Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ১৬ জানুয়ারি ২০২১, ০২ মাঘ ১৪২৭, ০২ জামাদিউল সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

ক্রিসমাস গাছ, যেটাকে খ্রিস্টানরা বিশেষ গাছ হিসেবে প্রাধান্য দেয়, এই গাছগুলো কি কোনো মুসলমানের বাড়িতে শখে/ সৌন্দর্যের জন্য রাখা যাবে?

রাশেদ নাঈম
ইমেইল থেকে

প্রকাশের সময় : ১১ জানুয়ারি, ২০২১, ৮:০৭ পিএম

উত্তর : ক্রিসমাস ট্রি খৃষ্টানদের কোনো ঐতিহ্য বা সংস্কৃতি নয়। এটি তাদের ইবাদাতের অংশ। যারা আল্লাহ ছাড়া অন্য কোনো মা’বুদের ইবাদত করে অথবা (নাউযুবিল্লাহ) আল্লাহর স্ত্রী পুত্র সাব্যস্ত করে তাদের ধর্মীয় বিষয়ে জড়িত হলে মুসলমানের জন্য ঈমান হারানোর শংকা থাকে। কাজেই ধর্মীয় ক্রিসমাস ট্রি নিজে ব্যবহার করা, সংরক্ষণ করা বা সৌন্দর্যের জন্য রাখা শরীয়তে বৈধ নয়। এমনিতে যদি শো-পিস হিসাবে ক্রিসমাস ট্রি অন্য কোনো জায়গায় বা শোরুমে বা শোকেসে সংরক্ষণ করে, এটাও শরীয়তের দৃষ্টিতে জায়েজ হবে না। এটি অনেকটা ইবাদতের জন্য নির্মিত দেব-দেবী রাখার মতোই। অতএব, অন্য ধর্মের ধর্মীয় প্রতীক ব্যবহার করা, প্রদর্শন করা, ক্রয় করা বা বিক্রয় করা শরীয়তের দৃষ্টিতে সঠিক নয়।

উত্তর দিয়েছেন : আল্লামা মুফতি উবায়দুর রহমান খান নদভী
সূত্র : জামেউল ফাতাওয়া, ইসলামী ফিক্হ ও ফাতওয়া বিশ্বকোষ।
প্রশ্ন পাঠাতে নিচের ইমেইল ব্যবহার করুন।
[email protected]

ইসলামিক প্রশ্নোত্তর বিভাগে প্রশ্ন পাঠানোর ঠিকানা
[email protected]



 

Show all comments
  • কাজী নুরুজ্জামান ১৪ জানুয়ারি, ২০২১, ৫:১৫ পিএম says : 0
    আমি একজন হাক্কানি পীরের মুরিদ হয়েছিলাম । তিনি ৮৫ বছর বয়সে ইন্তেকাল করেছেন । তিনি নিজে কোরানে হাফেজ ছিলেন । পরিপূর্ণ শরীয়তের পয়বন্দ ছিলেন । তিনার ইন্তেকালের পর তার মেঝ ছেলে খেলাফত পান । তিনিও বড় আলেম এবং পরিপূর্ণ শরিয়তের পয়বন্দ ছিলেন । আমারা তার্ব মুরিদ ছিলাম । কিন্তু মাত্র ৩/৪ মাসের মাথায় তিনিও মারা যান । এখন খেলাফত নিয়ে টানাটানি চলছে এমতবস্থায় আমি কারও পক্ষে যেতে পারছি না । আমি কি এভাবেই চলতে পারি ? নাকি নতুন কনও মাশায়েখ এর অনুসারি হতে পারি , নাকি আমার পিরসাহেব এর শেখানো আমল চালিয়ে গেলেই চলবে ।
    Total Reply(0) Reply
  • আনোয়ারুল ১৪ জানুয়ারি, ২০২১, ৯:৫০ পিএম says : 0
    যে ব্যাক্তি আল্লাহর আনুগত্য করবে (অর্থাৎ আল্লাহর কিতাবের সুস্পষ্ট সত্যবাণীর সাথে একমত পোষণ করবে এবং আল্লাহর সুস্পষ্ট সত্যবাণীর নির্দেশ অনুযায়ী আচরণ করবে) এবং তাঁর রসুলের আনুগত্য করবে (অর্থাৎ রসুলের রীতিনীতি বা সুন্নাত অনুযায়ী আচরণ করবে) সে জান্নাতে প্রবেশ করবে। হে মানুষ তোমরা শুধুমাত্র তোমাদের প্রতিপালকের কিতাব বা সুস্পষ্ট সত্যবাণীসমুহ অনুসরণ করো অর্থাৎ নিজ ভাষায় কিতাবের জ্ঞান অর্জন করে শুধুমাত্র আল্লাহর উপদেশ অনুযায়ী ধর্ম পালন করো বা জীবন যাপন করো।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: খ্রিস্টান


আরও
আরও পড়ুন

আমি একটা মসজীদে থাকি। সেখানে মক্তবের ছেলেমেয়েদেরকে পড়ানোর জন্য আমি একটা ব্ল্যাকবোর্ড কিনতে চেয়েছিলাম। সেজন্য ছাত্রছাত্রীদের কাছ থেকে সামান্য কিছু টাকা চাঁদা তুলি এবং বাকি টাকা আমার থেকে দেওয়ার চিন্তাভাবনা করি। কিন্তু পরবর্তীতে আমি ওই টাকাটা খরচ করে ফেলি। এবং এখন আর ব্ল্যাকবোর্ড কিনার প্রয়োজনও নাই। এটা আরো ৪-৫ বছর আগের কথা। আমি যাদের কাছ থেকে টাকাগুলো তুলেছিলাম তারা এখন আর মসজীদে পড়ে না। এবং আমার সঠিকভাবে মনেও নাই কার কার কাছ থেকে টাকাগুলো তুলেছিলাম। এখন আমি সেই টাকাটা কী করবো?

উত্তর : আপনার এটি একটি সমস্যা। কারণ যে জন্য টাকা তুলেছিলেন, সেটি না হওয়ার পর সঙ্গে সঙ্গে টাকা ফেরত দেওয়া উচিত ছিল। এখন যদি আপনি

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ