Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ২৮ জুন ২০২২, ১৪ আষাঢ় ১৪২৯, ২৭ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

ভোজ্যতেল এখন ‘ভিআইপি’

এক সাপ্তাহে কেজিতে বেড়েছে ১০ টাকা

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২১ ডিসেম্বর, ২০২০, ১২:০১ এএম

দামের দিক দিয়ে ভিআইপি মর্যাদার মতোই উপরে উঠছে ভোজ্য তেল। গত এক মাসে ভোজ্য তেলের দাম লিটারে দশ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে। খোলা তেলের চেয়ে বেশি বেড়েছে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের বোতলজাত তেলের দাম। প্রতিষ্ঠানগুলো দাবি করছে, আন্তর্জাতিক বাজারে দাম ও আমদানি করের হার বাড়ার প্রভাব পড়েছে খুচরা বাজারে। দাম নিয়ন্ত্রণে সংশ্লিষ্ট সব পক্ষের সঙ্গে আলোচনা চলছে বলে জানান বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। দেশে প্রতি বছর ভোজ্য তেলের চাহিদা রয়েছে প্রায় ২০ লাখ টন। যার পুরোটাই বিদেশ থেকে আমদানি করতে হয়।
বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি জানান, তেল আমদানিতে চলতি বছর ট্যারিফ মূল্য নির্ধারণ করে ভ্যাট আদায়ের প্রস্তাব দিয়েছিল বাণিজ্য মন্ত্রণালয়। এ নিয়ে রাজস্ব বোর্ডের সাথে আলোচনা চলছে। ভোক্তারা বলছেন, যখন যে পণ্যের মূল্য বাড়ে তখন সেটা ক্রেতাদের কাছে ভিআইপি মর্যাদা লাভ করে। সীমিত আয়ের মানুষ প্রয়োজনের তুলনায় কম পণ্য কিনতে বাধ্য হয়।

রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বাজারে তেলের কোন সংকট নেই। চাহিদা অনুযায়ী কেনাও যাচ্ছে। তবে ভোক্তাদের গুণতে হচ্ছে বেশি দাম। খুচরা বাজারে ৫ লিটারের বোতলজাত তেল বিক্রি হচ্ছে ৫১০ থেকে ৫৮০ টাকায়। টিসিবির হিসেবে এক মাসে বোতলজাত তেলের দাম বেড়েছে ৭ ভাগ। খোলা তেল বিক্রি হচ্ছে লিটার প্রতি ১০৫ টাকা। এক মাসে বেড়েছে প্রায় ৪ ভাগ।

পাইকারি ভোজ্যতেল ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি গোলাম মাওলা জানান, আমদানিতে বর্তমানে তিন স্তরে ১৫ শতাংশ ভ্যাট ও ৪ শতাংশ অগ্রিম কর দিতে হচ্ছে। এক বছর আগে প্রতি লিটার অপরিশোধিত সয়াবিন তেল আমদানিতে সাড়ে ১২ টাকা কর দিতে হতো। এখন দিতে হচ্ছে ১৫.১৬ টাকা। যার প্রভাব পড়ছে দেশীয় বাজারে। আমদানি মূল্যের ওপর করের পরিবর্তে টন প্রতি দাম নির্দিষ্ট করে কর আদায়ের দাবি তাদের।
সিটি গ্রুপের পরিচালক বিশ্বজিৎ সাহা জানান, আমদানিতে সাড়ে ১২ টাকা কর বাড়িয়ে এখন দিতে হয় ১৫.১৬ টাকা। যার প্রভাব পড়ছে বাজারে। আমদানি মূল্যের ওপর করের পরিবর্তে টন প্রতি দাম নির্দিষ্ট করে কর আদায় করলে কিছুটা উপকার হবে।

ভুক্তোভোগীরা বলছেন, সরকারের বাজার নিয়ন্ত্রণ দুর্বল হওয়ায় একের পর এক পণ্যের দাম বাড়ছে। কখনো পিঁয়াজ, কখনো আলু, চাল, ডাল, মশলাসহ যাবতীয় পণ্যের দাম বেড়ে ভোক্তাদের কাছে ভিআইপি মর্যাদা অর্জন করে। মাঝেমধ্যে এখানে সেখানে ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে কিছু ক্ষদ্র ব্যবসায়ির জরিমানা করা হলেও মূল্যবৃদ্ধির সিন্ডিকেটকে ধরতে পারছে না।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ভোজ্য তেল

২৭ এপ্রিল, ২০২১
২১ ডিসেম্বর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ