Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ১৪ ফাল্গুন ১৪২৭, ১৪ রজব ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

চোটে নীল ভারতের ‘বিশ’!

ল্যাবুশেইনে অস্ট্রেলিয়ার স্বস্তি

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৬ জানুয়ারি, ২০২১, ১২:০৬ এএম

ভারতের বিপক্ষে সিরিজের চতুর্থ ও শেষ টেস্টে মারনাস ল্যাবুশেইনের সেঞ্চুরি স্বস্তি দিচ্ছে অস্ট্রেলিয়াকে। প্রথম দিন শেষে স্বাগতিক দলের সংগ্রহ পাঁচ উইকেটে ২৭৪। ১০৮ রান করে আউট হন ল্যাবুশেইন। গতকাল ব্রিসবেনের গতিময় উইকেটে টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন অজি অধিনায়ক টিম পেইন। সিদ্ধান্ত যে সঠিক ছিল না সেটা বুঝতে খুব বেশি সময় লাগেনি অস্ট্রেলিয়ার।

প্রথম ওভারেই ডেভিড ওয়ার্নারের উইকেট তুলে নেয় ভারত। অভিজ্ঞ এই ওপেনারকে চার রানে ফেরান মোহাম্মদ সিরাজ। ভারতের অনভিজ্ঞ সিম অ্যাটাক সকালের প্রথম দুই ঘণ্টায় শক্ত পরীক্ষা নেয় অজি ব্যাটসম্যানদের। যে পরীক্ষায় উতরাতে ব্যর্থ হন আরেক ওপেনার মার্কাস হ্যারিসও। শার্দুল ঠাকুরের বলে পাঁচ রান করে ফেরেন উইল পুকোভস্কির ইনজুরিতে দলে জায়গা পাওয়া এই ব্যাটসম্যান।

দ্রুত দুই উইকেট হারানো স্বাগতিক দলের হাল ধরেন স্টিভেন স্মিথ ও ল্যাবুশেইন। তৃতীয় উইকেটে ৭০ রান যোগ করেন দুইজন। জুটি যখন উইকেটে থিতু হয়ে এসেছে, তখনই আঘাত হানে ভারত। ৩৬ রান করা স্মিথকে আউট করেন টেস্ট অভিষিক্ত ওয়াশিংটন সুন্দর। সঙ্গী হারালেও অবিচল ছিলেন ল্যাবুশেইন। ম্যাথিউ ওয়েডকে নিয়ে গড়েন আরেকটি সফল জুটি। চতুর্থ উইকেটে ওয়েড-ল্যাবুশেইন মিলে যোগ করেন ১১৩ রান। সেই ফাঁকে ল্যাবুশেইন পূর্ণ করেন তার পঞ্চম টেস্ট সেঞ্চুরির। ১৯৫ বল খেলে নয়টি বাউন্ডারিতে এই মাইলফলকে পৌঁছান তিনি।

এরপরই জোড়া আঘাত হানে ভারত। উইকেটে সেট হয়ে শট খেলতে থাকা ওয়েডকে বিপজ্জনক হতে দেননি থাঙ্গাসারু নটরাজন। ৪৫ রানে তাকে ফেরান এই সিমার। দুই ওভার পর ১০৮ রানে ল্যাবুশেইনকেও বিদায় করেন নটরাজন। সিরিজে এটি তার দ্বিতীয় ও টেস্ট ক্যারিয়ারের পঞ্চম শতক। ২১৩ রানে পাঁচ উইকেট হারিয়ে অস্ট্রেলিয়া তখন তিনশর কমে গুটিয়ে যাওয়ার শঙ্কায়। তেমনটি হতে দেননি পেইন ও ক্যামেরন গ্রিন। দুইজনে মিলে কাটিয়ে দেন দিনের বাকি সময়। রান যোগ করেন ৬১। দিনশেষে গ্রিন ২৮ ও পেইন ৩৮ রানে অপরাজিত ছিলেন। ভারতের হয়ে দুটি উইকেট নেন নটরাজন। একটি করে উইকেট পান সিরাজ, ঠাকুর ও সুন্দর।

ভারত দলে চোট হানা দিয়েছে এই ম্যাচের মাঝেও। প্রথম দিনই কুঁচকির চোটে ৭.৫ ওভারের বেশি বল করতে পারেননি পেসার নভদিপ সাইনি। তার বদলে ওভারটি পূর্ণ করতে হয়েছে সহ-অধিনায়ক রোহিত শর্মাকে। এই সফরে এরই মধ্যে ২০জন ক্রিকেটারকে খেলিয়ে ফেলেছে ভারত। দিপাক্ষিক কোনো সফরে এতজন বদলির ইতিহাস নেই ক্রিকেট বিশ্বে। এই সিরিজের আগে ২০১৮ সালে ইংল্যান্ড সফরে ১৭ জন ক্রিকেটের খেলেছিলেন ভারতের হয়ে। ২০১৪-১৫ সালের অস্ট্রেলিয়া সফর এবং ১৯৫৯ সালের ইংল্যান্ড সফরেও খেলেছিলেন ১৭ জন ক্রিকেটার। ১৯৬১ সালের পর এক সিরিজে ভারতীয় দলে এত জন ক্রিকেটার খেলার ঘটনা প্রথমবার।

সংক্ষিপ্ত স্কোর (প্রথম দিন শেষে)
অস্ট্রেলিয়া ১ম ইনিংস : ৮৭ ওভারে ২৭৪/৫ (ওয়ার্নার ১, হ্যারিস ৫, ল্যাবুশেইন ১০৮, স্মিথ ৩৬, ওয়েড ৪৫, গ্রিন ২৮*, পেইন ৩৮*; সিরাজ ১/৫১, নাটরাজন ২/৬৩, শার্দুল ১/৬৭, সাইনি ০/২১, সুন্দর ০/৬৩, রোহিত ০/১)।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: অস্ট্রেলিয়ার-স্বস্তি

১৬ জানুয়ারি, ২০২১
আরও পড়ুন