Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ১৬ জানুয়ারি ২০২১, ০২ মাঘ ১৪২৭, ০২ জামাদিউল সানী ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি দুর্নীতির মামলায় জামিন বাতিলের কয়েক ঘন্টা পর আবার ২২ জনের জামিন

তবে জেল কারাগার থেকে মুক্তি পাবেন বৃহস্পতিবার সকালে

দিনাজপুর অফিস | প্রকাশের সময় : ১৩ জানুয়ারি, ২০২১, ১১:৩১ পিএম

দিনাজপুরের বড়পুকুরিয়া কয়লা খনির দুর্নীতির মামলায় সাবেক ছয় ব্যবস্থাপনা পরিচালকসহ (এমডি) ২২ জনের জামিন বাতিলের কয়েক ঘন্টা পর একই আদালত জামিন মঞ্জুর করা হয়েছে। রাতে জামিনের কাগজ কারাগারে পৌঁছালেও কারাবিধি মোতাবেক আগামীকাল বৃহস্পতিবার সকালে তাদের মুক্তি দেয়া হবে।

১ লাখ ৪৩ হাজার ৭২৭.৯৯ মেট্রিক টন কয়লা (যার আনুমানিক মূল্য ২৪৩ কোটি ২৮ লাখ টাকা) আত্মসাতের অভিযোগে আজ বুধবার দুপুরে দিনাজপুরের স্পেশাল জজ আদালতের বিচারক মাহমুদুল করিম তাদের জামিন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ প্রদান করেন। এই ২২জন কর্মকর্তা উচ্চ আদালতের অন্তর্বর্তীকালীন জামিনের ছিলেন। দুদকের করা মামলার সাবেক ৬জন এমডিসহ ২২জন কর্মকর্তা আদালতে জামিনের জন্য আদালতে উপস্থিত হয়। আসামীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়। একজন এমডি মৃত্যুবরণ করায় তাকে মামলা থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়।বিকেল ৪টার দিকে তাদের আদালতের হাজত খানা থেকে তাদের জেল কারাগারে প্রেরণ করা হয়। বিকেলে একই আদালতে পুনরায় জামিনের আবেদন করা হলে তাদের জামিন মঞ্জুর করা হয়। রাত ৯টার দিকে জামিনের কাগজ কারাগারে পৌঁছেছে বলে জেল সুপার নিশ্চিত করেছেন। জামিনের কাগজ পৌঁছালেও তাদের আগামীকাল সকালের আগে তাদের মুক্তি দেয়া সম্ভব হবে না।

উল্লেখ্য, বড়পুকুরিয়া কয়লা খনি থেকে কয়লা উধাও হয়ে যাওয়ার ঘটনায় ২০১৮ সালের ২৪ জুলাই বড়পুকুরিয়া কোল মাইনিং কোম্পানির পক্ষে ম্যানেজার (প্রশাসন) মোহাম্মদ আনিছুর রহমান বাদী হয়ে ১৯ জনকে আসামি করে পার্বতীপুর মডেল থানায় মামলা করেছিলেন। পার্বতীপুর মডেল থানার মামলা নয়-৩০, তাং-২৪/০৭/২০১৮ ইং।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: দিনাজপুর


আরও
আরও পড়ুন