Inqilab Logo

ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ১৩ কার্তিক ১৪২৭, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

লর্ডসে ম্লান সরফরাজের কীর্তি

প্রকাশের সময় : ২৮ আগস্ট, ২০১৬, ১২:০০ এএম | আপডেট : ১২:১৪ এএম, ২৮ আগস্ট, ২০১৬

স্পোর্টস ডেস্ক : টেস্টে এক নম্বর দলের অবস্থান ওয়ানডেতে নয় নম্বরে! এই অবস্থা থেকে বের হতে দলের সিনিওর খেলোয়াড়দের বিশেষভাবে তাগিদ দিলেন কোচ মিকি আর্থার। এমনকি ভাল পারফর্ম করতে না পারলে দল থেকে বের করে তরুণদের সুযোগ দেওয়া হবে বলেও সতর্ক করে দেন পাকিস্তান কোচ। কিন্তু কোচের এই সতর্কবাণীও উজ্জীবিত করতে পারল না পাকিস্তান দলকে। ইংল্যান্ড সফরে প্রথম এক দিনের ম্যাচে ৪৪ রানে হারের পর লর্ডসে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচেও ৪ উইকেটে হারলো পাকিস্তান। সরফরাজ আহমেদের রেকর্ড গড়া সেঞ্চুরিতে ২৫১ রান সংগ্রহ করে আজহার আলীর দল। জো রুটের ৮৯ রানে ভর করে ১৫ বল হাতে রেখেই লক্ষ্যে পৌঁছে যায় ৬ উইকেট হারানো ইংলিশরা। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৬৮ রান করেন অধিনায়ক মরগান। এছাড়া ৪২ রান আসে স্টোকসের ব্যাট থেকে। দুটি ইউকেট নেন ইমাদ, একটি করে শিকার আমির, হাসান আর রিয়াজের।
টস জিতে ব্যাট বেছে নিয়ে দলীয় ২ রানেই ৩ উইকেট হারায় আজহার আলীর দল। সেখান থেকে বাবর আজমকে (৩০) নিয়ে চতুর্থ উইকেটে ৬৪ রানের জুটি গড়েন সরফরাজ। পঞ্চম ও ষষ্ঠ উইকেটে সোয়েব মালিক (২৮) ও ইমাদ ওয়াসিমকে নিয়ে আরো দুটি পঞ্চাশোর্ধো রানের জুটি গড়েন পাক উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান। ষষ্ঠ ব্যাটসম্যান হিসেবে ফেরার আগে তুলে নেন ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় শতক। লর্ডসে তৃতীয় উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান হিসেবে সেঞ্চুরি করেন সরফরাজ। ২০১৪ সালে একই ম্যাচে আগের সেঞ্চুরি দু’টি করেছিলেন কুমার সাঙ্গাকারা ও জস বাটলার। কাল সরফরাজের ১০৫ রানের ইনিংসটি ছিল ১৩০ বলে ৬টি বাউন্ডারিতে সাজানো। সাউদাম্পটনে সিরিজের প্রথম ম্যাচেও পঞ্চাশোর্ধো রানের ইনিংস খেলেন সরফরাজ।
সরফরাজ ফেরার পর সফরকারীদের ইনিংস আড়াইশ পার করে ইমাদ ওয়াসিমের কল্যানে। এক বল বাকি থাকতে শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে যখন মোহাম্মাদ আমির রান আউট হয়ে ফেরেন, ইমাদ তখন অপরাজিত ৭০ বলে ৬৩ রানের এক ঝলমলে ইনিংস খেলে। ইংলিশদের হয়ে ৩টি করে উইকেট নেন মার্ক উড ও ক্রিস ওকস, ২টি উইকেট লেইম প্লাঙ্কেটের।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: পাকিস্তানের প্রথম সরফরাজ
আরও পড়ুন