Inqilab Logo

শনিবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০ আশ্বিন ১৪২৮, ১৭ সফর ১৪৪৩ হিজরী

এসআই আকবরের পক্ষে লড়বেন না সিলেটের সেই আইনজীবী

সিলেট ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৫ ডিসেম্বর, ২০২০, ৪:২৮ পিএম

সিলেটে রায়হান আহমদ হত্যা মামলার প্রধান আসামি বহিষ্কৃত এসআই আকবরের পক্ষে সেই আইনজীবী অ্যাডভোকেট মো. মিসবাউর রহমান আলম আদালতে আর লড়বেন না। এর আগে জেলা আইনজীবী সমিতির পক্ষ থেকে বলা হয়েছিল আকবরের পক্ষে সিলেটের কোনো আইনজীবী দাঁড়াবেন না আদালতে। ইতোমধ্যে আইনজীবী আলম গত ২৪ ডিসেম্বর আকবরের পক্ষে দায়েরকৃত ওকালতনামা সারেন্ডার করেন এবং এ সংক্রান্ত একটি আবেদনও দাখিল করেছেন বিজ্ঞ আদালতে। আজ শুক্রবার (২৫ ডিসেম্বর) আইনজীবী মো. মিসবাউর রহমান আলম বলেন, পেশাগত কারণে হত্যা-অপহরন সহ অনেক মামলা পরিচালনা করেছি। আইনী সেবা পাওয়া প্রতিটি মানুষের মৌলিক অধিকার। তদুপরি এই মামলাটি সর্বোচ্চ দন্ডাদেশের মামলা। তবে কোন কারনে যদি আসামীপক্ষ আইনজীবী পেতে ব্যর্থ হয়, তহালে পুরো বিচার প্রক্রিয়াই যাবে আটকে। বিচার প্রার্থীই তাতে বরং ক্ষতিগ্রস্ত হবেন। এই দৃষ্টিকোন থেকে আকবরের পক্ষে আইনজীবী নিযুক্ত হতে সম্মত হই আমি। এ মামলায় গ্রহনের পর অনেকেই আমার শ্রদ্ধাভাজন সিনিয়রকে জড়িয়ে বিরূপ মন্তব্য করায় আকবরের পক্ষে আইনী লড়াই হতে বিরত হলাম। এছাড়া গত ২৪ ডিসেম্বর আকবরের পক্ষে দায়েরকৃত ওকালতনামা সারেন্ডার করেছি এবং এ সংক্রান্ত একটি আবেদনও দাখিল করেছি বিজ্ঞ আদালতে। তবে তিনি এব্যাপারে আইনী যৌক্তিকতা তুলে ধরে বলেন, আকবর কোন আইনজীবী না পেলে বিচার হবে না এই মামলার। তা , রায়হানের পরিবারের জন্য সুখকর হবে না।

প্রসঙ্গত, গত ১১ অক্টোবর নগরীর আখালিয়া এলাকার বাসিন্দা রায়হান আহমদকে (৩৪) বন্দরবাজার ফাঁড়িতে ধরে এনে পুলিশ নির্যাতন চালিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ ওঠে সংশ্লিষ্ট পুলিশের বিরুদ্ধে। ওই রাতেই হেফাজতে মৃত্যু আইনে এসএমপির কতোয়ালী মডেল থানায় একটি মামলা করেন রায়হানের স্ত্রী তামান্না আক্তার। এরপর মেট্রোপলিটন পুলিশের একটি টিম তদন্ত করে নির্যাতনের সত্যতা পেয়ে ফাঁড়ির ইনচার্জের দায়িত্বে থাকা এসআই আকবর হোসেন ভূঁইয়া সহ ৪ জনকে ১২ অক্টোবর সাময়িক বরখাস্ত ও ৩ জনকে প্রত্যাহার করে নেয়া হয়। পরবর্তীতে ১৩ অক্টোবর এসআই আকবর পালিয়ে যায়। অবশেষে গত ৯ নভেম্বর সিলেটের সীমান্তবর্তী কানাইঘাটের ডোনা এলাকা থেকে আকবরকে গ্রেফতার করে পুলিশ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: রায়হান হত্যা


আরও
আরও পড়ুন