Inqilab Logo

ঢাকা মঙ্গলবার, ০২ মার্চ ২০২১, ১৭ ফাল্গুন ১৪২৭, ১৭ রজব ১৪৪২ হিজরী

মিয়ানমারের অনাগ্রহে আটকে আছে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন

কক্সবাজার ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১২ জানুয়ারি, ২০২১, ২:৪৭ পিএম

মিয়ানমার সেনাদের নির্যাতনে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের সার্বিক সহযোগিতার পাশাপাশি তাদের স্বদেশে ফেরত পাঠাতে কাজ করছে বাংলাদেশ সরকার।

কিন্তু মিয়ানমারের অনাগ্রহে আটকে রয়েছে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন। সরকার যাচাই-বাছাই এর পর মিয়ানমারের কাছে নতুন করে আরো দুই লাখ ৩০ হাজার রোহিঙ্গার তালিকা হস্তান্তর করেছে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা সূত্রে জানা গেছে, ছয় দফায় মোট আট লাখ ৩০ হাজার রোহিঙ্গার তালিকা মিয়ানমারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

তবে এবিষয়ে মিয়ানমার অত্যন্ত ধীর গতিতে এগুচ্ছে এবং এখন পর্যন্ত তারা মাত্র ৪২ হাজার রোহিঙ্গার তালিকা যাচাই করেছে বলে জানান ওই কর্মকর্তা। এই ৪২ হাজার রোহিঙ্গার মধ্যে মিয়ানমার প্রায় ২৮ হাজারকে তাদের অধিবাসী হিসেবে স্বীকার করলেও ১৪ হাজার রোহিঙ্গার নাম তাদের ডাটাবেজে নেই বলেও জানিয়েছে। এছাড়া মিয়ানমার দাবি করেছে এই তালিকায় ৩৫০ জন সন্ত্রাসী আছে।

উল্লেখ্য, ২০১৮ এর ফেব্রুয়ারি মাসে বাংলাদেশ প্রথম আট হাজার ৩২ জন রোহিঙ্গার তালিকা মিয়ানমারকে দেয়। এর আগে ২০১৭ এর ২৫ আগস্টের পর

নির্যাতনের মুখে জীবন বাঁচানোর জন্য দলে দলে রোহিঙ্গারা বাংলাদেশে পালিয়ে আসে। বর্তমানে কক্সবাজারের বিভিন্ন ক্যাম্পে ১২ লাখের বেশি রোহিঙ্গা আশ্রয় নিয়েছে। এদের প্রত্যাবাসনের জন্য ২০১৭ সালের ২৩ নভেম্বর দুই দেশের মধ্যে একটি চুক্তি হলেও এখন পর্যন্ত একজন রোহিঙ্গাও মিয়ানমার ফেরত নেয়নি।

এদিকে সরকার যতবারই প্রত্যাবাসন কার্যক্রম শুরু করতে চেয়েছে ততোবারই কিছু এনজিওদের উস্কানিতে কিছু উগ্রবাদী রোহিঙ্গা এর বিরোধিতা করেছে।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ