Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ১৪ ফাল্গুন ১৪২৭, ১৪ রজব ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

পাকিস্তানের প্রশংসা ও ভারতকে সামরিক সহযোগিতার বার্তা বাইডেনের প্রতিরক্ষা সচিবের

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২০ জানুয়ারি, ২০২১, ৭:৩০ পিএম

পূর্বসূরী ডোনাল্ড ট্রাম্পের আমলের ভারত ও পাকিস্তান সংক্রান্ত নীতিতে বড়সড় কোনও পরিবর্তন আনবেন না তুন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। মঙ্গলবার দেয়া এক বার্তায় সেই ইঙ্গিতই দিয়েছেন পরবর্তী মার্কিন প্রতিরক্ষা সচিব লয়েড অস্টিন। ভারতকে সামরিক সহযোগিতার বার্তা দেয়ার পাশাপাশি পাকিস্তানের প্রশংসাও করেছেন তিনি।

আমেরিকার সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত জেনারেল অস্টিন সিনেট সদস্যদের সভায় জানান, নয়াদিল্লির সঙ্গে সামরিক সহযোগিতা বাড়ানোর পদক্ষেপ হিসেবে ‘কোয়াড’ (অস্ট্রেলিয়া এবং জাপানকে সঙ্গে নিয়ে ভারত-আমেরিকার সামরিক জোট)-এর মতো আরও আন্তঃরাষ্ট্রীয় অক্ষ গঠন করার চেষ্টা করবেন তারা। তিনি বলেন, ভারতকে আমরা ‘গুরুত্বপূর্ণ প্রতিরক্ষা সহযোগী’ হিসেবেই বিবেচনা করব। দ্বিপাক্ষিক সামরিক সহযোগিতা দৃঢ় করার লক্ষ্যে কাজ চালিয়ে যাব। পাশাপাশি, ওয়াশিংটনের পাকিস্তান সম্পর্কিত নীতিও মোটের উপর একই থাকবে বলে একটি সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন তিনি। পাকিস্তান সরকার লস্কর-ই-তৈয়বা, জয়েশ-ই-মুহাম্মদের মত ভারত-বিরোধী সংগঠনগুলোর বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিয়েছে বলেও ‘সার্টিফিকেট’ দিয়েছেন তিনি। চীন যে ভাবে পাকিস্তানকে সঙ্গে নিয়ে ভারত বিরোধী বৃত্ত গড়ে তুলতে সক্রিয়, তাতে পাল্টা সামরিক জোট ভারতেরও প্রয়োজন। আর তা উপলব্ধি করেই জাপান এবং অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে হাত মিলিয়ে দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় চিনের সামরিক প্রভাব খর্ব করার চেষ্টা শুরু হয়। আমেরিকার পরবর্তী প্রতিরক্ষা সচিবের বার্তা, আগামী দিনেও এই প্রক্রিয়া অব্যাহত থাকবে।

তবে বাইডেন জমানার সূচনা পর্বেই ইসলামাবাদ প্রসঙ্গে ‘নমনীয়তা’র ইঙ্গিত নয়াদিল্লিকে কিছুটা চাপে ফেলল বলেই কূটনৈতিক বিশ্লেষকদের অনেকেই মনে করেন। ট্রাম্প সরকার ২০১৮ সালে সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধে ইসলামাবাদের ‘সদিচ্ছা’ নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিল। পাকিস্তানকে সামরিক সহযোগিতার ক্ষেত্রেও কয়েকটি বিধিনিষেধ বলবৎ করেছিল। বাইডেন সরকার এ ক্ষেত্রে কী পদক্ষেপ নেয়, তা নিয়ে জল্পনা তৈরি করেছে অস্টিনের মন্তব্য। সূত্র: এনডিটিভি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: যুক্তরাষ্ট্র


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ