Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ১৮ জানুয়ারি ২০২১, ০৪ মাঘ ১৪২৭, ০৪ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

৮ নভেম্বর বিজয় দিবস আজারবাইজানে

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৬ ডিসেম্বর, ২০২০, ১২:০১ এএম

আর্মেনিয়ার বিপক্ষে নাগরনো-কারাবাখ নিয়ে যুদ্ধে ১০ নভেম্বর জয়ী হয়েছে আজারবাইজান। সে কারণে দেশটি প্রতি বছর ১০ নভেম্বর বিজয় দিবস হিসেবে পালন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। কিন্তু এই দিনটি আধুনিক তুরস্কের প্রতিষ্ঠাতা মুস্তাফা কামাল আতাতুর্কের মৃত্যু দিবস হওয়ায় দুইদিন পিছিয়ে আজারবাইজান ৮ নভেম্বরকে বিজয় দিবস হিসেবে নির্ধারণ করেছে। এখন থেকে প্রতি বছর ৮ নভেম্বর দেশটির বিজয় দিবস হিসেবে পালন করা হবে। বৃহস্পতিবার দেশটির প্রেসিডেন্ট ইলহাম আলিয়েভ এমনটাই ঘোষণা দিয়েছেন। আজারবাইজানের জাতীয় নেতা ও সাবেক প্রেসিডেন্ট হায়দার আলিয়েভ বলেছিলেন, ‘মুস্তফা কামাল আতাতুর্ক তুরস্কের মানুষের কাছে প্রিয়। তাকে সবাই সম্মান করে। তিনি আজারবাইজানের মানুষের কাছেও প্রিয় এবং তাকে আমরাও সম্মান করি।’ নাগরনো-কারাবাখ নিয়ে আর্মেনিয়ার সঙ্গে ৪২ দিন যুদ্ধ করে আজারবাইজান। এরপর রাশিয়ার মধ্যস্ততায় তারা আর্মেনিয়াকে বাধ্য করে নাগরনো-কারাবাখ ছেড়ে যেতে। এই যুদ্ধে যারা শহীদ হয়েছেন তাদের উদ্দেশে ৪ ডিসেম্বর জাতীয়ভাবে ১ মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। আনাদোলু এজেন্সি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আজারবাইজান


আরও
আরও পড়ুন