Inqilab Logo

বুধবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২১, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৩ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিজরী

রাউজানে আগুনে চায়ের দোকান পুড়ে ছাই, ৫ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি

রাউজান (চট্টগ্রাম) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৩০ ডিসেম্বর, ২০২০, ৫:০৫ এএম

মঙ্গলবার রাত ১০টা ৫৫মিনিটে চট্টগ্রামের রাউজানে আগুনে পুড়েছে চায়ের দোকান। উপজেলার হলদিয়া ইউনিয়নের আমিরহাট বাজারের ইউছুফ সওদাগরের চায়ের দোকানে মঙ্গলবার রাত ১০টা ৫৫ মিনিটে আগুনে পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত ঘটে থাকতে পারে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারনা করা হচ্ছে। দোকানটি টিন ও বেড়ার ছিল বিধায় আগুণ মুহূর্তের মধ্য ঘোটা দোকানে ছড়িয়ে পড়ে। মুহূর্তের মধ্য পুড়ে ছাই হয়ে যায় চায়ের দোকানটি। রাউজান ফায়ার ব্রিগেডের কর্মীরা আসার পূর্বেই পুড়ে ছাই হয়ে যায় দোকানটি। মসজিদের পানি দিয়ে আগুণ প্রশমিত করে পার্শ্ববর্তী দোকানগুলোকে রক্ষা করেন স্থানীয়রা।দাঁউ দাঁউ করে আগুণের তীব্রতা বাড়তে থাকায় পাশের একই মালিক জমির-উর রহমানের ৫ তালা আবাসিক ভবনে বসবাসরত নারী পুরুষরা উপর থেকে রাস্তায় নেমে আসে। চায়ের দোকানের পাশে ওয়ান ব্যাংকের এজেন্ট ব্যাংকিং শাখা, হামিদ সওদাগরের মুদির দোকানের গোডাউন, আরেকটি মুরির দোকানের মালামাল সরিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেন স্থানীয়রা। আগুণের ঘটনা শুনে প্রতিজন ব্যবসায়ী বাড়ী থেকে ছুটে আসেন দ্রুত নিজ নিজ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে।আগুণের সূত্রপাত ঘটলে বিদ্যুৎ অফিসকে অবহিত করে বিদ্যুৎ লাইন বিচ্ছিন্ন করান বাজারের সাবেক সভাপতি এস এম বাবর। আর ফায়ার ব্রিগেডকে অবহিত করেন অগ্রণী ব্যাংক আমির হাট শাখার ব্যবস্থাপক নেছার।পারিবারিক অনুষ্ঠানের কারণে এদিকে গত ২ সপ্তাহ যাবত চায়ের দোকানটি বন্ধ ছিল বলে জানা গেছে। আগুণের ঘটনায় কমপক্ষে ৫লক্ষ টাকা ক্ষতি সাধিত হয়েছে বলে দাবী করেন বর্তমান ব্যবসা পরিচালনাকারী মরহুম ইউছুফ সওদাগরের ছোট ভাই আকবর হোসেন।এদিকে বাজার ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির নেতৃবৃন্দ দ্রুত এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করেন সকলকে নিয়ে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: অগ্নিকাণ্ড

৩০ নভেম্বর, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ