Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ০৬ মার্চ ২০২১, ২১ ফাল্গুন ১৪২৭, ২১ রজব ১৪৪২ হিজরী

ঘন কুয়াশা ও তীব্র শীতে কাহিল লালমনিরহাটের জনজীবন, দেখা মেলেনি সূর্যের

লালমনিরহাট জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৬ জানুয়ারি, ২০২১, ৬:১৫ পিএম

ঘন কুয়াশা ও তীব্র শীতে লালমনিরহাটের ৫ উপজেলায় জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। গত দুই দিনে (শুক্রবার-শনিবার) সূর্যের দেখা মেলেনি। ফলে শহর ও গ্রাম-গঞ্জের জনজীবন কাহিল হয়ে পড়েছে।

তীব্র শীতে ও ঘন কুয়াশায় রাস্তাঘাটে যানবাহন ও মানুষ চলাচল কমে গেছে। হাতে কাজ না থাকায় চরের অভাবী মানুষের ঘরে খাদ্যাভাব দেখা দিয়েছে। শীতবস্ত্রের অভাবে হত-দরিদ্র মানুষগুলো চরম কষ্টে ছেলে মেয়েদের নিয়ে দিনাতিপাত করছে।

লালমনিরহাট সদর উপজেলা সহ জেলার ৫টি উপজেলায় তীব্র শীতের কারণে গ্রামাঞ্চল সহ তিস্তা-ধরলা বেষ্টিত ৬৩ চরের মানুষ পড়েছে সবচেয়ে বেকায়দায় । শুক্রবার দিনভর মৃদু কুয়াশা ছিল। সন্ধ্যা নামার সাথে সাথে কুয়াশায় আচ্ছন্ন হয়ে যায় গোটা জেলা। গতকাল শনিবার শীতের তীব্রতা আরো বৃদ্ধি পেয়ে জনজীবন বিপর্যস্ত করে তুলেছে। সন্ধ্যার পর থেকে এর ঘনত্ব বাড়ে। রাত ১০টার পর ঘন কুয়াশার চাদরে ঢেকে যায় পুরো এলাকা। একই অবস্থা শনিবার সারা দিন হিমেল হাওয়ার কারণে রাস্তা ঘাট ছিল ফাকা। ফলে জেলা শহরের বিপণি-বিতান, রেলওয়ে স্টেশন, বাস স্টেশন, অটোরিকশা স্ট্যান্ডসহ কোলাহলপূর্ণ স্থানগুলোতে লোকজন নাই বললেই চলে।

শুক্রবার থেকে আজ (শনিবার) সারাদিন কুয়াশা আর তীব্র শীতের কারণে হতদরীদ্র মানুষগুলো আগুন জালিয়ে শীত নিবারণ করছে। এলাকায় ঘন কুয়াশা ও শীতের তীব্রতা আরও বৃদ্ধি পাচ্ছে।। ফলে অন্ধকারে আচ্ছন্ন হয়ে যায় শহর ও গ্রাম। ফুটপাতের সবজি, মাছ, ফলমূল ও শীতের কাপড় ব্যবসায়ীরা বেচা-কেনা না থাকায় তারা দোকান গুছিয়ে বাড়ি চলে গেছেন। রিকশাচালক, সিএনজিচালিত অটোরিকশা চালকরাও ভাড়ার আশায় আর বসে থাকছেন না।

এ বিষয়ে লালমনিরহাট শহরের স্টেশন এলাকার রিকশাচালক একরাম মিয়া বলেন, গত শুক্রবার রিকশা চালানো গেলেও শনিবার ভোর থেকে সকাল ১০টা পর্যন্ত রিকশা চালানো সম্ভব হয়নি। বেলা ৩টার দিকে মাত্র ৪/৫ জন যাত্রী পরিবহন করেছি। সবজি বিক্রেতা আলী হোসেন বলেন, কুয়াশার কারণে মানুষজন বের হচ্ছে না। এ কারণে অর্ধেক সবজিও বিক্রি হয়নি।
এ বিষয়ে লালমনিরহাট আবহাওয়া পর্যবেক্ষণ অফিসের কর্মকর্তা কৃষিবিদ শামীম আশরাফ বলেন, বাতাসের আর্দ্রতা প্রায় ৯৭ থেকে ৯৮ শতাংশ হওয়ায় কুয়াশার এত ঘনত্ব বেড়েছে। আবহাওয়ায় উচ্চ বলয় চাপের কারণে এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। তবে তাপমাত্রা সর্বনিম্ন ১৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস রয়েছে। কুয়াশা আরও দু-একদিন থাকতে পারে বলে তিনি জানান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: লালমনিরহাট


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ