Inqilab Logo

মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১০ কার্তিক ১৪২৮, ১৮ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

নান্দনিক ডিজাইনে উদ্ভাবনী প্রযুক্তির স্যামসাং টি সিরিজ কিউএলইডি টিভি

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩০ ডিসেম্বর, ২০২০, ৭:৩৫ পিএম

প্রতিনিয়ত বদলে যাচ্ছে পৃথিবী। এ বদলের ছোঁয়া লাগছে প্রতিটি ক্ষেত্রেই। পরিবর্তনের এ ছোঁয়া এসে লেগেছে মানুষের অভিরুচিতেও। হালে মানুষ নিজেকে একটু ভিন্নরূপে উপস্থাপন করতে চায়, একটু ব্যতিক্রমী ও উদ্ভাবনী পণ্যসামগ্রী ব্যবহার করতে চায়। এ বদলপ্রয়াসী মানুষের কথা বিবেচনা করেই বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান প্রতিনিয়ত ভিন্নধর্মী ও নান্দনিক পণ্যের সমাহার নিয়ে এ সকল মানুষের সামনে হাজির হচ্ছে। পরিবর্তনকামী এ রকম এক অন্তঃপ্রাণ প্রতিষ্ঠান স্যামসাং।

ক্রেতাদের জন্য উদ্ভাবনী প্রযুক্তি ও নান্দনিক ডিজাইনের টেলিভিশন নিয়ে আসার মাধ্যমে স্যামসাং বিশ্বে বিগত ১৪ বছর ধরে টেলিভিশন ইন্ডাস্ট্রিতে এক নম্বর অবস্থান ধরে রেখেছে। সম্প্রতি, প্রতিষ্ঠানটি তাদের টি সিরিজের অধীনে বাংলাদেশে চমৎকার নকশাসমৃদ্ধ ২০২০ কিউএলইডি টিভি উন্মোচন করেছে। সম্পূর্ণ নতুন টি সিরিজের টেলিভিশনগুলো বাংলাদেশে কয়েকটি ভিন্ন ক্যাটাগরিতে পাওয়া যাচ্ছে- কিউএলইডি টিভি, ইউএইচডি টিভি, ফুলএইচডি টিভি এবং এইচডি টিভি।

স্যামসাং টি সিরিজের টিভিগুলোকে খুব সহজেই পিসিতে রূপান্তর করা যায়। উদাহরণ হিসেবে বলা যায়, জরুরি প্রয়োজন থাকায় আপনি আপনার অফিসের কোনো কাজ অসমাপ্ত অবস্থায় রেখে এসেছেন। এক্ষেত্রে, চিন্তার কোনো কারণ নেই, টি সিরিজের স্মার্ট টিভিতে থাকা পার্সোনাল কম্পিউটার মোডের মাধ্যমে আপনি বাসা থেকেই ফেলা আসা অসমাপ্ত কাজটি খুব সহজেই শেষ করতে পারবেন।

টি সিরিজ ২০২০ কিউএলইডি টিভির লাইন-আপে আছে মোট ৫টি মডেল, যার মধ্যে কিউ৯৫০টি (৮৫ ইঞ্চি) এবং কিউ৮০০টি (৮২ ইঞ্চি এবং ৭৫ ইঞ্চি) এই দুটি মডেল এইটকে রেজ্যুলেশনের। এছাড়াও, কিউ৮০টি (৬৫ ইঞ্চি), কিউ৭০টি (৭৫ ইঞ্চি), এবং কিউ৬০টি (৫৫ ইঞ্চি ও ৫০ ইঞ্চি) মডেলের সবগুলোই ফোরকে রেজ্যুলেশন। কিউএলইডি এইটকে এবং ফোরকে রেঞ্জের মডেলগুলোতে নতুন কিছু ফিচার যেমন: অ্যাডাপ্টিভ পিকচার, অবজেক্ট ট্র্যাকিং সাউন্ড (ওটিএস), অ্যাক্টিভ ভয়েস অ্যামপ্লিফায়ারের সাথে মাল্টি-ভিউ অপশনও রয়েছে। কোন স্ক্রিন বার্ন-ইন ছাড়াই শতভাগ রঙে দীর্ঘায়ু নিশ্চিত করবে এবং সবচেয়ে উজ্জ্বল এবং অন্ধকার দৃশ্য দেখার ক্ষেত্রেও অসাধারণ ভিউইং এক্সপেরিয়েন্স দেবে। অবজেক্ট ট্র্যাকিং সাউন্ড (ওটিএস) ফিচার ও কিউ-সিম্ফনি প্রযুক্তি পছন্দের কন্টেন্ট বা গান উপভোগের ক্ষেত্রে চমৎকার অডিও এক্সপেরিয়েন্স নিশ্চিত করবে। এছাড়াও, এ লাইন-আপে একটি মাল্টি-ভিউ অপশন ফিচার আছে, যা ব্যবহারে একই সময়ে টিভি এবং স্মার্টফোন- দুটোর বিষয়বস্তুই উপভোগ করা যায়। এইটকে কিউএলইডি টিভির তিনটি মডেল যথাক্রমে ১২,৯৯,০০০ টাকা, ১৭,৯৯,০০০ টাকা এবং ১৯,৯৯,০০০ টাকায় পাওয়া যাচ্ছে।

সঙ্গীতপ্রেমীদের জন্য স্যামসাং টি-সিরিজ স্মার্ট টিভিগুলোতে রয়েছে অনন্য এক ফিচার। এ টিভিগুলোর মিউজিক প্লেয়ার ফিচার দিয়ে আপনি আপনার টি-সিরিজ স্মার্ট টিভিকে স্টাইলিশ ভার্চুয়াল মিউজিক সিস্টেমে রূপান্তর করতে পারবেন। ফলে, সঙ্গীত হবে এখন আরো উপভোগ্য।

এ স্মার্ট টিভিগুলোর একটি বিশেষ দিক হচ্ছে, স্যামসাং এই টিভিগুলোতে দিচ্ছে ৪ বছরের প্যানেল ওয়্যারেন্টি। ফলে, এ স্মার্ট টিভিগুলোর মাধ্যমে আপনি নির্বিঘ্নে বিনোদন লাভ করতে পারবেন। স্যামসাং বাংলাদেশের অফিশিয়াল আউটলেট ও অনুমোদিত ডিলার শপ থেকে ৪ বছরের ওয়ারেন্টি সুবিধা পাওয়া যাচ্ছে। পাশাপাশি, বিনামূল্যে ডেলিভারি ও ইন্সটলেশন, ইন-হোম সার্ভিস, ২৪/৭ কল সেন্টার সুবিধা ও ৫ বছর সার্ভিস ওয়ারেন্টিসহ সর্বোত্তম বিক্রয়োত্তর সেবা নিশ্চিত করছে প্রতিষ্ঠানটি। এছাড়াও স্যামসাং টি সিরিজের টিভিতে পাবেন ১০০ দিন রিপ্লেসমেন্ট ওয়ারেন্টি এর আকর্ষণীয় সুবিধা।

ঘরে বসে নিখাদ বিনোদন লাভের জন্য টেলিভিশনের জুড়ি মেলা ভার। বিশেষ করে, কর্মব্যস্ত দিনের শেষে প্রিয় মানুষের সঙ্গে টেলিভিশন সেটের সামনে চায়ের পেয়ালা হাতে নিয়ে বসলে সারাদিনের ক্লান্তি যেনো এক নিমিষেই হারিয়ে যায়। আর সেক্ষেত্রে, ক্রেতাদের জন্য সর্বোচ্চ গুণগত মান নিশ্চিত করে টেলিভিশন নিয়ে আসাই স্যামসাংয়ের লক্ষ্য। টি সিরিজের সর্বাধুনিক টেলিভিশনগুলো শুধু দর্শকদের কনটেন্ট উপভোগের অভিজ্ঞতাকেই সমুন্নত করবে না, বরং শক্তিশালী নানান ফিচারে এটি ব্যবহারকারীর জীবনকে আরও সুন্দর করে তুলবে। অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ও গ্রাহক-কেন্দ্রিক উদ্ভাবনের মাধ্যমে টি সিরিজের টিভিগুলোতে দর্শকদের টিভি দেখার অভিজ্ঞতা হবে আরো চমৎকার।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ