Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ১৬ জানুয়ারি ২০২১, ০২ মাঘ ১৪২৭, ০২ জামাদিউল সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

সবার ‘শত্রু’ ইউনাইটেড-অ্যাটলেটিকো

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৪ জানুয়ারি, ২০২১, ১২:০১ এএম

ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগ ও স্প্যানিশ লা লিগার এবারের মৌসুমে এখনও অর্ধেকই বাকি। এরই মধ্যে ইউরোপিয়ান শীর্ষ দুই লিগে সবার ‘শত্রু’-তে পরিণত হয়েছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। প্রিমিয়ার লিগে পয়েন্ট টেবিলের প্রথম চারে থাকা সব দলই খেলেছে সমান ১৭টি করে ম্যাচ। সেখানে লিভারপুলের চেয়ে তিন পয়েন্টে এগিয়ে ইউনাইটেড। গতবারের চ্যাম্পিয়নদের ৩৩ পয়েন্টের বিপরীতে লিভারপুলের অর্জন ৩৬ পয়েন্ট। তিনে থাকা লেস্টার সিটির ও চারে থাকা এভারটন ৩২ পয়েন্ট নিয়ে সমান গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। তবে গোল ব্যবধানে এগিয়ে লেস্টার। এই ব্যবধানের নেপথ্যে পরশু রাতে বার্নলির বিপক্ষে ইউনাইটেডের জয়। লিগের নিচের সারির এই দলকে ১-০ ব্যবধানে হারিয়ে ২০১৩ সালে কিংবদন্তি ম্যানেজার স্যার অ্যালেক্স ফার্গুসনের অবসরের পর এই প্রথম লিগের শীর্ষ পৌঁছাল তারা। ইউনাইটেডের টানা তৃতীয় জয়ে একমাত্র গোল আসে পল পগবার পা থেকে। এতে করে পুরোনো সব বন্ধু এখন ইউনাইটেডের শত্রু। মনে মনে প্রত্যেকেই চাইছে ম্যানইউ’র হার। লিগের আরেক ম্যাচে ওলভসকে ২-০ গোলে হারিয়ে টটেনহ্যামকে হটিয়ে শীর্ষ চারে জায়গা করে নিয়েছে এভারটন।
ইতিহাস বিবেচনায় চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী হলেও প্রিমিয়ার লিগে কয়বার শিরোপার জন্য মুখোমুখি লড়াই করেছে লিভারপুল আর ইউনাইটেড? হাতে গোনা যাবে। ইউনাইটেডের যখন স্বর্ণসময়, লিভারপুল তখন নিজেদের হারিয়ে খুঁজেছে। উত্থান ঘটেছে চেলসি ও ম্যানচেস্টার সিটির মতো শক্তির। কিন্তু এত দিন পর আবারও লিগ টেবিলের প্রথম দুই স্থানে জায়গা করে নিয়েছে পুরোনো দুই শত্রু। ৮ বছর পর ইউনাইটেডের এই অর্জনের ফলে কিন্তু তারা ক্রমেই বন্ধুহীন হয়ে পরছে। এখন লিগের সব দলেরই একটাই চাওয়া-ইউনাইটেডের হার। লিভারপুলের জয়ও চাইবে না কেউ, তবে শত্রুতায় এগিয়ে থাকবে ইউনাইটেডই।
অন্যদিকে স্প্যানিশ লিগ লা লিগায় একই কাণ্ড ঘটিয়ে চলেছে অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। প্রিমিয়ার লিগে ইউনাইটেডের চেয়েও ভয়ঙ্কর গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে রিয়াল মাদ্রিদের নগর প্রতিদ্বন্দ্বিরা। ১৮ ম্যাচ খেলে যেখানে রিয়াল কামিয়েছে ৩৭ পয়েন্ট। সেখানে অ্যাটলেটিকো বাগিয়ে নিয়েছে ৪১ পয়েন্ট। তিনে থাকা আরেক জায়ান্ট বার্সেলোনাতো এবার শিরোপার আশা ছেড়েই দিয়েছে। রিয়ালের সমান ম্যাচে কাতালানদের অর্জন ৩৪। শিরোপা দৌড়ে যা অনেক গৌণ। একই সমান ম্যাচ খেলে চারে থাকা ভিলারিয়েলের পয়েন্ট ৩২। নিজ মাঠে পরশু সেভিয়াকে ২-০ গোলে হারিয়েছে ডিয়েগো সিমিওনের দল। এতে করে দ্বিতীয় স্থানে থাকা রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে পয়েন্ট ব্যবধান বাড়িয়ে চারে নিয়ে গেছে কোলচোনেরোস।
লা লিগায় সব সময়ই বার্সা-রিয়াল ফ্যানেরাই মেতে থাকে তর্কে। তবে এবার সিমিওনের শিষ্যরা মুখে কুলুপ এঁটে ধরেছে তাদের। বার্সোলোনা ইতিমধ্যেই ছিটকে গেছে শিরোপার দৌড় থেকে। আর রিয়ালও আছে ঢেড় পিছিয়ে। অবশ্য তিনদিন মাঠে নামার কথা থাকলেও অতিরিক্ত তুষারপাতে স্থগিত হয়ে যায় অ্যাথলেতিক বিলবাওয়ের বিপক্ষে তাদের ম্যাচ। ফলে, বাড়তি বিশ্রামের সুযোগ পেয়ে চনমনে হয়ে নিজ মাঠ ওয়ান্দা মেত্রোপলিতানোতে পরশু রাতে নামে অ্যাটলেটিকো। তবে তার চেয়েও বড় কথা লা লিগা বর্তমান সময়ের রাজা অ্যাটলেটিকোই।
ক্রমাগত পুরোনো বন্ধুদের হারানো ইউনাইটেড ও অ্যাটলেটিকো কি পারবে একই ছন্দ ধরে রাখতে? যদি পারে তবে মৌসুম শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত সবার শত্রু হয়েই থাকবে তারা। অবশ্য খেলোয়াড়, কোচ ও সমর্থকদের এটাই চাওয়া।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ফুটবল


আরও
আরও পড়ুন