Inqilab Logo

বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারী ২০২২, ১৩ মাঘ ১৪২৮, ২৩ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

হত্যার হুমকি দিয়ে চাঁদা দাবি চার পুলিশের বিরুদ্ধে মামলা

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৮ জানুয়ারি, ২০২১, ১২:০১ এএম

হত্যার হুমকি দিয়ে পাঁচ লাখ টাকা চাঁদা দাবির অভিযোগে ঢাকা মহানগর পুলিশের যাত্রাবাড়ী থানার চার পুলিশসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। গতকাল ঢাকা মহানগর হাকিম নিভানা খায়ের জেসির আদালতে মো. আলম হাওলাদার নামের এক ব্যক্তি এ মামলা করেন। আদালত মামলার অভিযোগের বিষয়ে তদন্ত করে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগকে (সিআইডি) প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেন।

মামলার আসামিরা হলেন- যাত্রাবাড়ী থানার এসআই মো. আক্তার, এসআই আব্বাস উদ্দিন, এএসআই ওলিউল ইসলাম, কনস্টেবল মো. রিয়াজুল এবং আয়েশা আক্তার বেলি। মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, গত ১২ ডিসেম্বর রাত ১টার দিকে অজ্ঞাত ব্যক্তিরা আলম হাওলাদারের বাসার গেটে ধাক্কা দেয় ও লাথি মারে। এ সময় আলম হাওলাদারের স্ত্রী রেশমা বেগম ঘরের ভেতর থেকে এসে আসামিদের পরিচয় জানতে চাইলে, তারা আইনের লোক বলে জানান। এ কথা শুনে রেশমা ঘরের দরজা খুলে দেয়ার পর আসামিরা তাকে ধাক্কা দিয়ে ঘরের মেঝেতে ফেলে দেয়। এরপর আসামিরা আলম হাওলাদারকে খুঁজতে থাকে। তাকে না পেয়ে ঘরের মালামাল তছনছ করে এবং এসআই আক্তার ওয়্যারড্রব খুলে জমি বিক্রির দুই লাখ টাকা পকেটে ভরে নেন।

অভিযোগে আরও বলা হয়, রেশমা এর প্রতিবাদ করলে এসআই আক্তার রেশমাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়। এএসআই ওলিউল ইসলাম রেশমার হাত ধরে টানাহেঁচড়া করে এবং এসআই আব্বাস গালাগালি করে। এরপর রেশমার মোবাইল ফোন দিয়ে এসআই আক্তার রেশমার স্বামী আলম হাওলাদারকে ফোন দেন। তখন আলম হাওলাদার পরিচয় এবং কোন থানা এসেছে জানতে চাইলে, এসআই আক্তার বলেন, তোকে পেলে দেখাতাম আমরা কোন থানা থেকে এসেছি। ঢাকায় ফিরে এসে ৫ লাখ টাকা দিবি, আর যদি না দিস তাহলে তোকে ক্রসফায়ার দিয়ে নদীতে ফেলে দেব।


এ ঘটনার পর বাদী আলম হাওলাদার বাসার সিসিটিভি ফুটেজ দেখেন। এতে আসামিরা যাত্রাবাড়ী থানার পুলিশ এবং অপর এক আসামি আয়েশা আক্তার বেলি তার ভাবি বলে জানতে পারেন। এখনো আসামিরা বিভিন্ন মোবাইলের মাধ্যমে ফোন দিয়ে পাঁচ লাখ টাকা দাবি করছে। টাকা না দিলে ক্রসফায়ার দিয়ে নদীতে ফেলে দেবে বলে হুমকি দিয়ে আসছে- বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে মামলার আসামি যাত্রাবাড়ী থানার এসআই মো. আক্তার দৈনিক ইনকিলাবকে বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পুলিশ

২৫ জানুয়ারি, ২০২২
২৪ জানুয়ারি, ২০২২
২২ জানুয়ারি, ২০২২
২১ জানুয়ারি, ২০২২
১৮ জানুয়ারি, ২০২২

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ