Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ১২ ফাল্গুন ১৪২৭, ১২ রজব ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

প্রধানমন্ত্রীর বাসায় ঠিক করা ফল ঘোষণা করে ইসি

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৯ জানুয়ারি, ২০২১, ১২:০২ এএম

বর্তমানে যেসব নির্বাচন হচ্ছে সেগুলো আইওয়াশ বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেন, এখন নির্বাচনের নামে তামাশা করা হচ্ছে। নির্বাচনের ফলাফল শেখ হাসিনার বাসায় আগেই ঠিক করা থাকে। নির্বাচনের দিন নির্বাচন কমিশন (ইসি) সেই ফল ঘোষণা করে। নির্বাচন কমিশনের কার্যক্রম দেখে মনে হচ্ছে তারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চাকর বাকর। সরকার যা বলে তাই থরে। অথচ আইন অনুযায়ী সরকারের কোনো কথা শোনার বৈধতা নেই নির্বাচন কমিশনের।

গতকাল রোববার সকালে রংপুরের বদরগঞ্জের নাগের হাট এলাকায় শীতার্ত মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

সিরাজগঞ্জ পৌর নির্বাচনে বিএনপির নির্বাচিত কাউন্সিলর হত্যার শিকার হয়েছেন উল্লেখ করে রিজভী বলেন, বিরোধীদলের রক্তের ঘ্রাণ ও স্বাদ শেখ হাসিনার সবচেয়ে প্রিয়। বর্তমানে মাটি চাপা দিয়ে গণতন্ত্রকে কবর দেয়া হয়েছে। গণতন্ত্রকে উদ্ধার করতে হবে। এজন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে এই সরকারকে হঠাতে হবে।
বর্তমান সরকার ভোট ছাড়াই ক্ষমতায় আছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, বর্তমান ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ সরকার ভোট ছাড়াই ক্ষমতায় আছে। আজকে তিরিশ লাখ মানুষের ইজ্জতের বিনিময়ে দেশের মানুষ স্বাধীনতা লাভ করলেও প্রকৃত অর্থে কেউ স্বাধীন নয়। তারা সমস্ত অধিকার বন্দী করে রেখেছে। আজকে কথা বললে মানুষ গুম করা হচ্ছে। কারো কোনো স্বাধীনতা নেই।

রুহুল কবির রিজভী বলেন, শনিবার দেশের ৬০ টি পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলো। কিন্তু কি দেখলাম সেই একই রকম চিত্র। ভোটারদের ভোটাধিকার হরণ করে আগের রাতে বা প্রকাশ্যে ব্যালট পেপার ছিনিয়ে নেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, রাজনীতির অন্যতম মহৎ উদ্দেশ্য হলো জনগণের সেবা করা। যা আমাদের নেতা মহান স্বাধীনতার ঘোষক ও বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান করেছিলেন। তিনি আমাদের পথ দেখিয়ে গেছেন যে কিভাবে মানুষের সেবা করতে হবে!
বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বলেন, আজকে শীতবস্ত্র বিতরণ কর্মসূচী যারা আয়োজন করেছেন তাদেরকে ধন্যবাদ জানাই। বিশেষ কিছু বলার নেই। তবে কথায় আছে যে ঢেঁকি স্বর্গে গেলেও ধান ভানে। সুতরাং আমরা যারা রাজনীতি করি তাদের কখনো কখনো জনকল্যাণমূলক কাজ করতে হয়। তবে কিছু না কিছু রাজনৈতিক বক্তব্য রাখতে হয়।

রিজভী বলেন, শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান দেশের উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির জন্য নানামুখী উদ্যোগ গ্রহণ করেছিলেন। তিনি কৃষকের মুখে হাসি ফোটাতে নিজে কোদাল হাতে খাল খনন কর্মসূচির সূচনা করে গেছেন। কোনো মানুষ তথা কেউ যেন নিরক্ষর না থেকে অন্ততপক্ষে স্বাক্ষরজ্ঞান সম্পন্ন হন সে জন্য বয়স্ক শিক্ষা কার্যক্রম চালু করেছিলেন।
শীতবস্ত্র বিতরণের পূর্বে আলোচনায় বক্তব্য রাখেন রংপুর জেলা বিএনপিসাধারণ সম্পাদক রইচ আহমেদ, সহ-সভাপতি কাজী খয়রাত, মহানগর বিএনপিসাধারণ সম্পাদক শহীদুল ইসলাম মিজু, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সালাম, রংপুর মহানগর যুবদলের সভাপতি এডভোকেট মাহফুজ নবী ডন, বদরগঞ্জ উপজেলার বিএনপিসাধারণ সম্পাদক শাখাওয়াত হোসেন শাহান, বদরগঞ্জ পৌর বিএনপির সভাপতি হুমায়ুন কবির মানিক, সাধারণ সম্পাদক কমল লোহানী।

সভাপতিত্ব করেন বদরগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ও কুতুবপুর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি উত্তম কুমার সাহা। পরে সহস্রাধিক শীতার্ত মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইসি

১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১
১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২১

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ