Inqilab Logo

রোববার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২২ রবিউস সানী ১৪৪৩ হিজরী

বড়দিন উপলক্ষে দরিদ্রদের সাহায্যের আহ্বান পোপের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৫ ডিসেম্বর, ২০২০, ৩:৫১ পিএম

বিশ্বব্যাপী তাণ্ডব সৃষ্টিকারী করোনা করোনাভাইরাস প্রতিরোধে আরোপিত নানা বিধিনিষেধের মধ্যেই বিশ্বজুড়ে উদযাপিত হচ্ছে খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় উৎসব বড়দিন। গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এক ভাষণে পোপ ফ্রান্সিস বিশ্ববাসীকে নিজেদের দায়িত্ব মনে করে গরীবদের সাহায্য করার আহ্বান জানিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় বড়দিনের বার্তায় পোপ বলেন, ‘‘ঈশ্বরের পুত্র নিজেও দরিদ্র এবং সমাজচ্যুত মানুষদের মধ্যে জন্ম নিয়েছেন। তার মধ্য দিয়ে তিনি বলতে চেয়েছেন, সমাজচ্যুতরাও ঈশ্বরেরই সন্তান।

‘‘দারিদ্র এবং প্রয়োজনের মধ্য দিয়েই ঈশ্বর আমাদের মাঝে আসেন এবং বলেন, গরীবদের সেবা করার মাধ্যমেই আমরা ঈশ্বরের প্রতি আমাদের ভালোবাসার প্রকাশ ঘটাতে পারবো।”

যারা সম্পদ গড়ার নেশায় উন্মত্ত, বিশেষ করে তাদেরকে সাধারণ জীবনে ফেরার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, “আসুন, নিজেদের জিজ্ঞেস করি: জীবনযাপনের জন্য সত্যিই কি আমার এতকিছুর প্রয়োজন আছে? অপ্রয়োজনীয়, অতিরিক্ত জিনিস ছাড়া কি আমি চলতে পারি না? অতি সাধারণ জীবনযাপন করতে পারি না?”
বড়দিন শুরুর সময়টিতে ঐতিহ্য অনুযায়ী ভ্যাটিকানে সেন্ট পিটারস বাসিলিকায় বক্তব্য দেওয়ার সময় কথাগুলো বলেন পোপ ফ্রান্সিস। এসময় প্রায় ১০ হাজার মানুষ সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

লাতিন আমেরিকার দেশ থেকে নির্বাচিত প্রথম পোপ ফ্রান্সিস সব সময় দরিদ্র এবং শরণার্থীদের পক্ষে কথা বলে এসেছেন।
এবারের বার্তায় পোপ আরো বলেন, অনেকে সম্পদ আহরণ আর ভোগবাদী বস্তুর আধিক্যের মধ্যে জীবনের মানে খুঁজে পান। মানবজাতির ইতিহাসে দাগ কেটে আছে এ অতৃপ্ত লোভ। এমনকী আজও অনেকেই বিলাসবহুল জীবনে প্রাচুর্যের সঙ্গে আহার করেন, অথচ এর বিপরীতে অনেকেরই দিনের রুটিটুকুও জোটে না। সূত্র : রয়টার্স, বিবিসি



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পোপ ফ্রান্সিস


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ