Inqilab Logo

ঢাকা রোববার, ১৭ জানুয়ারি ২০২১, ০৩ মাঘ ১৪২৭, ০২ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

আগে নিজেদের আচরণ ঠিক করুন: ইউরোপকে জারিফ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৫ ডিসেম্বর, ২০২০, ৯:৩৫ এএম

ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের পরমাণু সমঝোতা সম্পর্কে জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী হেইকো মাস যে বক্তব্য দিয়েছেন তার কঠোর প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছে তেহরান। ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফ বলেছেন, ইরানকে লেকচার দেয়ার আগে পরমাণু সমঝোতায় ইউরোপীয় পক্ষকে সর্বপ্রথমে তাদের নিজেদের ক্ষতিকর আচরণ পরিবর্তন করতে হবে।

জার্মান পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, ২০১৫ সালে সই হওয়া পরমাণু সমঝোতার ব্যাপারে ইরানকে আবার আলোচনায় ফিরতে হবে। একই সঙ্গে তিনি ইরানের জাতীয় প্রতিরক্ষা কর্মসূচি নিয়েও কথা বলেছেন।

জার্মানির প্রভাবশালী দার স্পাইগেল ম্যাগাজিনকে দেয়া সাক্ষাৎকারে হেইকো মাস অনেকটা আমেরিকার সুরে কথা বলেছেন। তিনি বলেন, ইরানের পরমাণু কর্মসূচির সঙ্গে দেশটির কনভেনশনাল মিসাইল প্রোগ্রাম এবং মধ্যপ্রাচ্যে ইরানের ভূমিকা নিয়েও আলোচনা হতে হবে। গতকাল (শুক্রবার) তার এ সাক্ষাৎকার প্রকাশিত হয়েছে।
 
হেইকো মাস বলেন, “আগের চুক্তিতে ফিরে আসাই যথেষ্ট নয় বরং পরমাণু সমঝোতার পাশাপাশি আরো কিছু বিষয় নিয়ে আলোচনা হওয়া প্রয়োজন যা আমাদের স্বার্থ রক্ষা করবে।”

হেইকো মাস কোন রাখঢাক না রেখেই বলেছেন, ইউরোপীয় দেশগুলো সুস্পষ্টভাবে আশা করে যে ইরানের হাতে যেমন কোন পরমাণু অস্ত্র থাকবে না তেমনি তার কাছে কোনো ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি থাকবে না। ইরানের এ ধরনের কর্মসূচি পুরো অঞ্চলকে ঝুঁকির মুখে ফেলেছে বলে তিনি দাবি করেন। পাশাপাশি মধ্যপ্রাচ্য অঞ্চলে ইরানের ভূমিকায় পরিবর্তন আনতে হবে বলেও তিনি মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, “এ সমস্ত বিষয়ে চুক্তি দরকার এই কারণে যে, আমরা ইরানকে বিশ্বাস করি না।”

হেইকো মাসের এ সমস্ত কথার জবাবে ইরানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, জার্মানি, ফ্রান্স  এবং ব্রিটেনসহ ইউরোপের দেশগুলোকে মধ্যপ্রাচ্যে তাদের ভূমিকা এবং ব্যর্থতা নিয়ে পর্যালোচনা করা উচিত। পাশাপাশি ২০১৮ সালের মে মাসে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পর ইউরোপের দেশগুলোর ব্যর্থতার বিষয়টিও তাদের হিসাব করা দরকার। এছাড়া, পারস্য উপসাগরীয় অঞ্চলে হাজার হাজার কোটি ডলারের অস্ত্র বিক্রি করছে এসব দেশ এবং ইহুদিবাদী ইসরাইলকে অন্ধভাবে সমর্থন দিয়ে আসছে- সেগুলো বন্ধ হওয়া দরকার।

সূত্র: পার্সটুডে



 

Show all comments
  • MD. Mohsin Sikder ৫ ডিসেম্বর, ২০২০, ২:৩৮ পিএম says : 0
    ইউরোপীয়দের শয়তানী আচরনের পরিবর্তন আগে আনতে হবে তারা মানুষ হলেই অন্য কে নিয়ে সমালোচনা করতে পারবে। তাদের ইতিহাস শয়তানিতে পরিপূর্ণ।
    Total Reply(0) Reply
  • MD. Mohsin Sikder ৫ ডিসেম্বর, ২০২০, ২:৩৮ পিএম says : 0
    ইউরোপীয়দের শয়তানী আচরনের পরিবর্তন আগে আনতে হবে তারা মানুষ হলেই অন্য কে নিয়ে সমালোচনা করতে পারবে। তাদের ইতিহাস শয়তানিতে পরিপূর্ণ।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: জারিফ
আরও পড়ুন