Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ২০ জুন ২০২১, ০৬ আষাঢ় ১৪২৮, ০৮ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

শীতে ওয়ালটনের দু’শ মডেলের হোম অ্যাপ্লায়েন্স

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১২ ডিসেম্বর, ২০২০, ৫:৫৫ পিএম

শীত পড়েছে। এলো পৌষ। বাড়ছে শীতের তীব্রতা। একই সঙ্গে সারা দেশে বাড়ছে শীতে ব্যবহার্য হোম অ্যাপ্লায়েন্সের চাহিদা। বরাবরের মতো এই চাহিদার সিংহভাগ পূরণের টার্গেট নিয়ে প্রস্তুত দেশের ইলেকট্রনিক্স জায়ান্ট ওয়ালটন। দেশের সর্বত্র ওয়ালটন শোরুমগুলোতে পাওয়া যাচ্ছে ওয়াশিং মেশিন, রুম হিটার, গিজার বা ওয়াটার হিটার, ওভেন, রাইস কুকার, ইলেকট্রিক কেটলি, ইন্ডাকশন কুকার, আয়রন, ব্লেন্ডার ও জুসারসহ দুইশ মডেলের হোম অ্যাপ্লায়েন্স। পণ্যের ডিজাইন ও কালারে এসেছে বৈচিত্র্য। যুক্ত হয়েছে অসংখ্য নতুন মডেলের পণ্য। রয়েছে বিশেষ ক্রেতা সুবিধা।

শীত উপলক্ষে হোম অ্যাপ্লায়েন্স ক্রেতাদের পণ্য ভেদে বিশেষ সুবিধা দিচ্ছে ওয়ালটন। শীতে দেশের যেকোনো ওয়ালটন প্লাজা ও পরিবেশক শোরুম থেকে ওয়াশিং মেশিন অথবা মাইক্রোওয়েভ ওভেন কিনে রেজিস্ট্রেশন করলেই ক্রেতারা ৫০০ শতাংশ পর্যন্ত নিশ্চিত ক্যাশ ভাউচার কিম্বা ফ্রিজ, এসি, টিভিসহ অসংখ্য পণ্য ফ্রি পাচ্ছেন। সারা দেশে চলমান ডিজিটাল ক্যাম্পেইন সিজন-৮ এর আওতায় ওয়াশিং মেশিন ও মাইক্রোওয়েভ ওভেন ক্রয়ে এই সুবিধা দিচ্ছে ওয়ালটন।

এদিকে ওয়ালটন ই-প্লাজা থেকে অনলাইনে হোম অ্যাপ্লায়েন্স কেনার ক্ষেত্রে ক্রেতারা পাচ্ছেন ৫ শতাংশ নগদ ছাড়সহ জিরো ইন্টারেস্টে সর্বোচ্চ ৬ মাসের ইএমআই সুবিধা।

ওয়ালটন হোম অ্যাপ্লায়েন্সের প্রোডাক্ট ম্যানেজার জানেসার আলী জানান, দেশের সর্বত্র ওয়ালটন শোরুমগুলোতে ক্রেতারা পাচ্ছেন একই ছাদের নিচে বৈচিত্র্যময় ডিজাইন ও অত্যাধুনিক প্রযুক্তির উন্নতমানের সর্বোচ্চ সংখ্যক মডেলের হোম অ্যাপ্লায়েন্স। ক্রেতারা ৬ হাজার ৯৯০ টাকা থেকে ১৯ হাজার টাকার মধ্যে পাচ্ছেন ৯ মডেলের মাইক্রোওয়েভ ওভেন পাচ্ছেন। এসব ওভেনে মাছ-মাংস ডিফ্রস্ট করার পাশাপাশি খুব সহজেই নানান স্বাস্থ্যকর খাবার তৈরি করা যায়। ক্রেতারা পাচ্ছেন ওয়ালটনের ইনভার্টার প্রযুক্তির অটোমেটিক ও সেমি-অটোমেটিক টপ ও ফ্রন্ট লোডিং সিস্টেমসমৃদ্ধ ১৪ মডেলের ওয়াশিং মেশিন। ৬ থেকে ১২.৫ কেজি পর্যন্ত ধারণক্ষমতার এসব ওয়াশিং মেশিন ৬ হাজার ৯’শ থেকে ৪৮ হাজার টাকার মধ্যে কেনা যাবে। ওয়ালটন ওয়াশিং মেশিন যেমন দামে সাশ্রয়ী, তেমনি আন্তর্জাতিকমানেরও। তাই, এ বছর স্থানীয় বাজারে ওয়ালটন ওয়াশিং মেশিনের গ্রাহক চাহিদা যেমন ব্যাপক বেড়েছে, তেমনি বিক্রিও বেশ সন্তোষজনক। বেড়েছে রপ্তানিও। নেপাল, ইয়েমেন, পূর্ব তিমুর ইত্যাদি দেশের পাশাপাশি সম্প্রতি বাংলাদেশ থেকে নতুন পণ্য হিসেবে ভারতে রপ্তানি হচ্ছে ওয়ালটনের তৈরি ওয়াশিং মেশিন।

ওয়ালটনের শীতকালীন হোম অ্যাপ্লায়েন্সের মধ্যে আরো রয়েছে ১০ মডেলের রুম হিটার, ৫ মডেলের ওয়াটার হিটার বা গিজারসহ অনেকগুলো মডেলের রাইস কুকার, ব্লেন্ডার ও জুসার, আয়রন বা ইস্ত্রি মেশিন, ইলেকট্রিক কেটলি; ওয়াটার পিউরিফায়ার, ইলেকট্রিক মাল্টিকুকার, ইলেকট্রিক লাঞ্চ বক্স, স্ট্যান্ড মিক্সার বা বিটার মেশিন, হেয়ার ক্লিপার, ট্রিমার ও শেভার মেশিন।

ওয়ালটন হোম অ্যাপ্লায়েন্স বিভাগের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা প্রকৌশলী আল ইমরান বলেন, স্থানীয় বাজারে ওয়ালটন হোম অ্যাপ্লায়েন্সের চাহিদা ও বিক্রি বেড়েছে কয়েকগুণ। বিশেষ করে গত কয়েক বছর শীত মৌসুমে ওয়াশিং মেশিন, মাইক্রোওয়েভ ওভেন, রুম হিটার, গিজার, ব্লেন্ডার অ্যান্ড জুসার, রাইস কুকার, গ্যাস স্টোভ, কেটলিসহ আরো বেশ কিছু হোম অ্যাপ্লায়েন্সের চাহিদা অত্যধিক বেড়ে যায়। এই শীতেও হোম অ্যাপ্লায়েন্সের বর্ধিত চাহিদার সিংহভাগ পূরণের টার্গেট নিয়েছে ওয়ালটন।

দেশের ইলেকট্রনিক্স, ইলেকট্রিক্যাল, হোম ও কিচেন এ্যাপ্লায়েন্স খাতে একমাত্র ওয়ালটনেরই রয়েছে আইএসও স্ট্যান্ডার্ড সার্ভিস ম্যানেজমেন্ট সিস্টেমের আওতায় দেশব্যাপী ৭৬টি সার্ভিস সেন্টার। যেখানে কাজ করছেন আড়াই হাজারের বেশি সার্ভিস এক্সপার্টস। তারা গ্রাহকদের দ্রুত ও সর্বোত্তম বিক্রয়োত্তর সেবা পৌঁছে দিচ্ছেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ওয়ালটন


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ