Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ১৮ জানুয়ারি ২০২১, ০৪ মাঘ ১৪২৭, ০৪ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

যুবকের পচা লাশ খাটের নিচে

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ৬ ডিসেম্বর, ২০২০, ১২:০০ এএম

খুনের পর ঘাটের নীচে তিনদিন পড়ে ছিলো লাশটি। দুর্গন্ধ ছড়ালে প্রতিবেশিরা থানায় খবর দেন। পরে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে। চাঞ্চল্যকর এ খুনের ঘটনাটি ঘটেছে নগরীর টেরিবাজারে। খুনের শিকার মাধব দেবনাথের (২৪) বাড়ি কুমিল্লায়। তিনি টেরিবাজারের পাশের এলাকা স্বর্ণের বাজারখ্যাত হাজারী লেইনে একটি গহনার কারখানায় কাজ করতেন। যে বাসা থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়েছে সে পিন্টু দেবনাথ তার মামাতে ভাই। তিনিও একই কারখানায় কাজ করেন। পিন্টুসহ ওই বাসা থেকে ছয় জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। পুলিশ জানায় তাকে শ্বাস রোধ করে হত্যার পর লাশ লুকিয়ে রাখা হয়। লাশের হাত-পা বাঁধা ছিলো রশি দিয়ে। থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসীন বলেন, মাধবের মামাতো ভাই পিন্টু দেবনাথের বাসায় লাশটি পাওয়া গেছে। 

একই বাসায় পিন্টু ও তার স্ত্রী, তার ছোট দুই ভাই এবং মা-বাবা থাকেন। আর মাধব থাকতেন লালদিঘীর পাড়ে একটি ব্যাচেলর বাসায়। শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে পিন্টু ফোন করে থানায় জানান, তার আত্মীয় মাধবকে তিনদিন ধরে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না। পরে স্থানীয়রা ওই বাসা থেকে লাশের দুর্গন্ধ পাওয়ার তথ্য দেন। এ তথ্য পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধারের পাশাপাশি পিন্টু, তার বাবা-মা, দুই ভাই, স্ত্রীসহ ছয় জনকে আটক করে নিয়ে যায়। মাধবের হাত-পা বাঁধা ছিল। গলায় শ্বাসরোধের চিহ্ন। লাশ কিছুটা পচে গেছে। ওসি জানান তাদের মধ্যে বিবাহবহির্ভূত সম্পর্ক আছে। এর জের ধরে হত্যাকান্ড হয়েছে বলে ধারণা করছি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পচা-লাশ
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ