Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ৪ কার্তিক ১৪২৭, ০২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

পাকিস্তানের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে নাক গলানোর বিষয়ে প্রতিবাদ

প্রকাশের সময় : ২৪ আগস্ট, ২০১৬, ১২:০০ এএম

কূটনৈতিক সংবাদদাতা : সাম্প্রতিক ভারত-পাকিস্তান কূটনৈতিক টানাপড়েনে ঘুরেফিরে আসছে বেলুচিস্তান প্রসঙ্গ। আর দু’দেশের টানাপড়েনে যুক্ত হয়েছে বাংলাদেশ। ভারতে সফরকালে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুর সাম্প্রতিক বেলুচিস্তান বিষয়ে মন্তব্যের জেরে ইসলামবাদে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার তারিক আহসানকেও পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব করে তীব্র প্রতিবাদ জানায়। তবে ঢাকায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বশীল কর্মকর্তারা বলছেন, তথ্যমন্ত্রী বেলুচিস্তান সম্পর্কে যে মন্তব্য করেছেন, এ বিষয়ে সরকারের কোনো অবস্থান নেই। কারো অভ্যন্তরীণ বিষয়ে বাংলাদেশ কখনো হস্তক্ষেপ করে না। তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু গত সপ্তাহে ভারত সফরের সময় ‘দ্য হিন্দু পত্রিকা’র সঙ্গে আলাপকালে বেলুচিস্তান প্রদেশে পাকিস্তান সরকারের দমননীতি নিয়ে মন্তব্য করে বলেন, ‘সংবিধান অনুযায়ী বাংলাদেশ স্বাধীনতা সংগ্রামে সমর্থন দিতে বাধ্য এবং বেলুচিস্তান বিষয়ে আমরা শিগগিরই একটি আনুষ্ঠানিক পলিসি ঘোষণা করব।’
ইসলামাবাদের বাংলাদেশ হাইকমিশন সূত্রে জানা গেছে, এরই জের ধরে গত শুক্রবার (১৯ আগস্ট) রাতে ইসলামাবাদে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনারকে একটি বিদেশী দূতাবাসের অনুষ্ঠান থেকে তলব করা হয়।
তবে ঢাকায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বশীল কর্মকর্তারা জানান, তথ্যমন্ত্রী বেলুচিস্তান সম্পর্কে যে মন্তব্য করেছেন, এ বিষয়ে সরকারের কোনো অবস্থান নেই। বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে কোনো দেশের নাক গলানো যেমন সে দেশের সরকারের নীতি নয়, তেমনি কারো অভ্যন্তরীণ বিষয়ে বাংলাদেশ কখনো হস্তক্ষেপ করে না।
সম্প্রতি কাশ্মির প্রসঙ্গে পাল্টা জবাব দিতে গিয়ে পাকিস্তানের উদ্দেশে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেন, বেলুচিস্তানের আদিবাসীদের সঙ্গে স্বাধীনতার পর থেকেই কার্যত যুদ্ধ চালিয়ে যাচ্ছে পাকিস্তান। এর পরই ভারত সফরে গিয়ে বাংলাদেশের তথ্যমন্ত্রী বেলুচিস্তান প্রসঙ্গে মন্তব্য করায় পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ইসলামাবাদে বাংলাদেশের হাইকমিশনার তারিক আহসানকে তলব করে মহাপরিচালক (দক্ষিণ এশিয়া ও সার্ক বিভাগ) মোহাম্মদ ফয়সল বাংলাদেশের হাইকমিশনারের কাছে এ নিয়ে তীব্র প্রতিক্রিয়া জানান।
ইসলামাবাদের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তলব বিষয়ে বাংলাদেশের হাইকমিশনার তারিক আহসান বলেন, ‘গত শুক্রবার পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আমার সঙ্গে বৈঠক হয়েছে এবং তারা তথ্যমন্ত্রীর মন্তব্য সম্পর্কে জানতে চেয়েছে।’ এর জবাবে কী বলা হয়েছে, জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘তাদের জানিয়েছি, সদর দফতরের সঙ্গে যোগাযোগ করে উত্তর দেয়া হবে।’
পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা জানান, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে সমর্থন করে তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বেলুচিস্তান নিয়ে কেন মন্তব্য করলেন, সেটি ১৯ আগস্ট তারিক আহসানের কাছে জানতে চান মোহাম্মদ ফয়সল। পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা বাংলাদেশের হাইকমিশনারকে ক্ষোভ জানিয়ে বলেন, ওই মন্তব্য করে হাসানুল হক ইনু পাকিস্তানের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে নাক গলিয়েছেন। এ সময় পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাকে হাইকমিশনার জানান, তিনি বিষয়টি সম্পর্কে জানেন না। এ নিয়ে বাংলাদেশে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে পাকিস্তানের অবস্থানের বিষয়টি জানানো হবে।
পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, ৬ বছর বিরতির পর আগামী সেপ্টেম্বরের ১ ও ২ তারিখে পাকিস্তানের পররাষ্ট্র সচিব আইজাজ আহমেদ চৌধুরী ঢাকায় আসছেন পররাষ্ট্র সচিব পর্যায়ে বৈঠকের জন্য। আগামী নভেম্বরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইসলামাবাদে অনুষ্ঠেয় সার্ক শীর্ষ সম্মেলনে যোগদান করবেন বলেও কথা রয়েছে।
প্রসঙ্গত, মানবতাবিরোধী অপরাধীদের বিচার নিয়ে এমনিতেই পাকিস্তানের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্ক খারাপ যাচ্ছিল। সম্প্রতিক সময়ে ওই সম্পর্ক উষ্ণ হতে শুরু করেছিল। এরই মধ্যে হঠাৎ এ ধরনের ঘটনা ঘটল।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পাকিস্তানের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে নাক গলানোর বিষয়ে প্রতিবাদ
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ