Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১, ১৬ ফাল্গুন ১৪২৭, ১৬ রজব ১৪৪২ হিজরী

হোয়াংহোর মতো এখন তিস্তা উত্তরবঙ্গের দুঃখ

সংসদে সরকারদলীয় দুই এমপির হতাশা-ক্ষোভ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২১ জানুয়ারি, ২০২১, ১২:০০ এএম

ভারতের সাথে বন্ধুত্বের সম্পর্ক বর্তমানে সবচেয়ে ভাল বলা হলেও এখন পর্যন্ত তিস্তা চুক্তি না হওয়ায় সংসদে হতাশা প্রকাশ করেছেন সরকার দলীয় এমপি মোতাহার হোসেন। গতকাল জাতীয় সংসদে প্রেসিডেন্টের ভাষণের ওপর আনা ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি হতাশা প্রকাশ করেন।

লালমনিরহাট-১ আসনের এমপি মোতাহার হোসেন বলেন, চীনের দুঃখ যেমন হোয়াংহো নদী, তেমনি তিস্তা নদী তার এলাকাসহ গোটা উত্তরবঙ্গের দুঃখের কারণ হয়ে দাঁঁড়য়েছে। পানি নেই, হেঁটেই নদী পার হওয়া যায়। ক্যানেলে ভারত থেকে যে পানি আসে, তা খুব সামান্য। এতে আবাদের কাজ হয় না। ভারতের সাথে আমাদের বন্ধুত্বের সম্পর্ক এখন সবচেয়ে ভাল অবস্থায় আছে। তারপরও এখন পর্যন্ত তিস্তা চুক্তি বাস্তবায়ন হলো না। যত দ্রুত সম্ভব এই চুক্তি করা গেলে এই অঞ্চলের মানুষ যথেষ্ট উপকৃত হবে।

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদের অধিবেশন শুরু হলে আলোচনায় আরও অংশ নেন বিমান ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী, সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার, আনোয়ার আবেদীন খান, ডা. সামিল উদ্দিন আহমেদ শিমুল, মো. আব্দুল আজিজ, এম এম শাহাজাদা ও সংরক্ষিত নারী আসনের সদস্য খালেদা খানম এবং স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য রেজাউল করিম বাবলু।

পরিবেশ দূষণ রোধে সরকারের পদক্ষেপ নিয়েও সংসদে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন সরকারি দলের এমপি আনোয়ারুল আবেদিন খান। পরিবেশ দূষণ রোধে সরকারি কাজেও পরিবেশবান্ধব ইটের ব্যবহার নিশ্চিত না হওয়ায় তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী বলেন, করোনাকালে বিমান ও পর্যটন খাত সব থেকে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর দূরদর্শী সিদ্ধান্তের কারণে করোনা মোকাবেলা করে এই খাতকে সচল রাখতে সক্ষম হয়েছি। আমরা অন্যান্য দেশের তুলনায় ভালো আছি। করোনার সময় বিমান সারা বিশ্বেই বন্ধ ছিল। তারপরও আমরা বিমানকে সচল রাখতে বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছি। আমরা চেষ্টা করেছি ক্ষতি কিছুটা পুষিয়ে নেওয়ার। এখনো অনেক দেশে বিমান বন্ধ আছে। কিন্তু আমরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে বিমান চালিয়ে যাচ্ছি।

করোনা টিকা নিয়ে বিরোধীদের সমালোচনার জবাবে সাবেক হুইপ সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার বলেন, এখনো টিকা আসেনি। ইতোমধ্যে অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ করা হচ্ছে। এটা কোনোভাবেই গ্রহণযোগ্য নয়। যারা দেশ চাননি, তারা দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতির বিরুদ্ধে সমালোচনা ও ষড়যন্ত্র করবেন এটাই স্বাভাবিক। জনগণকেই এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে।

সরকারি দলের সামিল উদ্দিন শিমুল বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ সমৃদ্ধ দেশের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু দেশের বড় রাজনৈতিক দল স্বাধীনতার বিপক্ষ শক্তিকে সহযোগিতা করে দেশকে অস্থির করার অপচেষ্টা করছে। এই অপচেষ্টাকে প্রতিহত করে সারা দেশের মানুষের কাছে শেখ হাসিনার উন্নয়ন ও ভালোবাসা পৌঁছে দিতে হবে।

এছাড়া স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে বগুড়ায় বিমানবন্দর স্থাপনের দাবি জানান স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য রেজাউল করিম বাবলু। তিনি বলেন, বগুড়ায় পর্যাপ্ত জায়গা রয়েছে। সরকার চাইলেই উত্তরবঙ্গের জনগণের এই দাবি পূরণ করা সম্ভব।

সংরক্ষিত নারী আসনের সদস্য খালেদা খানম বলেন, দেশের ইতিহাসে সব থেকে বড় প্রকল্পগুলো এই সরকার গ্রহণ করেছে। পদ্মাসেতু তৈরির মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বিশ্ববাসীকে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন। পদ্মা সেতু, মেট্রোরেল, কর্ণফুলী ট্যানেলসহ সরকারের নেওয়া ২৪টি মেগা প্রকল্পের বাস্তবায়ন শেষ হলে দেশের অর্থনীতি বদলে যাবে বলে।



 

Show all comments
  • Tareq Anam ২১ জানুয়ারি, ২০২১, ২:০৮ এএম says : 0
    কিন্ত ফ্রী তে করিডোর ব্যবস্থা ও বন্দরের ট্রানজিট ব্যবস্থা ভারতকে না চাইতেই বিনামূল্যে দেওয়া হয়েছে নিজ দেশের ব্যবসায়ীদের চরম ক্ষতি করে ও প্রচুর রাজস্ব লোকসানের মাধ্যমে। এর নাম নাকি স্বাধীনতার স্বপক্ষের শক্তির সরকার ?
    Total Reply(0) Reply
  • হাসিবুল হাসান শান্ত ২১ জানুয়ারি, ২০২১, ২:০৯ এএম says : 0
    যথাযথ শিরোনাম
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: তিস্তা

১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০
৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ