত উৎসুক জনতা। উল্লেখ্য, সদর উপজেলার গোপালপুর গ্রামের মৃত শাহাদতের ছেলে ও বাঁশগ্রাম ছন্দা স্টুডিও-এর স্বত্তাধিকারী একরামূল হক (৪২) জহুরা খাতুন নামে ফেসবুকে ফেক আইডি খুলে হযরত মুহাম্মদ (সা.) কে নিয়ে কটূক্তিমূলক পোস্ট দেয়। বিষয়টি জানাজানি হলে গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বাঁশগ্রাম ছন্দ স্টুডিও ঘেরাও করে স্থানীয় ধর্মপ্রাণ মানুষ। পরবর্তীতে বাঁশগ্রাম পুলিশ ক্যাম্পের সদস্যরা তাকে উদ্ধার করে পুলিশ হেফাজতে নেই। এঘটনায় বাঁশগ্রাম বাজারের গার্মেন্টস ব্যবসায়ী আব্দুল জব্বার কুমারখালী থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করেন।

এ বিষয়ে কুমারখালী থানার ওসি মজিবুর রহমান বলেন, ফেসবুকে মুহাম্মদ (সা.) কে নিয়ে কটূক্তি করায় একরামকে গ্রেফতার করে আদালতে সোপার্দ করা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: মানববন্ধন-বিক্ষোভ
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ