Inqilab Logo

বুধবার, ১৭ আগস্ট ২০২২, ০২ ভাদ্র ১৪২৯, ১৮ মুহাররম ১৪৪৪
শিরোনাম

কোটালীপাড়া পৌরসভার কোটি টাকার দৃস্টি নন্দন প্রকল্পের উন্নয়ন কাজ বন্ধ থাকায় এলাকাবাসীর ক্ষোভ

কোটালীপাড়া ( গোপালগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৫ ডিসেম্বর, ২০২০, ২:১০ পিএম

গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া পৌরসভার কোটি টাকার দৃস্টি নন্দন প্রকল্পের কাজ বন্ধ থাকায় তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছে এলাকাবাসী।তারা অনতি বিলম্বে কাজটি সম্পন্ন করতে সংশ্লিষ্ট বিভাগের কাছে দাবী জানিয়েছেন।


পৌরসভা কার্যালয় সুত্রে জানাগেছে সাবেক কোটালীপাড়া উপজেলা পরিষদ ভবনের পুর্বপাশের পুকুরে পিসিসি ব্লক এবং ফুটপাত নির্মান ও সুন্ধর্য বর্ধনের লক্ষে তৃত্বীয় নগর পরিচালনা ও অবকাঠামো উন্নতি করন সেক্টর প্রকল্পের আওতায় ৮২ লক্ষ ৯২ হাজার ৯ শত টাকা ব্যয়ে একটি দৃস্টি নন্দন প্রকল্প হাতে নেয় পৌরসভা। প্রকল্পটি বাস্তবায়নে এলজিইডি প্রায় ৪০/; কাজ বাস্তবায়ন করেন এর মধ্যে অদৃশ্য একটি শক্তির অভিযোগের কারনে জেলা প্রশাসকের নির্দেশে কাজটি বন্ধ করে দেন ঠিকাদার এতে এলাকাবাসীর মধ্যে তীব্র ক্ষোভের সৃস্টি হয়।


আজ মঙ্গলবার পৌরসভায় বসবাসরত সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দ ক্ষোভ প্রকাশ করেন। বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজ সেবক মোতাহার

হোসেন সরদার ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন পুকুরটা সংস্কার করে ফুটপাত প্রসশ্ত করা হলে উপজেলায় আগত হাজার,হাজার দর্শনার্থীরা এসে পুকুরের পারে একটু বসতে পারবে এতে পুকুরেরও সুন্ধর্য বৃদ্ধি হবে এবং এলাকাবাসীর শরীর চর্চা ও চলাচলের পথ সুগম হবে,এ ধরনের উন্নয়ন কাজে যারা বিরোধীতা করছে তারা কখনোই সরকারের ভালো চায়না আমি তাদের ঘৃনাভরে প্রত্যাক্ষান করি।


আওয়ামীলীগ নেতা মিজানুর রহমান বুলবুল বলেন স্বাধীনতা বিরোধী একটি চক্র পৌর সভার উন্নয়ন প্রকল্পের কাজে বাধাগ্রস্হ করে বিলম্বিত করার চেস্টা করছেন,তারা উন্নয়ন চায়না,আমরা পুকুরটি সংস্কার করে দৃস্টি নন্দন করার জন্য মাননীয প্রধানমন্ত্রীর দৃস্টি আকর্ষ করছি।

,মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্মলীগের সভাপতি ফজলুর রহমান দিপু বলেন স্বাধীনতা বিরোধী একটি চক্র দীর্গদিন ধরে আওয়ামীলীগ ও মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে ঘাপটি মেরে সরকারের উন্নয়ন মুলক কাজের বিরোধীতা ও দলের মধ্যে বিভেধ সৃস্টি করার চেস্টা করছেন।

আমি পৌর সভার এই দৃস্টি নন্দন প্রকল্পের কাজটি দ্রুত বাস্তবায়ন করার জন্য প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামণা করছি। মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্মলীগ সাধারণ সম্পাদক ও ৭১ এর গ্রুফ কমান্ডারের সন্তান যুবনেতা বুলবুল আহম্মেদ হাজরা বলেন স্বাধীনতা বিরোধী একটি চক্র পৌরসভা ও সরকারের উন্নয়ন মুলক কাজের বিরোধিতা করে প্রকল্পটি বাস্তবায়নে বিলম্বিত করার চেস্টা করছে।আমি পৌরসভার হাতে নেওয়া এই দৃস্টি নন্দন প্রকল্পটি দ্রুত বাস্তবায়ন করে পুকুরের সুন্ধর্য বৃদ্ধির দাবি জানাচ্ছি।


এদিকে সাবেক উপজেলা পরিষদ ভবনের পুর্বপাশের পুকুরে পিসিসি ব্লক এবং ফুটপাত নির্মান ও সুন্ধর্য বর্ধন দৃস্টি নন্দন প্রকল্পের কাজ বিলম্বিত হওয়ার কারন পরিদর্শন করেন জেলা প্রশাসক শাহিদা সুলতানা ও জেলা প্রশাসনের উর্ধতন কর্মকর্তারা।


উপজেলা চেয়ারম্যান বিমল কৃষ্ণ বিশ্বাস বলেন আমরা মাননীয প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে উপজেলা পরিষদের পুকুরটির সুন্ধর্য বর্ধনে একটি দৃস্টি নন্দন প্রকল্প হাতে নিয়ে বাস্তবায়ন করার চেস্টা করছি, বিলম্ব হওয়ার কারন পরিদর্শন করতে ইতিমধ্যে জেলা প্রশাসক প্রকল্পটি পরিদর্শন করে আমাদের সাথে একমত প্রশন করেছেন।


উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আয়নাল হোসেন শেখ তার প্রতিক্রীয়ায় বলেন, পুরাতন উপজেলা পরিষদের পাশের পুকুরটি সংস্কারের লক্ষে সরকার যে

দৃস্টি নন্দন প্রকল্প হাতে নিয়েছে সেটা বাস্তবায়ন হলে পুকুরের সুন্ধর্য বৃদ্ধি হবে এবং এলাকাবাসীর জন্য একটি মনোমুগ্ধকর দর্শনীয় স্হান হবে । ইতিমধ্যে জেলা প্রশাসক প্রকল্পটি পরুদর্শন করে আমাদের সাথে একমত প্রশন করে দ্রুত বাস্তবায়নের আশ্বাস দিয়েছেন আমি দ্রুত প্রকল্পটি বাস্তবায়নের দাবি জানাই।


ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মেসার্স লেলিন টেডার্সের প্রতিনিধি মিজানুর রহমান শেখ বলেন প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে পৌরসভার মাধ্যমে সরকার পুকুরটির সুন্ধর্য বৃদ্ধির লক্ষে দৃস্টি নন্দন প্রকল্পটি হাতে নিয়ে প্রায় ৪০/; কাজ বাস্তবায়ন করেছে এর মধ্যে একটি অদৃশ্য শক্তির বিরোধীতার কারনে প্রকল্পটির বাস্তবায়নের কাজ বিলম্বিত হচ্ছে।বর্তমানে কাজটি বন্ধ থাকায় প্রকল্পে ব্যবহৃিত যে মালামাল সরবরাহ করা হয়েছে এবং শ্রমিক নিয়োগ করা হয়েছে তাতে আমাদের ব্যপক ক্ষতির সন্মুখিন হতে হয়েছে। কাজটি দ্রুত সম্পন্ন করতে পারলে হয়তো কিছুটা ক্ষতি পুষিয়ে ওঠা যেত।

 

এবিষয়ে পৌর মেয়র হাজি মোঃ কামাল হোসেন শেখ বলেন আমি সব সময়ই মাননীয প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা মোতাবেক মানুষের কল্যানের জন্য জনস্বার্থে নিরলশভাবে উন্নয়নের কাজ করে যাচ্ছি কিন্তু স্বাধীনতা বিরোধী একটি চক্র তারা আমার উন্নয়নের ধারা ব্যহত করতে বিভিন্ন স্হানে নালিশ করে ও সরকারের উন্নয়ন কাজের বিরোধীতা করে এলাকার উন্নয়ন বাধাগ্রস্হ করে দলের মধ্যে বিভেধ সৃস্টি করছে। তিনি আরো বলেন পুকুরটা সংস্কার করে দৃস্টি নন্দন এই প্রকল্পটা বাস্তবায়ন করা হলে পুকুরের সুন্ধর্য বৃদ্ধি পাবে এবং সাধারণ মানুষ উপকৃত হবে।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ