Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ২৩ জানুয়ারি ২০২১, ০৯ মাঘ ১৪২৭, ০৯ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

গ্রিনের বদলে লায়ন, সিরিজ শেষ জাদেজার

ভারত দলের অস্ট্রেলিয়া সফর

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৬ ডিসেম্বর, ২০২০, ১২:০০ এএম

টেস্ট দলের নিয়মিত সদস্য হলেও সীমিত ওভারের ক্রিকেটে অস্ট্রেলিয়া দলে খুব একটা জায়গা হয় না ন্যাথান লায়নের। দুই বছর পর টি-টোয়েন্টি খেলার সুযোগ এসেছে তার সামনে। এই অফ স্পিনার ডাক পেয়েছেন ভারতের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজের বাকি দুই ম্যাচের দলে। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া জানায়, ক্যামেরন গ্রিনের বদলি হিসেবে লায়নকে নেওয়া হয়েছে। ভারতের বিপক্ষে ওয়ানডে দিয়ে আন্তর্জাতিক পথচলার শুরু হওয়া এই তরুণ অলরাউন্ডার আছেন অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট দলেও। লাল বলের ক্রিকেটে মনোযোগ দিতে রোববার থেকে শুরু হওয়া অস্ট্রেলিয়া ‘এ’ দলের ম্যাচের জন্য ছেড়ে দেওয়া হয়েছে তাকে।

ভারতের বিপক্ষে তিন দিনের এই প্রস্তুতি ম্যাচে গ্রিনের সঙ্গে খেলবেন টেস্ট দলের অধিনায়ক টিম পেইন, জো বার্নস, ট্রাভিস হেড, মাইকেল নেসার, জেমস প্যাটিনসন ও উইল পাকোভস্কি। চোট সমস্যায় টি-টোয়েন্টি সিরিজ থেকে ছিটকে পড়েছেন অ্যাশটন অ্যাগার, ডেভিড ওয়ার্নার। প্যাট কামিন্সকে দেওয়া হয়েছে বিশ্রাম। মার্কাস স্টয়নিস দলে থাকলেও তার খেলা এখনও নিশ্চিত নয়। সামান্য চোট আছে মিচেল স্টার্কেরও। অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চকে নিয়েও রয়েছে শঙ্কা। গত সপ্তাহেই তাই কাভার হিসেবে মিচেল সোয়েপসন, ডারসি শর্ট ও লায়নকে বিবেচনায় রাখে অস্ট্রেলিয়া। সোয়েপসন ও শর্ট এরই মধ্যে প্রথম টি-টোয়েন্টি খেলেছেন। এবার দলে নেওয়া হয়েছে লায়নকেও।
২০১১ সালে টেস্ট দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পা রাখা লায়নের টি-টোয়েন্টি অভিষেক হয় পাঁচ বছর পর। এখন পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়ার হয়ে কেবল দুটি ম্যাচ খেলেছেন তিনি, উইকেট একটি।
এদিকে, হেলমেটে বল লাগার পর প্রথম টি-টোয়েন্টির মাঝপথে ছিটকে গিয়েছিলেন রবীন্দ্র জাদজা। এবার সিরিজের বাইরেও চলে গেলেন তিনি। টি-টোয়েন্টি সিরিজে আর দেখা যাবে না এই অলরাউন্ডারকে। তার বদলে ভারতের টি-টোয়েন্টি স্কোয়াডে যুক্ত করা হয়েছে পেসার শার্দুল ঠাকুরকে।
গতপরশু ক্যানবেরায় অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে মিচেল স্টার্কের একটি শর্ট বল জাদেজার ব্যাটের কানা ছুঁয়ে লাগে হেলমেটে। বল উড়ে যায় পয়েন্টের দিকে, ফিল্ডার নিতে পারেননি ক্যাচ। ওই আঘাতের পরও ব্যাটিং চালিয়ে যান জাদেজা। তার ২৩ বলে ৪৪ রানের ঝড়ো ইনিংস বিপর্যয় থেকে উদ্ধার করে দলকে। মাঠে তার কনকাশন পরীক্ষা করা হয়নি। খুব একটা অস্বস্তিতেও তাকে দেখা যায়নি। বরং তার হ্যামস্ট্রিংয়ে টান লেগেছে বলে মনে হচ্ছিল। কিন্তু হেলমেটে ওই আঘাতের কারণে বোলিংয়ের সময় জাদেজার ‘কনকাশন বদলি’ হিসেবে যুজবেন্দ্র চেহেলকে নামায় ভারত। ম্যাচের পর ভারতীয় দলের মেডিকেল টিম জানায়, মাঝবিরতিতে পরীক্ষা করে জাদেজার কনকাশন নিশ্চিত হওয়া গেছে। আপাতত তাকে পর্যবেক্ষণে রাখা হবে। পরবর্তীতে আবার স্ক্যান করে নেওয়া হবে সিদ্ধান্ত।
এই ম্যাচে জাদেজার কনকাশন বদলি নিয়ে বিতর্কও চলছে। ম্যাচের সময়ই ম্যাচ রেফারি ডেভিড বুনের সঙ্গে কথা বলতে দেখা যায় অস্ট্রেলিয়ার কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গারকে। সেখানে ছিলেন অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক অ্যারন ফিঞ্চও। ল্যাঙ্গারের অভিব্যক্তিতে বিরক্তির ছাপ ছিল স্পষ্ট। বদলি নেমে চেহেলই বদলে দেন ম্যাচের মোড়। অস্ট্রেলিয়া ব্যাটিংয়ে দারুণ শুরু করলেও চেহেলের বোলিংয়েই তারা পথ হারায়। ভারতের ১১ রানের জয়ে ৩ উইকেট নিয়ে ম্যাচ সেরা এই লেগ স্পিনারই।
নিয়ম অনুযায়ী কনকাশন বদলি ভারতের পাওয়ারই কথা। তবে ম্যাচ শেষে অলরাউন্ডার মোইজেস হেনরিকস জানান, বদলি করা নিয়ে তাদের আপত্তি নেই। তবে অস্ট্রেলিয়ার সংশয়ের জায়গা বদলি যাকে নেওয়া হয়েছে, তাকে নিয়ে। নিয়ম অনুযায়ী, বদলি নিতে হলে ঠিক একইরকম ক্রিকেটার হতে হবে। কিন্তু জাদেজা বাঁহাতি ফিঙ্গার স্পিনার, চেহেল ডানহাতি রিস্ট স্পিনার। জাদেজা পাশাপাশি ব্যাটসম্যানও, চেহেল ব্যাট করেন ১০-১১ নম্বরে। অস্ট্রেলিয়া অবশ্য এই প্রসঙ্গ আর বাড়াবে না বলেই জানান হেনরিকস।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: লায়ন

১৫ অক্টোবর, ২০২০
৬ আগস্ট, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন