Inqilab Logo

শনিবার, ৩১ জুলাই ২০২১, ১৬ শ্রাবণ ১৪২৮, ২০ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

ভাস্কর্য নিয়ে স্ট্যাটাস দেয়ায় ছাত্রলীগ দুই কেন্দ্রীয় নেতা স্থায়ী বহিষ্কার

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৭ ডিসেম্বর, ২০২০, ১১:৩৬ এএম

এবার ভাস্কর্য নিয়ে স্ট্যাটাসের জেরে ছাত্রলীগ থেকে স্থায়ী বহিষ্কার হয়েছেন দু’জন নেতা। তারা হলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কবি জসীমউদদীন হল শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কবির হোসাইন ও পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের ছাত্রবৃত্তি বিষয়ক সম্পাদক খালেদ খান রবিন।

কবির হোসাইন ১লা ডিসেম্বর ফেসবুকে লেখেন, মামুনুল হক যদি কুরআনের ভুল ব্যাখ্যা করে, তার কণ্ঠনালী কেটে দাও, যদি কুরআন ভাস্কর্যের বিরুদ্ধে কথা বলে, আল্লাহ এটাকে হারাম করে, তবে কোন বাপের বেটা এটাকে হালাল করার সাহস রাখে? কুরআনোর বিরোধিতা যেই করবে তার বিরুদ্ধে দাঁড়াতে ১ সেকেন্ডও অপেক্ষা করবে না ঈমানদাররা! হোক সে মামুনুল হক, মুজিব, জিয়া! হোক সে আওয়ামী লীগ, বিএনপি, বাম বা জামায়াতি!
ইসলামের প্রতিনিধিত্ব রহিমুদ্দি, সলিমুদ্দি, কলীমুদ্দিরা করে না, স্বয়ং আল্লাহর রাসূল করেন! ইসলাম শিখতে হলে কুরআন হাদিসের জ্ঞান অর্জন করতে হবে, মনগড়া যুক্তি খাটবে না! একটা কথা মাথায় রাখবেন, আল্লাহর কোন আইন যদি আপনি না পালন করতে পারেন, সেটা অন্য কথা! তবে যদি তার কোন আইনের বিরোধিতা করা তো দূরের কথা, অস্বীকারও যদি করেন, আর নিজেকে যতই ঈমানদার দাবি করেন না কেন, মনে রাখবেন, আপনি খাঁটি মুসলমান না, পাক্কা মুনাফিক! আপনার বিরুদ্ধে লড়াই করাও খাঁটি মুসলমানের জন্য ফরজ!
৫ই ডিসেম্বর শনিবার বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে তাকে বহিষ্কারের বিষয়ে জানানো হয়। এতে বলা হয়েছে, সংগঠনের কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের এক জরুরি সিদ্ধান্ত মোতাবেক জানানো যাচ্ছে যে, সংগঠনের নীতি-আদর্শ ও শৃঙ্খলা পরিপন্থী কার্যকলাপে জড়িত থাকায় কবির হোসাইনকে (যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, কবি জসীমউদদীন হল শাখা) ছাত্রলীগ থেকে স্থায়ী বহিষ্কার করা হলো।


খালেদ খান রবিনকেও স্থায়ী বহিষ্কার করেছে সংগঠনটি। একই দিন শনিবার সংগঠনটির কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি জানানো হয়েছে।

এর আগে গত ২৪শে নভেম্বর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে খালেদ লিখেন, বঙ্গবন্ধুর প্রতি পূর্ণ শ্রদ্ধা রেখে, বঙ্গবন্ধুকে ভালোবেসে, বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণের বিরোধীতা করছি। একটা কথা স্পষ্ট হওয়া উচিত যে, বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণের বিরোধীতা করা আর বঙ্গবন্ধুর বিরোধীতা করা এক বিষয় না। আর এই একটি কথার জন্য যদি ছাত্রলীগের জন্য দেওয়া আমার হাজার দিনের শ্রম এক নিমিষেই শেষ হয়ে যায়, তাহলে... আলহামদুলিল্লাহ।।



 

Show all comments
  • Md.Belayet Hossain Molla ৭ ডিসেম্বর, ২০২০, ১২:০৬ পিএম says : 0
    আলহামদুলিল্লাহ।।
    Total Reply(0) Reply
  • Tareq Sabur ৭ ডিসেম্বর, ২০২০, ১২:১০ পিএম says : 0
    People realize now what awamileagues want to do in Bangladesh.
    Total Reply(0) Reply
  • Abu Nayem ৭ ডিসেম্বর, ২০২০, ১২:৪২ পিএম says : 0
    ইসলামের পথই সঠিক পথ। যে যেই দলই করুক না কেন ইসলামের বিষয় সবাইকে এক হতে হবে।
    Total Reply(0) Reply
  • Jack Ali ৭ ডিসেম্বর, ২০২০, ১:১৫ পিএম says : 0
    Both of them 100% right as such Idol worshipper oust them from Awami League. InshaAllah will give them them the highest Jannah Jannatul Ferdous. Alem's are the Inheritor of Rasul. Those who oppose they oppose Allah and His Rasul. So those wage war against Allah and His Rasul, their Punishment is: Surah Al-Maidah:Ayat: 5::33 Surely the only punishment of (the ones) who war against Allah and His Messenger and (diligently) endeavour to do corruption in the earth, is that they should be (all) massacred or crucified, or that their hands and legs should be cut apart alternately or that they should be exiled from the land. That is a disgrace for them in the present (life), (Literally: the lowly "life", i.e., the life of this world) and in the Hereafter they will have a tremendous torment.
    Total Reply(0) Reply
  • Jack Ali ৭ ডিসেম্বর, ২০২০, ১:১৮ পিএম says : 0
    Sura 86: Ayat:13>> Verily this [The Qur’an] is the Word that separates [the truth from falsehood, and commands strict laws for mankind to cut the roots of evil] Sura:87: Ayat: 3:>> And Who has measured [preordainments for everything even to be blessed or wretched], and then guided [i.e. showed mankind the right as well as the wrong paths, and guided the animals to pasture Sura:88: Ayat: 6:> No food will there be for them but a poisonous thorny plant. Sura:88: Ayat: 7 :> Which will neither nourish nor avail against hunger. Sura:90: Ayat: 4:> Verily, We have created man in toil Sura:88: Ayat: 5:> Dose he think that none can overcome him? Sura:88: Ayat: 6:> He says [boastfully ], “I have wasted wealth in abundance!” Sura:88: Ayat: 7:> Dose he thinks that none sees him?? Sura:88: Ayat: 8:> Have We not made for him two eyes? Sura:88: Ayat: 9:> And a tongue and two lips? Sura:88: Ayat: 10:> And shown him the two ways [good and evil] Sura:88: Ayat: 11:> But he has not attempted to pass on the path is siratul mustaquim [I.e. the path lead to goodness and success]
    Total Reply(0) Reply
  • মো রুবেল ৮ ডিসেম্বর, ২০২০, ৯:৫২ এএম says : 0
    যারা মু্র্তির পক্ষে স্লোগান দেই তারা কি ভাবে নিজেকে মুসলমান দাবি করে
    Total Reply(0) Reply
  • মো রুবেল ৮ ডিসেম্বর, ২০২০, ৯:৫২ এএম says : 0
    যারা মু্র্তির পক্ষে স্লোগান দেই তারা কি ভাবে নিজেকে মুসলমান দাবি করে
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বহিষ্কার


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ